• চ্যাম্পিয়নস লিগ
  • " />

     

    রিয়াল ছাড়ছেন নাভাস, ইস্কো, ক্রুস; বার্সায় আসছেন গ্রিযমান?

    আগামী মৌসুমে রিয়ালের পরিকল্পনায় নেই নাভাস?

    গত ৫ বছরে ৪বার চ্যাম্পিয়নস লিগ জেতা রিয়াল মাদ্রিদের গোলরক্ষক ছিলেন তিনিই। থিবো কর্তোয়ার আসার পর জায়গা হারিয়েছিলেন, কিন্তু জিনেদিন জিদানের অধীনে রিয়ালের গোলবারে ফিরেছিলেন কেইলর নাভাস। সার্জিও রামোসদের পেছনের জায়গাটা আবারও পাকাপাকিভাবে পাওয়ার স্বপ্নে বুঁদ হতে যাওয়া নাভাসকে দুঃসংবাদই জানাল রিয়াল। স্প্যানিশ সংবাদমাধ্যম মার্কা জানিয়েছে, আগামী মৌসুমে রিয়ালের পরিকল্পনায় থাকছেন না নাভাস। 

    মৌসুমজুড়ে যার এত সমালোচনা, সেই কর্তোয়াই হতে যাচ্ছেন রিয়ালের মূল গোলরক্ষক। বেলজিয়ান গোলরক্ষকের 'আন্ডারস্টাডি' হিসেবে থাকছেন জিদানপুত্র লুকা। নাভাসকে দলে নেওয়ার ইচ্ছাপোষণ করেছেন নাপোলি ম্যানেজার কার্লো আনচেলত্তি। পিটার চেক অবসর নেওয়ায় কোস্টারিকান গোলরক্ষককে দলে চায় আর্সেনালও, জানিয়েছে ডেইলি মেইল।

    বার্সায় আসতে বেতন কমাতেও আপত্তি নেই গ্রিযমানের?

    গত গ্রীষ্মে তাকে দলে নিতে উঠেপড়ে লেগেছিল বার্সেলোনা। কিন্তু শেষ পর্যন্ত অ্যাটলেটিকো মাদ্রিদের সাথেই চুক্তি নবায়ন করেছিলেন আঁতোয়া গ্রিযমান। ২০১৮-১৯ মৌসুমে লা লিগা জিতেছে বার্সা, চলে গেছে কোপা ডেল রে ফাইনালেও। বার্সার এমন সাফল্যে কিছুটা হলেও হয়তো ভুগছেন গ্রিযমান, এবার আবারও কাতালানদের দলে যোগ দিতে উঠেপড়ে লেগেছেন তিনি নিজেই। বার্সায় যোগ দিতে বেতন কমাতেও আপত্তি নেই গ্রিযমানের, জানিয়েছে এএস।

     

     

    ত মৌসুমে বেতনের কারণেই বার্সায় যোগ দিতে চাননি গ্রিযমান। নতুন চুক্তিতে অ্যাটলেটিকোর হয়ে ২৩ মিলিয়ন ইউরো পান ফ্রেঞ্চ ফরোয়ার্ড, কিন্তু কাতালানদের সাথে আবারও বেতন নিয়ে বিবাদে জড়াতে চান না তিনি। এর্নেস্তো ভালভার্দের দলের সাথে অ্যাটলেটিকোর চুক্তি হলেই মাদ্রিদ ছাড়বেন গ্রিযমান, বেতন নির্ধারণ করবে বার্সাই- জানিয়েছে ফ্রেঞ্চ সংবাদমাধ্যম লেকিপ। 

     

     

    পিএসজিতে ক্রুস, ডি গেয়া, ইস্কো?

    কিলিয়ান এম্বাপ্পে, নেইমারদের নিয়ে দল সাজালেও এই মৌসুমে আবারও ব্যর্থ হয়েছে প্যারিস সেইন্ট জার্মেই। ফ্রেঞ্চ লিগ শিরোপা ধরে রাখলেও ফ্রেঞ্চ কাপের ফাইনালে হেরে গেছে তাঁরা, বিদায় নিতে হয়েছে চ্যাম্পিয়নস লিগের শেষ ষোল থেকেও। কিন্তু এখনও হাল ছাড়ছেন না প্রেসিডেন্ট নাসের আল খেলাইফি। এই গ্রীষ্মে আবারও দলবদলের বাজারে বড় অঙ্কের টাকা ঢালতে প্রস্তুতি নিচ্ছে তাঁরা, জানিয়েছে লেকিপ।

    ফরোয়ার্ড লাইন দারুণ হলেও মাঝমাঠ নিয়ে বেশ সমালোচনা সইতে হয়েছে তাদের। মাঝমাঠ শক্তিশালী করতে খেলাইফির চোখ এখন রিয়াল মিডফিল্ড জুটি টনি ক্রুস এবং ইস্কোর ওপর। পল পগবা রিয়ালে আসছেন, তাকে জায়গা করে দিতেই রিয়াল ছাড়তে পারেন ক্রুস, মার্কার এমন সংবাদে যেন ঘি ঢেলে দিল লেকিপ। গোলবারের নিচেও বিশ্বরেকর্ড গড়ার ইঙ্গিত দিয়েছেন খেলাইফি। ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড থেকে ডেভিড ডি গিয়াকে দলে আনতে চান তিনি।

    অ্যাটলেটিকোয় আসছেন ডি মারিয়া, অটামেন্ডি, ইয়োরেন্তে?

    ডিয়েগো গোডিন ক্লাব ছাড়ার ঘোষণা দিয়েছেন গত সপ্তাহে। গ্রিযমানের বার্সায় যোগ দেওয়াও এখন মনে হচ্ছে সময়ের ব্যাপার। মিডফিল্ডার রড্রিকে দলে নিতে উঠেপড়ে লেগেছেন পেপ গার্দিওলা। দলের অন্যতম তিন ফুটবলারের ক্লাব ছাড়ার গুঞ্জনে তাই হাতপা গুটিয়ে নেই অ্যাটলেটিকোও। প্রত্যেক পজিশনেই বিকল্প পছন্দ করে রেখেছেন কোচ ডিয়েগো সিমিওনে।

    আক্রমণে গ্রিযমানের বদলে স্বদেশী আনহেল ডি মারিয়াকে দলে চান তিনি। এম্বাপ্পে-নেইমারদের ভীড়ে পিএসজিতে তেমন সুযোগ পাননি তিনি, দল ছাড়ার ইচ্ছাও পোষণ করেছেন ডি মারিয়া। দুইয়ে দুইয়ে তাই চার মেলাতে চাচ্ছেন সিমিওনে। রড্রি ম্যানচেস্টার সিটিতে চলে গেলে নগর প্রতিদ্বন্দ্বী রিয়ালের মার্কোস ইয়োরেন্তেকে দলে চান আর্জেন্টাইন কোচ। আর গোডিনের বদলে আরও এক স্বদেশী এবং ডি মারিয়ার সতীর্থ নিকোলাস অটামেন্ডিকে চান সিমিওনে।

     

     

    অদলবদল হচ্ছে কস্তা-কাভানির?

    রেফারির সাথে দুর্ব্যবফার করে আট ম্যান নিষিদ্ধ হয়েছিলেন ডিয়েগো কস্তা। চেলসি থেকে নাড়ির টানে অ্যাটলেটিকোয় ফেরাটা ঠিক সুখকর হয়নি তার। মাঠে ফর্মহীনতা, এবং মাঠের বাইরে বিতর্কে ঠাসা স্প্যানিশ স্ট্রাইকারের বিকল্প ভাবছে অ্যাটলেটিকো। সিমিওনের প্রথম পছন্দ পিএসজির এডিনসন কাভানি। দুই স্ট্রাইকারের মাঝে অদলবদলের প্রস্তাব দিয়েছে অ্যাটলেটিকো।

    মৌসুম দুয়েক আগেই কাভানিকে নিজ দলে পাওয়ার ইচ্ছাপোষণ করেছিলেন সিমিওনে। উরুগুইয়ান স্ট্রাইকারকে দলে ভেড়াতে তাই সর্বাত্মক চেষ্টা করে যাচ্ছেন তিনি। মুন্ডো দেপোর্তিভো জানিয়েছে, গ্রিযমান বার্সার চলে গেলে তার জায়গায় ডি মারিয়াকে না পেলে কাভানিকেই আনতে চান সিমিওনে। কাভানি চলে গেলে কস্তার কথা ভেবে দেখবে পিএসজি, জানিয়েছে গাজেত্তা দেল স্পোর্ট।