• ফুটবল

আমাকে ৯০ মিনিট ধরেই অপমান করা হয়েছিল: মরিনহো

 

রেফারি খেলা শেষ হওয়ার বাঁশি বাজালেন। শেষের ৫ মিনিটে দুই গোল করে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের নাটকীয় এক জয়ের পর ডাগআউট থেকে মাঠে এলেন ইউনাইটেড কোচ হোসে মরিনহো। কানে হাত দিয়ে জুভেন্টাসের সমর্থকদের দিকে ইশারা করে কিছু একটা বললেন। তাঁর এই কান্ডে স্বভাবতই চটেছেন জুভ সমর্থক ও ফুটবলাররা। ম্যাচ শেষে মরিনহো বলছেন, পুরো ম্যাচজুড়েই তাকে ‘অপমান’ করেছিলেন স্টেডিয়ামের দর্শকরা, এজন্যই ওই কাজটা করেছেন তিনি।

ম্যাচ শেষে মরিনহোর কানে হাত দিয়ে দর্শকের দিকে করা ওমন ভঙ্গিতে বেশ ভালোই ক্ষেপে গিয়েছিলেন জুভেন্টাসের ফুটবলাররা। লিওনার্দো বনুচ্চি, পাউলো দিবালা; মরিনহোর সাথে তর্কে জড়িয়ে পড়েছিলেন অনেকেই। শেষ পর্যন্ত ইউনাইটেডের অন্যরা এসে মরিনহোকে নিয়ে মাঠের বাইরে চলে যান। 

মরিনহো জানিয়েছেন, দর্শকের অপমানের জবাব হিসেবেই কানে হাত দিয়ে ইশারা করেছেন, ‘আমি ৯০ মিনিট ধরে অপমানিত হয়েছি। আমি তো আমার কাজ করছিলাম শুধু। আমি কাউকে অপমান করিনি, শুধু দর্শকের থেকে আরও বেশি শুনতে চেয়েছি। এটা আর করব না। তবে এখানে আমি পেশাদার কোচ হিসেবে এসেছি। এরপর আমার পরিবারকে অপমানসূচক কথা বলা হয়েছে, এজন্যই সেটা করেছিলাম। এটা নিয়ে আর ভাবতে চাই না।’

হারতে হারতে ইউনাইটেড জিতেছে বদলি ফুটবলারদের কল্যাণেই। ইউনাইটেডের এরকম জয়ে দারুণ খুশি মরিনহো, ‘এই জয়টা আমাদের জন্য খুবই গুরুত্বপূর্ণ ছিল। শুধু ঘরের মাঠে পয়েন্ট হারিয়েছিলাম সেজন্য না, আমরা কেমন খেলতে পারি সেটারও প্রমাণ দিয়েছে দল। এই ম্যাচে হারলেও অবশ্য আমি বলতাম, সবাই প্রথম মিনিট থেকেই ভালো খেলেছে।’