• লা লিগা
  • " />

     

    আরও এক ব্রাজিলিয়ান তরুণকে দলে ভেড়াল রিয়াল মাদ্রিদ

    ২০১৭ সালে ভিনিসিয়াস জুনিয়র, ২০১৮-তে রদ্রিগো গোজ। ব্রাজিলিয়ান লিগের সবচেয়ে প্রতিভাধর দুই ফুটবলারকে দলে ভিড়িয়েছিল রিয়াল মাদ্রিদ। সেই ধারাবাহিকতায় আরও এক তরুণ ব্রাজিলিয়ানকে এবার দলে আনল জিনেদিন জিদানের দল। ৩৫ মিলিয়ন ইউরোর বিনিময়ে ফ্লামেঙ্গো মিডফিল্ডার রেইনিয়ের হেসুস কারভালহোকে দলে নিয়েছে তারা। ২০ জানুয়ারি এক আনুষ্ঠানিক বিবৃতিতে ব্যাপারটি নিশ্চিত করেছে রিয়াল, ২০২৬ পর্যন্ত তার সাথে চুক্তি করেছে স্প্যানিশ ক্লাবটি।

    গত বছর থেকেই রেইনিয়েরকে দলে ভেড়ানো নিয়ে কানাঘুষা চলছিল রিয়ালের। শেষ পর্যন্ত এবারের শীতকালীন দলবদলে জিদানের দলের প্রথম সাইনিং হলেন তিনি। ফ্লামেঙ্গোতে অ্যাটাকিং মিডফিল্ডার হিসেবে খেললেও ডিপ লাইং ডিফেন্সিভ মিডফিল্ডার হিসেবেও সমান পারদর্শী রেইনিয়ের, ব্রাজিলের অনূর্ধ্ব-১৭ দলে এই রোলে খেলেছেন তিনি। রিয়ালের মাঝমাঠে একাধিক বিশ্বমানের ফুটবলার থাকলেও কাসেমিরোর সরাসরি আন্ডারস্টাডি হিসেবে নেই কেউ। সেই শূন্যস্থান পূরণ করতেই রেইনিয়েরকে দলে ভিড়িয়েছে রিয়াল, জানিয়েছে মার্কা।

     

     

    মাত্র ১৫ বছর বয়সে ২০১৭ সালে ফ্লামেঙ্গোর যুবদলে অভিষেক হয়েছিল রেইনিয়েরের। গত বছর মূল দলের হয়ে প্রথমবারের মত খেলেছিলেন তিনি। ২০১৯-এ ফ্লামেঙ্গোর হয়ে ব্রাজিলিয়ান লিগ এবং কোপা লিবার্তোদোরেস জিতেছিলেন রেইনিয়ের। ২০১৭ সালে ব্রাজিলের অনূর্ধ্ব-১৫ দলের হয়ে কোপা আমেরিকাও খেলেছিলেন তিনি। ইকুয়েডর, ভেনিজুয়েলার বিপক্ষে দুই ম্যাচেই গোল পেয়েছিলেন রেইনিয়ের। গত বছর পেরুতে অনূর্ধ্ব-১৯ কোপা আমেরিকায় ব্রাজিলের অধিনায়ক ছিলেন তিনি। গ্রুপপর্বের ৪ ম্যাচে ৩ গোল করেছিলেন রেইনিয়ের।

    ২০১৯-এ ফ্লামেঙ্গোর সাথে ২০২৪ সাল পর্যন্ত চুক্তি নবায়ন করেছিলেন ব্রাজিলিয়ান মিডফিল্ডার। রিলিজ ক্লজ অনুযায়ী ৩৫ মিলিয়ন ইউরো দিয়েই তাকে দলে নিল রিয়াল। রেইনিয়েরকে দলে নেওয়ার ঘোষণা অবশ্য আরও আগেই দিতে পারত রিয়াল, কিন্তু ১৯ জানুয়ারি তার ১৮তম জন্মদিনের জন্যই অপেক্ষা করছিল তারা। এখন আর তাকে নিয়ে ওয়ার্ক পারমিট সংক্রান্ত কোনো জটিলতার মুখোমুখি হতে হবে না রিয়ালকে। খেলায় সাদৃশ্যের কারণে 'নতুন কাকা' খেতাবও পেয়েছেন রেইনিয়ের। ব্রাজিলের বয়সভিত্তিক দলে দুর্দান্ত ধারাবাহিকতা দেখানো রেইনিয়ের এবার ব্রাজিলের অলিম্পিক স্কোয়াডেও থাকার সম্ভাবনা প্রবল।