• লা লিগা
  • " />
    X
    GO11IPL2020

     

    'ইরানিয়ান মেসির' খ্যাতির বিড়ম্বনা

    প্রথম দর্শনে যে কেউ ‘ভ্যাবাচ্যাকা’ খেয়ে যাবেন। সেই মুখের গড়ন, সেই সোনালি দাড়ি; কে বলবে ইনি ‘মেসি’ নন? ইরানের হামাদেন শহরের রেজা পারাসতেসকে অবশ্য শেষ পর্যন্ত ‘খ্যাতির বিড়ম্বনাটা’ ভালোভাবেই অনুভব করতে হলো। হুবহু মেসির মতো চেহারা হওয়ায় তাঁর সাথে ছবি তোলার জন্য অতিরিক্ত মানুষের ভিড়ের কারণে স্থানীয় পুলিশ গতকাল তাঁকে থানায় নিয়ে যায়।

    ঘটনার সূত্রপাত কয়েকমাস আগেই। রেজার বাবা মেসির বার্সেলোনার জার্সি পরা ছেলের ছবি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে প্রকাশ করেন। মেসির চেহারার সাথে অনেকটাই মিলে যাওয়ায় রাতারাতি ‘বিখ্যাত’ হয়ে যান ২৫ বছর বয়সী রাজা। এরপর মেসির মতোই চুল ও দাড়ি রেখে নিজেকে মেসির ‘ডুপ্লিকেট’ বানিয়ে ফেলেন।

     

    কিছুদিনের মাঝেই ‘ইরানিয়ান মেসি’ হিসেবে পরিচিতি পেয়ে যান। যেখানেই যাচ্ছেন, সেখানেই উৎসুক জনতা তাঁকে ঘিরে ধরছে ছবি তোলার জন্য। বিশ্বের বড় বড় সংবাদমাধ্যমেও তাঁর ছবি প্রকাশিত হয়েছে। এসবে কিন্তু ভালোই মজা পাচ্ছেন রাজা, “এখন সবাই আমাকে ইরানিয়ান মেসি নামেই চেনে। সবাই বলে মেসির নকল করে দেখাতে! অনেকে তো বুঝেই উঠতে পারে না আমি আসলে কে! আমি সবার মাঝে এই আনন্দ ছড়িয়ে দিতে পেরে খুশি। মানুষের ভালোবাসাই আমাকে প্রেরণা যোগাচ্ছে।”

     


     

    তবে মানুষের অতি উৎসাহী আচরণ উপভোগ করলেও মাঝে সাঝেই সেটা নিয়ন্ত্রণ করা কঠিন হয়ে পড়েছে। ঠিক এমন ঘটনাই ঘটেছে গতকাল। তাঁর সাথে ছবি তোলার জন্য উৎসুক জনতার ভিড়ে শহরে মোটামুটি বড়সড় একটা যানজটের সৃষ্টি হয়েছিল। বিশৃঙ্খলা ঠেকাতে শেষ পর্যন্ত রেজাকে স্থানীয় পুলিশ স্টেশনে নিয়ে যাওয়া হয়।

    প্রিয় প্যাভিলিয়ন পাঠক, 

    কোভিড-১৯ মহামারি বিশ্বের আরও অনেক কিছুর মতো অর্থনৈতিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত করেছে ক্রীড়াঙ্গনকে। পরিবর্তিত এই পরিস্থিতিতে নতুন এক সংকটের মুখোমুখি হয়েছি আমরাও। প্যাভিলিয়নের নিয়মিত পাঠক এবং শুভানুধ্যায়ী হিসেবে আপনাদের কাছে অনুরোধ থাকবে আমাদের পাশে এসে দাঁড়ানোর। আপনার ছোট বা বড় যেকোনো রকম আর্থিক অনুদান আমাদের এই কঠিন সময়ে মূল্যবান অবদান রাখবে।

    ধন্যবাদান্তে,
    প্যাভিলিয়ন