• লা লিগা
  • " />
    X
    GO11IPL2020

     

    মেসি-রোনালদোরা এখন যে লিগে খেলতে পারেন...

    করোনা ভাইরাসের কারণে বিশ্ব ফুটবল এখন থমকে আছে। প্রিমিয়ার লিগ, লা লিগা থেকে নিয়ে চ্যাম্পিয়নস লিগ; ফুটবলের সব টুর্নামেন্টই এখন বন্ধ। ফুটবলারদেরও তাই অলস সময় কাটছে ‘লকডাউন’-এর ফলে ঘরের চার দেওয়ালের মাঝে। তবে এমন অবস্থায় মেসি-রোনালদোদের বুট পায়ে মাঠে নেমে পড়ার পরামর্শ দিলেন সাবেক বার্সা তারকা অ্যালেক্সান্ডার হ্লেব, সেটিও আবার তার দেশ বেলারুশের প্রিমিয়ার লিগে। 

    ইউরোপের সর্বত্র ফুটবল বন্ধ থাকলেও গত বৃহস্পতিবার থেকে শুরু হয়েছে বেলারুশের লিগ, মাঠে দর্শক উপস্থিতিও বেশ। তাই মজার ছলেই মেসি-রোনালদোদের বেলারুশে এসে খেলার আমন্ত্রণ জানিয়েছেন হ্লেব। ব্রিটিশ দৈনিক ‘দ্য সান’-এর সঙ্গে এক সাক্ষাৎকারে হ্লেব এই প্রস্তাব করেন, “পুরো বিশ্ব এখন বেলারুশের লিগ দেখছে। সবার এখন টিভি সেট খুলে আমাদের লিগ দেখা উচিৎ। আমেরিকায় এনএইচএল বন্ধ হওয়ার পর অনেক আইস হকি খেলোয়াড় রাশিয়ায় গিয়ে খেলছে। সেভাবেই মেসি-রোনালদোরাও বেলারুশে এসে খেলতে পারে। বেলারুশের লোকজন অবশ্যই এতে অনেক আনন্দিত হবে।”

    বিশ্বজুড়ে করোনা ভাইরাস রীতিমত তাণ্ডব চালাচ্ছে। আল জাজিরার তথ্যমতে, ২৫ মার্চ পর্যন্ত বিশ্বে প্রায় ৪ লাখ ৩০ হাজারেরও বেশি মানুষ এই ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছে, প্রাণ হারিয়েছেন প্রায় ১৯ হাজার মানুষ। তবে বেলারুশে এই ভাইরাসের প্রকোপ ইউরোপের অন্যান্য দেশগুলোর তুলনায় এখনও বেশ কম। দেশটিতে এখন পর্যন্ত ৮১ জন এই ভাইরাসে আক্রান্ত হলেও প্রাণ হারাতে হয়নি কাউকে।

    বেলারুশে লিগ চালানো নিয়ে হ্লেব অবশ্য সরকারি সিদ্ধান্তের দিকে তাকিয়ে আছেন, “করোনার কারণে চ্যাম্পিয়নস লিগ, ইউরোপা লিগ বন্ধ করেছে ইউয়েফা। আমি মনে করি, ইউয়েফা সঠিক কাজটাই করেছে। বেলারুশেও হয়ত এক-দুই সপ্তাহ পর খেলা বন্ধ হয়ে যেতে পারে। আমাদের প্রেসিডেন্ট ভাইরাসের বিষয়টি পর্যবেক্ষণ করছেন। এখানে সবাই ইতালি এবং স্পেনের বর্তমান অবস্থা সম্পর্কে জানে।” 

     

     

    প্রিয় প্যাভিলিয়ন পাঠক, 

    কোভিড-১৯ মহামারি বিশ্বের আরও অনেক কিছুর মতো অর্থনৈতিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত করেছে ক্রীড়াঙ্গনকে। পরিবর্তিত এই পরিস্থিতিতে নতুন এক সংকটের মুখোমুখি হয়েছি আমরাও। প্যাভিলিয়নের নিয়মিত পাঠক এবং শুভানুধ্যায়ী হিসেবে আপনাদের কাছে অনুরোধ থাকবে আমাদের পাশে এসে দাঁড়ানোর। আপনার ছোট বা বড় যেকোনো রকম আর্থিক অনুদান আমাদের এই কঠিন সময়ে মূল্যবান অবদান রাখবে।

    ধন্যবাদান্তে,
    প্যাভিলিয়ন