• ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগ
  • " />

     

    মরিনহোতে বদলালো টটেনহামের ভাগ্য, এমিরেটসে এমেরির পুরনো গল্প

    লিগে টটেনাহাম ধুঁকছিল, আরও বেশি ধুঁকছিল অ্যাওয়ে ম্যাচগুলোতে। শেষ ১২ ম্যাচে জয় ছিল না তাদের, ড্র ছিল তিনটি, বাকি সব হার। টটেনহাম হটস্পার আর হোসে মরিনহোর নতুন অধ্যায় শুরু হলো অ্যাওয়ে ম্যাচের অস্বস্তি কাটিয়ে। মরিনহোর অধীনে প্রথম ম্যাচে ওয়েস্টহামকে ৩-২ গোলে হারিয়েছে টটেনহাম। নর্থ লন্ডনের অন্য পাশের গল্পটা অবশ্য বদলায়নি। আর্সেনালের জয়ের অপেক্ষা বাড়ছে আরও। ঘরের মাঠে সাউদাম্পটনের সঙ্গে ২-২ এ ড্র করেছে উনাই এমেরির আর্সেনাল।

    লন্ডন স্টেডিয়ামে জয়ের পরও অবশ্য হোসে মরিনহো কোনো কৃতিত্ব নিতে চাননি। বলেছেন, "কেউ যদি বলে আমি এই জয়ের বড় প্রভাব ফেলেছি তাহলে তাকে আমি ঘৃণা করি। এটা আমার ব্যাপার নয়, খেলোয়াড়েরা ভালো করেছে।" বিনয়ী মরিনহো চমকই দেখিয়েছেন এই মন্তব্য করে। ম্যাচের মাঝামাঝি সময়ে ম্যাচটা নিজেদের করে নিয়েছিল টটেনহাম। ৩৬ মিনিটে হিউং মিন সন এগিয়ে নিয়েছিলেন দলকে। এর পর একাদশে নামা লুকাস মউরা বিরতির আগেই আরও একবার ব্যবধান দ্বিগুণ করেন।


    বিরতির পর তৃতীয় মিনিটে হ্যারি কেইন গোল করে ব্যবধান করেন ৩-০। ওই গোলে দারুণ এক রেকর্ডও গড়ে ফেলেছেন টটেনহাম অধিনায়ক। ক্লাবের ইতিহাসের তৃতীয় সর্বোচ্চ গোলদাতা এখন তিনি। ১৭৫ গোল কেইনের, সামনে  আছেন জিমি গ্রিভস (২৬৬) ও ববি স্মিথ (২০৮)।

    ওয়েস্টহাম অবশ্য ৭৩ মিনিট ও যোগ করা সময়ে দুই গোল শোধ করে স্কোরলাইনের শ্রী ফিরিয়েছে। তবে ম্যাচে তারা টটেনহামের সামনে দাঁড়াতেই পারেনি। এক জয়ে টটেনহাম উঠে গেছে পয়েন্ট টেবিলের নয়ে। আর শেষ সাত ম্যাচ থেকে মাত্র দুই পয়েন্ট পাওয়া ম্যানুয়েল পেলেগ্রিনি হারের পর নতুন করে পড়ে গেছেন চাপে।

    চাপের কথা বললে অবশ্য এই মুহুর্তে উনাই এমেরির চেয়ে বড় ঝামেলায় নেই আর কেউ। ২০১১ সালের পর এই প্রথম আর্সেনাল টানা পাঁচ ম্যাচ পার করে দিয়েছে জয় ছাড়া। অথচ এবার প্রতিপক্ষ ছিল পয়েন্ট টেবিলের ১৯ নম্বরে থাকা দল সাউদাম্পটন, তাও ঘরের মাঠে। জয় তো দূরে থাক, আরেকটু হলেই হেরে বসত আর্সেনাল। যোগ করা সময়ে গোল করে দলের হার এড়িয়েছেন অ্যালেক্সান্ডার লাকাজেত। এমিরেটসএ শুরুতেই ড্যানি ইংসের গোলে পিছিয়ে পড়েছিল আর্সেনাল। এরপর ১৮ মিনিটে লাকাজেতই গোল করে স্কোরলাইন করেছিলেন ১-১।

    ৭১ মিনিটে এর পর পেনাল্টি পেয়ে যায় সাউদাম্পটন। প্রথম দফায় জেমস প্রসের শট ঠেকিয়ে দিয়েও পরের বার আর তাকে ঠেকাতে পারেননি বানর্ড লেনো। ১৩ ম্যাচে ১৮ পয়েন্ট নিয়ে আর্সেনাল এখন নেমে গেছে সাতে।

    প্রিয় প্যাভিলিয়ন পাঠক, 

    কোভিড-১৯ মহামারি বিশ্বের আরও অনেক কিছুর মতো অর্থনৈতিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত করেছে ক্রীড়াঙ্গনকে। পরিবর্তিত এই পরিস্থিতিতে নতুন এক সংকটের মুখোমুখি হয়েছি আমরাও। প্যাভিলিয়নের নিয়মিত পাঠক এবং শুভানুধ্যায়ী হিসেবে আপনাদের কাছে অনুরোধ থাকবে আমাদের পাশে এসে দাঁড়ানোর। আপনার ছোট বা বড় যেকোনো রকম আর্থিক অনুদান আমাদের এই কঠিন সময়ে মূল্যবান অবদান রাখবে।

    ধন্যবাদান্তে,
    প্যাভিলিয়ন