• ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগ
  • " />

     

    হেসুসের জোড়া গোলে বার্নলির মাঠে সিটির বড় জয়

    ফুল-টাইম

    প্রিমিয়ার লিগ

    বার্নলি ১-৪ ম্যানচেস্টার সিটি


    নিজেদের শেষ ৫ ম্যাচের মাত্র ১টিতে জয়ের দেখা পেয়েছিল ম্যানচেস্টার সিটি। এই মৌসুমে প্রিমিয়ার লিগ টেবিলের তিন-এ নেমে গিয়েছিল তারা। লিভারপুলের চেয়ে ১১ পয়েন্ট পিছিয়ে পড়ে সিটিজেনদের সামনে বার্নলির মাঠে জয়ের বিকল্প ছিল না একদমই। সার্জিও আগুয়েরোর ইনজুরিতে মূল একাদশে সুযোগ পেয়েই সিটিকে জয় এনে দিলেন গ্যাব্রিয়েল হেসুস। ব্রাজিলিয়ান স্ট্রাইকারের জোড়া গোলে বার্নলিকে ৪-১ গোলে হারিয়েছে সিটি, ‘অল রেড’দের চেয়ে ১ ম্যাচ বেশি খেলে ৮ পয়েন্টে পিছিয়ে আছে গার্দিওলার দল।

    টার্ফ মুরে ম্যাচের শুরু থেকেই বার্নলিকে চেপে ধরেছিল সিটি। ৬ মিনিটেই বল জালে পাঠিয়েছিলেন হেসুস, কিন্তু অফসাইডে বাতিল হয় গোলটি। পজেশন ধরে রেখে ‘ট্রেডমার্ক’ গার্দিওলা ঘরানার ফুটবল খেলা সিটি লিড নিয়েছে প্রথমার্ধেই। আক্রমণে বের্নার্দো-হেসুস-স্টার্লিং ত্রিফলার গতির সামনে অসহায় মনে হয়েছে বার্নলিকে। ২৪ মিনিটে প্রতি-আক্রমণে ডেভিড সিলভার পাস থেকে বাঁ-প্রান্ত থেকে দুর্দান্ত এক বাঁকানো শটে গোল করেন হেসুস। ১১ ম্যাচ পর সিটির জার্সিতে গোলের দেখা পেলেন তিনি। প্রথমার্ধে গোলের আরও সুযোগ তৈরি করেছিল সিটি, কিন্তু ‘ক্ল্যারেট’ গোলরক্ষক নিক পোপ ছিলেন দুর্দান্ত ফর্মে।

     

     

    প্রথমার্ধে অন্তত তিনটি নিশ্চিত গোল ফিরিয়ে দিয়েছেন তিনি। তবে দ্বিতীয়ার্ধের শুরুতে সিটিকে ব্যবধান দ্বিগুণ করা থেকে বিরত রাখতে পারেননি পোপ নিজেও। ৫০ মিনিটে ডানপ্রান্ত থেকে বের্নার্দোর ভাসানো ক্রসে দুর্দান্ত এক ভলি করে ব্যবধান দ্বিগুণ করেন হেসুস। দুই গোলে পিছিয়ে পড়ার পর আর ম্যাচে ফেরার ইচ্ছাশক্তিটাও যেন হারিয়ে ফেলে বার্নলি। সুযোগটা কাজে লাগায় সিটি, ৬৮ মিনিটে দুর্দান্ত এক আগুনে ভলিতে ব্যবধান ৩-০ করেন রদ্রি। শেষদিকে বদলি হিসেবে নেমে গোল পেয়েছেন রিয়াদ মাহরেজও, প্রিমিয়ার লিগে গোলের ‘হাফসেঞ্চুরি’ও পূরণ করেছেন এই ম্যাচ দিয়ে। ৮৯ মিনিটে শন ডাইশের দলের হয়ে সান্তনাসূচক গোল করেছেন রবি ব্র্যাডি।

    লেস্টার সিটির চেয়ে এক ম্যাচে বেশি খেলে ‘ফক্স’দের সমান ৩২ পয়েন্ট গার্দিওলার দল। ওয়াটফোর্ডের কাছে নিজেদের মাঠে হার এড়ালেই দুইয়ে ফিরবে ব্রেন্ডন রজার্সের দল। নিজেদের মাঠে মৌসুমের ৪র্থ হারের পর ১১-তে নেমে গেছে বার্নলি।

    প্রিয় প্যাভিলিয়ন পাঠক, 

    কোভিড-১৯ মহামারি বিশ্বের আরও অনেক কিছুর মতো অর্থনৈতিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত করেছে ক্রীড়াঙ্গনকে। পরিবর্তিত এই পরিস্থিতিতে নতুন এক সংকটের মুখোমুখি হয়েছি আমরাও। প্যাভিলিয়নের নিয়মিত পাঠক এবং শুভানুধ্যায়ী হিসেবে আপনাদের কাছে অনুরোধ থাকবে আমাদের পাশে এসে দাঁড়ানোর। আপনার ছোট বা বড় যেকোনো রকম আর্থিক অনুদান আমাদের এই কঠিন সময়ে মূল্যবান অবদান রাখবে।

    ধন্যবাদান্তে,
    প্যাভিলিয়ন