• ফ্রেঞ্চ লিগ ওয়ান
  • " />

     

    সতীর্থের ঘড়ি চুরি করে দল থেকে বহিষ্কার

    ফরাসি ক্লাব নিসের ক্যাসপার ডলবার্গের দামি ঘড়িটা হারিয়ে গিয়েছিল। অনেক খুঁজেও সেটা পাচ্ছিলেন না তিনি। কিছুদিন পর জানতে পারলেন, চুরিটা করেছেন তারই সতীর্থ লামিন দিয়াবি ফাদিগা! সতীর্থের ঘড়ি চুরির অভিযোগটি শেষ পর্যন্ত নিজেই স্বীকার করে নিয়েছেন নিস স্ট্রাইকার ফাদিগা। এই অপরাধে তাকে দল থেকে বহিষ্কার করেছে নিস। 

    গত আগস্টেই নিসের সাথে যোগ দিয়েছিলেন ২১ বছর বয়সী ক্যাসপার। ১৬ সেপ্টেম্বর ড্রেসিংরুম থেকে তার ৬২ হাজার পাউন্ডের একটি ঘড়ি হারিয়ে যায়। এই ব্যাপারে তিনি পুলিশের কাছে অভিযোগও করেছিলেন। পুলিশের তদন্তের সময় জানা যায়, ১৮ বছর বয়সী ফাদিগাই আসলে চুরিটা করেছিলেন।  

    ঘড়ি চুরিতেই শেষ ফাদিগার নিস অধ্যায়

     

    পরবর্তীতে ফাদিগা অবশ্য চুরির জন্য ক্যাসপারের কাছে ক্ষমা চান। সেটাতেও খুব বেশি লাভ হয়নি, তাকে দল থেকে বহিষ্কার করা হয়েছে। এক অফিশিয়াল বিবৃতিতে এই খবরটি নিশ্চিত করে নিস, ‘নিস ও ফাদিগার পথ আজ থেকে আলাদা হয়ে যাচ্ছে। ক্যাসপারের ঘড়ি চুরির ওই ঘটনার পর ফাদিগার সাথে চুক্তি বাতিল করছে নিস। এই ঘটনা নিঃসন্দেহে নিন্দনীয়। নিস কখনোই এরকম কিছু সহ্য করবে না নিজেদের ক্লাবে।’ 

    ফাদিগা নিসের যুব দল থেকেই উঠে এসেছিলেন। ২০১৭ সালে প্রথমবার পেশাদার দলের হয়ে খেলা শুরু করেন তিনি। ফাদিগা খেলেছেন ফ্রান্সের অনূর্ধ্ব-১৮ জাতীয় দলের হয়েও।