• ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগ
  • " />

     

    প্রিমিয়ার লিগে আসছে 'ভিএআর'

    লা লিগা, বুন্দেসলিগা বা সিরি আ- ইউরোপের সেরা পাঁচ লিগের তিনটিতে এই মৌসুম থেকেই শুরু হয়েছে 'ভিএআর' বা 'ভিডিও অ্যাসিস্ট্যান্ট রেফারি'র ব্যবহার। বিশ্বকাপের সাফল্যের পর ক্লাব ফুটবলেও চালু হয়ে গেছে ফুটবলের সাম্প্রতিকতম প্রযুক্তি। তবে ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগে 'ভিএআর'-এর অনুপস্থিতি নিয়ে আলোচনা, সমালোচনা চলছিল দীর্ঘদিন ধরেই। 'ভিএআর' কেন ইংল্যান্ডে আসছে না- এমনটাই প্রশ্ন ছিল অনেকের। তবে এখন আর সেসব প্রশ্নের কোনও অবকাশ নেই। কারণ আজ এক বিবৃতিতে নিশ্চিত করা হয়েছে, আগামী অর্থাৎ ২০১৯-২০ মৌসুম থেকেই প্রিমিয়ার লিগে ব্যবহার করা হবে 'ভিএআর'।

     

     

    প্রিমিয়ার লিগে 'ভিএআর'-এর ব্যবহার নতুন হলেও ইংল্যান্ডে অবশ্য আগেও ব্যবহৃত হয়েছে এই প্রযুক্তি। ২০১৮-১৯ মৌসুমের এফএ এবং কারাবাও কাপে 'ভিএআর'-এর ব্যবহার দেখা গেছে। দীর্ঘদিন ধরে পরীক্ষা-নিরীক্ষার পর আজ প্রিমিয়ার লিগের ক্লাবগুলোকে সর্বশেষ দেওয়া বিবৃতির পর তাদের সকলের মত নিয়েই এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। আন্তর্জাতিক ফুটবল অ্যাসোসিয়েশন বোর্ড এবং ফিফার কাছে এখন 'ভিএআর' ব্যবহারের অনুমতি চেয়ে আনুষ্ঠানিক চিঠি যাবে প্রিমিয়ার লিগ থেকে। অনুমতি পাওয়ার পর আগামী মৌসুম থেকেই প্রিমিয়ার লিগে দেখা যাবে এই প্রযুক্তি। গত সপ্তাহেই ম্যাচে শেষে সংবাদ সম্মেলনে রেফারির সিদ্ধান্তের জোর প্রতিবাদ জানিয়েছিলেন সাউদাম্পটন স্ট্রাইকার চার্লি অস্টিন। ওয়াটফোর্ডের বিপক্ষে স্কোর ১-১ থাকার সময় তাঁর করা গোলটি অফসাইডের কারণে বাতিল করেন রেফারি। 'ভিএআর' আসার পর আগামী মৌসুম থেকে এমন পরিস্থিতি তৈরি হওয়ার সম্ভাবনা কমে যাবে অনেকটাই।  

    প্রিয় প্যাভিলিয়ন পাঠক, 

    কোভিড-১৯ মহামারি বিশ্বের আরও অনেক কিছুর মতো অর্থনৈতিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত করেছে ক্রীড়াঙ্গনকে। পরিবর্তিত এই পরিস্থিতিতে নতুন এক সংকটের মুখোমুখি হয়েছি আমরাও। প্যাভিলিয়নের নিয়মিত পাঠক এবং শুভানুধ্যায়ী হিসেবে আপনাদের কাছে অনুরোধ থাকবে আমাদের পাশে এসে দাঁড়ানোর। আপনার ছোট বা বড় যেকোনো রকম আর্থিক অনুদান আমাদের এই কঠিন সময়ে মূল্যবান অবদান রাখবে।

    ধন্যবাদান্তে,
    প্যাভিলিয়ন