• ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগ
  • " />

     

    • ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগ

    এটাই আমার কোচিং ক্যারিয়ারের সবচেয়ে কঠিন শিরোপা: গার্দিওলা

    শেষ ম্যাচে জয় পেলেই চলত তাদের। ব্রাইটনের বিপক্ষে পিছিয়ে পড়ে সেই শিরোপা লড়াইটা জমিয়ে তুলেছিল ম্যানচেস্টার সিটিই। শেষ পর্যন্ত ৪-১ গোলের বড় জয় নিয়েই টানা দ্বিতীয়বারের মতো লিগ জিতল পেপ গার্দিওলার দল। শেষ ম্যাচে এসে শিরোপা নিশ্চিত করার পর গার্দিওলা বলছেন, এটাই তাঁর কোচিং ক্যারিয়ারের সবচেয়ে কঠিন শিরোপা।

    পুরো মৌসুমে শীর্ষস্থান অদল বদল হয়েছে ৩২ বার। বছরের শুরুতে লিভারপুলের চেয়ে সাত পয়েন্ট পিছিয়ে ছিল সিটি। সেখান থেকে ঘুরে দাড়িয়েই শিরোপা জিতল তাঁরা। শেষ পর্যন্ত দ্বিতীয় স্থানে থাকা লিভারপুলের চেয়ে মাত্র এক পয়েন্ট এগিয়ে থেকেই মৌসুম শেষ করল সিটিজেনরা।

    বার্সেলোনা, বায়ার্ন মিউনিখের হয়ে শিরোপা জিতেছেন গার্দিওলা, গতবার জিতেছেন সিটির হয়েও। তবে এবারের শিরোপাটা জিততে খুব বেশি কাঠখড় পোড়াতে হয়েছে তাকে, মানছেন গার্দিওলা, ‘৯৮ পয়েন্ট নিয়ে টানা দ্বিতীয়বার চ্যাম্পিয়ন হওয়া অবিশ্বাস্য ব্যাপার। লিগ জেতার জন্য আমাদের টানা ১৪ ম্যাচ জিততে হয়েছে, এক পয়েন্ট হারানোর সুযোগ ছিল না। কৃতিত্বটা তাই লিভারপুলকেও দিতে হয়। আমার ক্যারিয়ারে এতো কঠিন লড়াইয়ের পর শিরোপা এর আগে জিতিনি।’

     

     

    শেষ ম্যাচের আগে গার্দিওলা বলেছিলেন, তিনি বাচ্চাদের মতো নির্ভার হয়েই ঘুমাচ্ছেন! লিভারপুল নিজেদের ম্যাচে এগিয়ে গেলেও ব্রাইটনের বিপক্ষে শুরুতেই পিছিয়ে পড়েছিল সিটি। তখন কি একটু নার্ভাস হয়ে পড়েছিলেন তিনি? গার্দিওলা অবশ্য বলছেন, তিনি খুব একটা দুশ্চিন্তায় পড়েননি, ‘আমরা আসলে লিভারপুলে এগিয়ে থাকা নিয়ে ভাবছিলাম না। নিজেদের ম্যাচে জিততে পারলেই যথেষ্ট ছিল, শুধু জেতা নিয়েই ভাবছিলাম। শুরুতে খানিকটা পিছিয়ে থাকলেও পরে দারুণভাবে ম্যাচে ফিরেছে সিটি। শিরোপা জয়ে সবাই দারুণ খুশি।’