• ফ্রেঞ্চ ওপেন
  • " />

     

    নাদালের 'পারফেক্ট টেন'

    একজন গ্র্যান্ডস্ল্যাম ফাইনালে কখনো হারেননি। অন্যজন রোঁলা গারোঁতে ফাইনালে উঠে কখনো হারেননি। দুজনের মধ্যে একজনের রেকর্ডের অবসান আজকে অবধারিত ছিল। কিন্তু টুর্নামেন্টটা ফ্রেঞ্চ ওপেন, আর প্রতিপক্ষ যখন রাফায়েল নাদাল, ট্রফি উঠবে আর কার হাতে? তাই ভেঙ্গে গেছে স্ট্যান ভাভ্রিঙ্কার সব প্রতিরোধ। ৩২ বছরের সুইসকে ৬-২, ৬-৩, ৬-১ সেটে রীতিমত উড়িয়ে দিয়ে আরাধ্য লা দেসিমা জিতে নিলেন ক্লে কোর্টের রাজা। পেশাদার যুগে এক গ্র্যান্ডস্ল্যাম এতবার জেতার নজির নেই আর কারো। 

    নিজের দশম ফাইনালে ওঠার পথে ৬ ম্যাচে মাত্র ২৯ গেম হেরেছিলেন নাদাল, জিতেছিলেন টানা ১৮ সেট। অন্যদিকে নিজের প্রথম পাঁচ ম্যাচে কোন সেট না হারলেও সেমিফাইনালে সাড়ে চার ঘণ্টা আর ৫ সেটের এক ধ্রুপদী লড়াই শেষে এক নম্বর তারকা ব্রিটেনের অ্যান্ডি মারেকে হারিয়েই ফাইনালে এসেছিলেন ভাভ্রিঙ্কা। ফিলিপ শাত্রিয়ার কোর্ট অপেক্ষায় ছিল তেমনি এক ধ্রুপদী ফাইনালের। কিন্তু রাফায়েল নাদাল সেই বারুদে জল ঢেলে দিয়েছেন বলতে গেলে। তাঁর সামনে দাঁড়াতেই পারেননি র‍্যাঙ্কিংয়ের ৩ নম্বর তারকা স্ট্যান ভাভ্রিঙ্কা।

    ম্যাচের শুরুটা বলছিল সেয়ানে-সেয়ানে লড়াই হবে। দুজনের প্রথম সার্ভেই ব্রেক পয়েন্ট পেয়েও কাজে লাগাতে পারেননি কেউই। তবে এরপরের গল্পটা শুধুই নাদালের। টানা দুটো ব্রেক আর নিজের সার্ভ ধরে রেখে প্রথম সেট জেতেন ৬-২ গেমে। পরের সেটের শুরুতেই সুইস তারকার সার্ভ ব্রেক করার পর কিছুটা ঘুরে দাঁড়ানোর চেষ্টা করেছিলেন ভাভ্রিঙ্কা। কিন্তু নাদালের দারুণ সব স্পিন শট, ফোরহ্যান্ড উইনার, ব্যাকহ্যান্ড ভলিতে দ্বিতীয় সেটও হারেন ৬-৩ গেমে। তৃতীয় সেটে একপেশে লড়াইয়ে পাত্তাই পাননি তিনি। । ৬-১ গেমে তৃতীয় সেট জিতে কোনো সেট না হেরেই দশম ফ্রেঞ্চ ওপেন শিরোপা দখল করেন স্প্যানিশ তারকা।

    গত মাসেই মন্টে কার্লো মাস্টার্স আর বার্সেলোনা ওপেনে প্রথম খেলোয়াড় হিসেবে গড়েছিলেন দশটি করে শিরোপা জয়ের রেকর্ড। এবার রোঁলা গারোঁতে দশম শিরোপা জিতে টেনিস ইতিহাসটা আরেকবার লিখলেন রাফায়েল নাদাল। পিট সাম্প্রাসকে পেছনে ফেলে নাদালের গ্র্যান্ডস্ল্যাম শিরোপা সংখ্যা এখন ১৫। উপরে কেবল রজার ফেদেরার আছেন ১৮টি গ্র্যান্ডস্ল্যাম নিয়ে।

    প্রিয় প্যাভিলিয়ন পাঠক, 

    কোভিড-১৯ মহামারি বিশ্বের আরও অনেক কিছুর মতো অর্থনৈতিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত করেছে ক্রীড়াঙ্গনকে। পরিবর্তিত এই পরিস্থিতিতে নতুন এক সংকটের মুখোমুখি হয়েছি আমরাও। প্যাভিলিয়নের নিয়মিত পাঠক এবং শুভানুধ্যায়ী হিসেবে আপনাদের কাছে অনুরোধ থাকবে আমাদের পাশে এসে দাঁড়ানোর। আপনার ছোট বা বড় যেকোনো রকম আর্থিক অনুদান আমাদের এই কঠিন সময়ে মূল্যবান অবদান রাখবে।

    ধন্যবাদান্তে,
    প্যাভিলিয়ন