• উয়েফা চ্যাম্পিয়নস লিগ
  • " />

     

    • উয়েফা চ্যাম্পিয়নস লিগ

    "আয়াক্স-ইউনাইটেড রূপকথার পুনরাবৃত্তি ঘটাতে চায় লিঁও"

    প্রথম লেগে হেরেও আয়াক্স ও ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড লিখেছে রূপকথা। তাদের মতো অবশ্য নিজেদের মাঠে হারেনি লিঁও। তবে বার্সেলোনার মাঠে দ্বিতীয় লেগে কঠিন পরীক্ষার মুখেই পড়তে হবে তাদের। লিঁও কোচ ব্রুনো জেনেসিও অবশ্য আশাবাদী, আয়াক্স ও ইউনাইটেডের মতো তাঁর দলও দ্বিতীয় লেগ জিতেই কোয়ার্টারে যাবে।

    লিঁওর মাঠে গোল করতে পারেনি দুই দলই। বার্সেলোনা ও লিঁওর মাঝে কে যাবে পরের রাউন্ডে, সেটা নির্ধারিত হবে ন্যু ক্যাম্পেই। লিওনেল মেসিদের প্রথম লেগে আটকে দিলেও ঘরের মাঠে কতটা ভয়ংকর হতে পারে কাতালানরা, সেটা অজানা নেই ব্রুনোর।

    ঘরের মাঠে বার্সা ‘ফেবারিট’, এটা ধরেই নিয়েই বার্সাকে হারিয়ে কোয়ার্টারে যাওয়ার স্বপ্ন দেখছেন ব্রুনো, ‘আয়াক্স ও ইউনাইটেডের ম্যাচ আমাদের বুঝিয়ে দিয়েছে চ্যাম্পিয়নস লিগে কিছুই অসম্ভব নয়। কেউ কি ভেবেছিল ইউনাইটেড ও আয়াক্স পরের রাউন্ডে যাবে? ওই ম্যাচ দুটিই আমাদের বাড়তি অনুপ্রেরণা যোগাচ্ছে। আমাদের আত্মবিশ্বাসী হতে হবে, ঝুঁকিও নিতে হবে। বার্সাকে হারাতে নিখুঁত ফুটবল খেলার বিকল্প নেই।’

    প্রথম লেগে মেসিকে গোল করতে দেয়নি লিঁও। ন্যু ক্যাম্পেও তাঁর দিকে বিশেষ নজর রাখবে লিঁও ডিফেন্ডাররা, জানালেন ব্রুনো, ‘মেসির ওপর অনেক কিছুই নির্ভর করে। তিনি অসাধারণ একজন ফুটবলার। ম্যাচে যেন তিনি বেশি প্রভাব খাটাতে না পারেন ওভাবেই আমরা পরিকল্পনা সাজাবো। তাকে আমরা একজনকে দিয়ে ঠেকানোর চেষ্টা করব না। সবাই মিলেই তাকে আটকাতে হবে।’

    এদিকে বার্সা কোচ এরনেস্তো ভালভার্দে ঘরের মাঠে বেশ সতর্ক থাকার ইঙ্গিতই দিলেন, ‘আগের ম্যাচের গোলশূন্য ড্র আসলে কারো জন্যই লাভজনক হয়নি। লিঁও এই ম্যাচে নিজেদের সবটুক দিয়ে জয়ের চেষ্টা করবে। অ্যাওয়ে গোলটা বড় ফ্যাক্টর হয়ে দাঁড়াতে পারে। আমাদের এটা নিয়ে সতর্ক থাকতে হবে।’

     

     

    লিঁও কি পারবে আয়াক্স, ইউনাইটেডের মতো কিছু করে দেখাতে?