• অস্ট্রেলিয়ার ভারত সফর ২০২০
  • " />

     

    জুনে বাংলাদেশ সফরের সম্ভাবনা দেখছেন না টিম পেইন

    আপাতত জুন মাসে বাংলাদেশ সফরের কোনও সম্ভাবনা দেখছেন না অস্ট্রেলিয়ার টেস্ট অধিনায়ক টিম পেইন। করোনাভাইরাস মহামারিতে থমকে যাওয়া বিশ্বে নির্ধারিত সময়ে এ সিরিজ যে হবে না, সেটি অনুমান করতে ‘আইনস্টাইন হতে হয় না' বলেও মত তার। 

    দুই টেস্টের জন্য জুনে বাংলাদেশ আসার কথা ছিল অস্ট্রেলিয়ার, যে সিরিজ অন্তর্ভুক্ত ছিল আইসিসি ওয়ার্ল্ড টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের। এখন থেকে দুই মাসের বেশি সময় থাকলেও নির্ধারিত সময়ে এ সিরিজ নিয়ে আছে শঙ্কা, করোনাভাইরাস মহামারির কারণে বিশ্বের অনেক দেশই এখন পর্যন্ত আছে লকডাউনের ভেতর। 

    “এই পর্যায়ে আমার মনে হয় এই সিরিজের সম্ভাবনা কম, বিশেষ করে জুনে, আর এটা বুঝার জন্য আপনাকে আইনস্টাইন হতে হবে না। এটি বাতিল হবে না পিছিয়ে যাবে, সেটি এখনু আমরা নিশ্চিত নই। তবে এটি দুটি টেস্টের ব্যাপার, আর দিনশেষে যদি এ দুটি মিস করতে হয়, তাহলে তাই হবে।” 

    “আমার মনে হয় কিছু সিরিজ বাতিল হয়েছে, কোনটা সামনে হবে, বা কোনটা আমরা স্থগিত করব, সেসব দেখার জন্য আমাদের অপেক্ষা করতে হবে। আর টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপ পুরো করতে আমাদের হয়তো পাঁচ সপ্তাহের ক্রিকেট খেলতে হবে।” 

    টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপ তারা উপভোগ করছেন বলেই জানিয়েছেন তিনি, “আমার মনে হয় ক্রিকেটাররা এটা উপভোগ করছে, যে প্রতিটি টেস্টেরই কিছু না কিছু মূল্য আছে, একটা বড় কিছুর জন্য খেলছেন আপনি আসলে। সবাই এটি শেষ করতে চায়। তবে তেমন যদি না হয়, তাহলে অবশ্যই পৃথিবীতে এরে চেয়ে বড় ইস্যু আছে। কিছু টেস্ট ম্যাচে তেমন কিছু যায় আসবে না।” 

    এদিকে অনিশ্চিত ঘরোয়া গ্রীষ্মের কারণে এখন পর্যন্ত ক্রিকেটারদের সঙ্গে বার্ষিক চুক্তির তালিকা প্রকাশ করেনি ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়া। সম্ভাবনা আছে তাদের বেতন কাটা যাওয়ারও। তেমন হলেও আপত্তি করবেন না পেইনরা বৃহত্তর স্বার্থে। 

    “পরবর্তী সপ্তাহের মাঝেই আলোচনা শুরু হতে পারে। অবশ্যই দেরি হচ্ছে। অবশ্যই ফুটবল এবং অন্য খেলায় যা হয়েছে, তেমন হলে আমাদের দিক থেকে আমাদের অংশটুকু তো করতে হবে এ খেলাকে বাঁচিয়ে রাখতে, ঠিকঠাক রাখতে। 

    “যদি এমনই হয়, তাহলে অবশ্যই ক্রিকেটাররা ভেবে দেখবে। তবে আমরা কতো টাকা পাব,  এখানে এর চেয়ে বড় ইস্যু আছে পৃথিবীতে এই মুহুর্তে। আমাদের জন্য এটা তেমন ব্যাপার না।”