• ওয়েস্ট ইন্ডিজ-ভারত সিরিজ
  • " />

     

    • ওয়েস্ট ইন্ডিজ-ভারত সিরিজ

    এখনই ভারতের কোচ হতে চান না সৌরভ, তবে...

    এই ওয়েস্ট ইন্ডিজ সিরিজ শেষেই মেয়াদ শেষ হয়ে যাচ্ছে রবি শাস্ত্রীর। এর মধ্যে ভারতের কোচের ফাঁকা পদের জন্য বিজ্ঞাপন দিয়েছে বিসিসিআই, সেখানে দুই হাজারের বেশি আবেদন জমাও পড়েছে। সৌরভ গাঙ্গুলীর কাছেও জানতে চাওয়া হয়েছিল, ভারতের কোচ হওয়ার ইচ্ছা আছে কি না। এই মুহূর্তে সেই সম্ভাবনা বাতিল করে দিলেও ভবিষ্যতের জন্য নিজের ইচ্ছাটা জানিয়ে রেখেছেন কলকাতার যুবরাজ।

    এখন পর্যন্ত ক্রিকেট প্রশাসক থেকে আইপিএলে কোচিং সহ আরও নানা ভূমিকায় জড়িত থাকলেও পুরোপুরি কোচিং ক্যারিয়ারে মন দেননি সৌরভ। এই মুহূর্তে সেটি সম্ভব নয় বলেও জানিয়ে দিলেন, ‘এই মুহূর্তে আমি বেশ কিছু কাজে ব্যস্ত- আইপিএল, সিএবি ( ক্রিকেট অ্যাসোসিয়েশন অব বেঙ্গল, যেখানে সৌরভ সভাপতি হিসেবে কাজ করছেন), টিভ ধারাভাষ্য- অনেক কিছু নিয়ে ব্যস্ত। আগে এসবের কাজ শেষ হোক। তবে আমি অবশ্যই কোনো না কোনো পর্যায়ে এই কাজটা (ভারতের কোচিং) করতে চাই। অবশ্যই যদি আমি নির্বাচিত হই আর কী। এই মুহূর্তে অবশ্যই নয়, ভবিষ্যতের কথা বললাম।’

     

    সৌরভ নিজেও বিসিসিআইয়ের আদি সিএসিএর সদস্য ছিলেন। সেখানে শচীন টেন্ডুলকার ও ভিভিএস লক্ষ্মণও ছিলেন তার সঙ্গে। সেখান থেকে অবশ্য পরে সরে এসেছেন।  এখনকার কোচ নির্বাচনের যে কমিটি, সেখানে নির্বাচক হিসেবে আছেন কপিল দেব, অংশুমান গায়কোয়াড় এবং শান্থা রঙ্গস্বামী।

     এখন র্যন্ত দুই হাজার লোক আবেদন করলেও সেখানে তেমন কোনো হেভিওয়েট নাম বলেই জানাচ্ছেন সৌরভ, ‘আমি তো কোনো হেভিওয়েট নাম দেখলাম না। মাহেলা (জয়াবর্ধনে) আবেদন করবে শুনেছিলাম কিন্তু শেষ পর্যন্ত সেও করেনি। শেষ পর্যন্ত আমি জানি না প্যানেল কী সিদ্ধান্ত নেবে।’

    কিন্তু শাস্ত্রী কি কোচ হিসেবে সফল না ব্যররথ, এই প্রশ্ন উঠেছিল সৌরভের কাছে। সেটা এড়িয়ে গিয়ে বলেছেন, এই মূল্যায়ন করার মতো জায়গায় তিনি নেই।  বিরাট কোহলিকেও কাল সংবাদ সম্মেলনে জিজ্ঞেস করা হয়েছিল কোচ হিসেবে শাস্ত্রী সফল কি না। কোহলি বলেছেন কোচ নির্বাচন কমিটি এখন পর্যন্ত তার কাছ থেকে এ ব্যাপারে কিছু জানতে চাওয়া হয়নি।

    ১৪ ও ১৫ আগস্ট নতুন কোচ নেওয়ার জন্য সাক্ষাৎকার নেওয়ার কথা।