• ফ্রেঞ্চ লিগ ওয়ান
  • " />

     

    পিএসজির হারে লাল কার্ড দেখলেন নেইমার, রোনালদোর গোলের পরও ড্র করল জুভেন্টাস

    পিএসজির হারে লাল কার্ড দেখলেন নেইমার, রোনালদোর গোলের পরও ড্র করল জুভেন্টাস    

    এক দল লিগ জিতেছে টানা চার বছর। আরেক দল গত এক দশকে প্রতিবারই জিতেছে লিগ। কিন্তু এই মৌসুমে শিরোপা সম্ভাবনায় বড় একটা ধাক্কা খেল পিএসজি আর তুরিনোর সঙ্গে রোনালদোর গোলের পর ড্র করে আরও ফিকে হয়ে গেছে জুভেন্টাসের শিরোপা সম্ভাবনা।

    লিলের সঙ্গে পিএসজির ম্যাচটা ছিল দুই দলের জন্যই দারুণ গুরুত্বপুর্ণ। ফ্রেঞ্চ লিগে এক ও দুই নম্বরের লড়াই, যে জিতবে সে শিরোপা লড়াইয়ে এগিয়ে যাবে অনেকটা। গত ২১টি হোম ম্যাচে লিলের কাছে হারেনি পিএসজি, যদিও নিজেদের মাঠে হেরেছিল আগের দুইটি ম্যাচে। কিন্তু আজ হয়েছে হোমে হারের হ্যাটট্রিক। ২০ মিনিটে কানাডার জোনাথন ডেভিডের ডিফ্লেক্টেড শট গড়ে দিয়েছে ব্যবধান। 

    পিছিয়ে থাকার পর অবশ্য গোল শোধের চেষ্টা করেছিল পিএসজি। কিন্তু লাভ হয়নি। উল্টোদিকে শেষ দিকে প্রতিপক্ষ খেলোয়াড়কে ধাক্কা মেরে লাল কার্ড দেখেন নেইমার। ক্লাবের হয়ে এটি সর্বশেষ ১৪ ম্যাচে তার তৃতীয় লাল কার্ড। এই হারে ৬৩ পয়েন্ট নিয়ে পিএসজি আছে দুইয়ে, ৬৬ পয়েন্ট নিয়ে সবার ওপরে আছে লিল। 

    ওদিকে সিরি আ তে নাটকীয় ম্যাচে তুরিনোর সঙ্গে ২-২ গোলে ড্র করেছে জুভেন্টাস, সমতাসূচক গোল করে এক পয়েন্ট এনে দিয়েছেন ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো। ১৩ মিনিটে ফেদেরিকো কিয়েসার গোলে এগিয়ে গিয়েছিল জুভেন্টাসই। কিন্তু ২৭ মিনিটে আন্তোনিও সানাব্রিয়া গোল করে সময়াত ফেরান, খানিক পরে আবার গোল করে সানাব্রিয়া এগিয়ে দেন তুরিনোকে।

    দ্বিতীয়ার্ধে গোল শোধের জন্য মরিয়া হয়ে ওঠে জুভেন্টাস, কিন্তু কাজে লাগাতে পারছিল না সুযোগ। রোনালদো শেষ পর্যন্ত গোল করে সমতা ফেরান। যদিও প্রথমে অফসাইডে গোল বাতিল হয়েছিল, কিন্তু ভিএআরে বদলে যায় সিদ্ধান্ত। এরপর তুরিনোও দুই গোল দিতে পারত, কিন্তু দুবারই বাঁচিয়েছেন শেজনি। বেন্টাঙ্কারের শট পোস্টে লাগায় গোল পাওয়া হয়নি জুভেন্টাসেরও।

    এই ড্রয়ে ২৮ ম্যাচে ৫৬ পয়েন্ট নিয়ে শিরোপালড়াই থেকে একরকম ছিটকে পড়ল জুভেন্টাস, তারা আছে চারে। 

    প্রিয় প্যাভিলিয়ন পাঠক, 

    কোভিড-১৯ মহামারি বিশ্বের আরও অনেক কিছুর মতো অর্থনৈতিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত করেছে ক্রীড়াঙ্গনকে। পরিবর্তিত এই পরিস্থিতিতে নতুন এক সংকটের মুখোমুখি হয়েছি আমরাও। প্যাভিলিয়নের নিয়মিত পাঠক এবং শুভানুধ্যায়ী হিসেবে আপনাদের কাছে অনুরোধ থাকবে আমাদের পাশে এসে দাঁড়ানোর। আপনার ছোট বা বড় যেকোনো রকম আর্থিক অনুদান আমাদের এই কঠিন সময়ে মূল্যবান অবদান রাখবে।

    ধন্যবাদান্তে,
    প্যাভিলিয়ন