• ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগ
  • " />

     

    • ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগ

    রিয়ালেই থাকছেন মার্সেলো, ডি লিটের জন্য বার্সার শেষ চেষ্টা?

    রিয়ালেই থাকছেন মার্সেলো?

    ২০১৮-১৯ মৌসুমে জুলেন লোপেতেগি এবং সান্তিয়াগো সোলারির অধীনে রিয়াল মাদ্রিদের একাদশে জায়গাও হারিয়েছিলেন মার্সেলো। কিন্তু গত মৌসুমের শেষে জিনেদিন জিদানের সাথে রিয়ালের একাদশে ফিরেছিলেন তিনি। ফ্রেঞ্চ লেফটব্যাক ফার্ল্যান্ড মেন্ডিকে দলে নিচ্ছে রিয়াল, ক্লাবে আছেন আরও দুই লেফটব্যাক সার্জিও রেগুইলন এবং থিও হার্নান্দেজ। সব মিলিয়ে মার্সেলোর ক্লাব ছাড়ার গুঞ্জনও মাথাচাড়া দিচ্ছিল বেশ। ভবিষ্যতের সিদ্ধান্তটা ব্রাজিলিয়ান লেফটব্যাকের উপরই ছেড়ে দিয়েছে রিয়াল, জানিয়েছিল মার্কা। এবার ইএসপিএন নিশ্চিত করেছে, রিয়ালেই থাকতে চান মার্সেলো।

    ইএসপিএন জানিয়েছে, জিদানের রিয়ালের ম্যানেজার হিসেবে ফেরাই মার্সেলোর এমন সিদ্ধান্তের মূল কারণ। প্রতিযোগিতা নিয়ে চিন্তিত নন মার্সেলো, প্রমাণ করতে চান নিজেকে। অবশ্য রেগুইলন এবং হার্নান্দেজের ক্লাব ছাড়াও সময়ের ব্যাপার বলেই মনে হচ্ছে। সেক্ষেত্রে মার্সেলোর 'আন্ডারস্টাডি' হিসেবেই হয়তো থাকতে হবে মেন্ডিকে।
     

    ডি লিটকে দলে নিতে বার্সার শেষ চেষ্টা?

    গত মৌসুমে দুর্দান্ত পারফরম্যান্সের কারণে আয়াক্স অধিনায়ক মাথিয়াস ডি লিটকে দলে নিতে উঠেপড়ে লেগেছে ইউরোপের সেরা ক্লাবগুলো। বার্সেলোনা, ম্যানচেস্টার সিটি, প্যারিস সেইন্ট জার্মেই- বাদ যায়নি কেউই। একটা সময় ডি লিটের বার্সায় যোগ দেওয়া সময়ের ব্যাপার মনে হলেও এখনও ভবিষ্যৎ নিয়ে সিদ্ধান্ত নেননি ডাচ ডিফেন্ডার। ডি লিটকে বার্সার চেয়ে বেশি বেতনের প্রস্তাব জানিয়েছে পিএসজি। তবে এখনও হাল ছাড়ছে না বার্সা, এই সপ্তাহে ডি লিটকে দলে নিতে শেষ চেষ্টা করবে তারা; জানিয়েছে মুন্ডো দেপোর্তিভো।

     

     

    ডি লিটকে দলে নিতে আয়াক্সকে ৮০ মিলিয়ন ইউরোর প্রস্তাব দিয়েছিল বার্সা। কিন্তু বেতন এবং ডি লিটের এজেন্ট মিনো রাইওলার একাধিক দাবিদাওয়া মানতে নারাজ হওয়ায় বার্সার সাথে দলবদলের কথাবার্তা থেমেই গিয়েছিল। সুযোগটা কাজে লাগানোর চেষ্টা করছে পিএসজি। প্রায় সাড়ে তিন লাখ ইউরো সাপ্তাহিক বেতনের নিশ্চয়তা দিয়েছে তারা। সেজন্যই শেষ চেষ্টা করছে বার্সা। যাকে নিয়ে এত কথা, সেই ডি লিট এখনও মুখ খুলছেন না। শুধু জানিয়েছেন, যেখানেই যান না কেন; সেটা মোটা অংকের বেতনের জন্য হবে না। দলের মধ্যে প্রতিযোগিতা নিয়েও চিন্তিত নন তিনি।

     

     

    পিএসজিতে যাচ্ছেন ডি গেয়া?

    গত সপ্তাহেই পিএসজি ছাড়রা ঘোষণা দিয়েছেন জিয়ানলুইজি বুফন। গোলবারের নিচে বুফনের বিকল্প হিসেবে ইউনাইটেড গোলরক্ষক ডেভিড ডি গেয়াকেই পছন্দ পিএসজির, জানিয়েছে লা পারিসিয়ান। 'রেড ডেভিল'দের সাথে চুক্তিতে আর এক বছর বাকি ডি গেয়ার, এবার না ছাড়লে আগামী গ্রীষ্মে হয়তো ফ্রি ট্রান্সফারেই ক্লাব ছাড়তে পারেন স্প্যানিশ গোলরক্ষক। সুযোগটা কাজে লাগাতে চায় পিএসজি।

    ইউনাইটেডে থাকতে আপত্তি নেই ডি গেয়ার, কিন্তু বেতন না বাড়ালে ক্লাব ছাড়বেন তিনি- জানিয়েছে দ্য গার্ডিয়ান। ডি গেয়ার জন্য ৮০ থেকে ৯০ মিলিয়ন ইউরোর প্রস্তাব দিতে পারে পিএসজি।  

    ইউনাইটেডে যেতে চান ওবলাক?

    অ্যাটলেটিকো মাদ্রিদের ফুটবলারদের যেন ক্লাব ছাড়রা হিড়িক পড়েছে। ডিয়েগো গোডিন, আঁতোয়া গ্রিযমানরা দল ছাড়ার ঘোষণা দিয়েছেন আগেই, ক্লাব ছাড়তে পারেন রদ্রিও। এই তালিকায় এবার নাম লেখাতে পারেন স্লোভেনিয়ান গোলরক্ষক ইয়ান ওবলাক। ডি গেয়া ক্লাব ছাড়লে ইউনাইটেডে যোগ দিতে চান তিনি।

    ইউনাইটেড অবশ্য এখনও ওবলাকের জন্য অ্যাটলেটিকোকে প্রস্তাব জানায়নি। পুরোটাই অবশ্য নির্ভর করছে ডি গেয়ার ক্লাব ছাড়া বা থাকা নিয়ে।

    আবারও চেলসিতে ফিরছেন মরিনহো?

    মরিজিও সারি যোগ দিচ্ছেন জুভেন্টাসে। চেলসির পরবর্তী ম্যানেজার হিসেবে ফ্র্যাঙ্ক ল্যাম্পার্ডের নামটাই শোনা যাচ্ছিল সবচেয়ে জোরেশোরে। কিন্তু দ্য গার্ডিয়ান জানিয়েছে, তৃতীয়বারের মত ম্যানেজার হিসেবে হোসে মরিনহোকে ফেরত আনতে চায় চেলসি।

    গত মৌসুমের মাঝামাঝি সময়ে ইউনাইটেডের ম্যানেজারের পদ থেকে বরখাস্ত হয়েছিলেন মরিনহো। এরপর থেকে বিইন স্পোর্টসে ফুটবল বিশ্লেষক হিসেবেই আছেন তিনি। তবে সারির ক্লাব ছাড়লে ল্যাম্পার্ডের চেয়ে মরিনহোতেই আস্থা রাখবে চেলসি, জানিয়েছে গার্ডিয়ান। আগামী দুই দলবদলে কাউকে দলে নিতে পারবে না চেলসি। সেজন্যই হয়তো অনভিজ্ঞ ল্যাম্পার্ড নয়, পরীক্ষিত মরিনহোকেই দেখা যেতে স্ট্যাম্ফোর্ড ব্রিজের ডাগআউটে।