• ভারত-অস্ট্রেলিয়া সিরিজ
  • " />
    X
    GO11IPL2020

     

    'ফিরিয়ে দেওয়া জয়ে' শীর্ষে ভারত

    ৫ম ওয়ানডে, নাগপুর
    অস্ট্রেলিয়া ২৪২/৯, ৫০ ওভার (ওয়ার্নার ৫৩, স্টোইনিস ৪৬, আক্সার ৩/৩৮)
    ভারত ২৪৩/৩, ৪২.৫ ওভার (রোহিত ১২৫, রাহানে ৬১, জ্যাম্পা ২/৫৯)
    ফল : ভারত ৭ উইকেটে জয়ী


    দুই দলের শেষ সিরিজের ফলাফলের ব্যবধানটাও ছিল একই, ৪-১। এবার শুধু ফলাফলের দুই প্রান্তের নাম দুইটা বদলে গেল, অস্ট্রেলিয়ার মাটিতে ১-৪ ব্যবধানে সিরিজ হারা ভারত নিজেদের মাটিতে জিতলো ওই ব্যবধানেই। পার্থক্য হলো, ভারত সেবার সান্ত্বনা পেয়েছিল শেষ ম্যাচ জিতে, অস্ট্রেলিয়া পেয়েছে শেষের আগেই। শেষ ম্যাচে সান্ত্বনা খোঁজার মতো কিছু নেই তাদের, রোহিত শর্মার সেঞ্চুরি ও আজিঙ্কা রাহানের ফিফটিতে ২৪৩ রানের লক্ষ্য প্রায় হেসেখেলেই পেরিয়ে গেছে ভারত। এ জয় দিয়ে টেস্টের মতো ওয়ানডেতেও আইসিসি র‍্যাংকিংয়ে এক নম্বরে উঠে এসেছে ভারত। 

    নাগপুরের ধীরগতির টার্নিং উইকেটে টসে জিতে ব্যাটিং নিয়েছিল অস্ট্রেলিয়া। শুরুটাও হয়েছিল ভালই, ১২তম ওভারে হারদিক পান্ডিয়া এনে দেন ভারতকে প্রথম ব্রেকথ্রু, আগের ম্যাচে ৯৪ রান করা অ্যারন ফিঞ্চকে ৩২ রানে ফিরিয়ে। স্টিভেন স্মিথ ১৬ রান করে ধরা দেন কেদার যাদবের এলবিডাব্লিউর ফাঁদে। খানিক বাদেই ফেরেন ওয়ার্নার, এবার ঘাতক আক্সার প্যাটেল। ওয়ার্নার-ফিঞ্চ-স্মিথ, অস্ট্রেলিয়ার টপ অর্ডার নেই, নেই যেন অস্ট্রেলিয়ার আশাও! 

    ট্রাভিস হেড ও মার্কাস স্টোইনিসে ৮৭ রানের জুটিও তাই অস্ট্রেলিয়াকে এগিয়ে নিতে পারলো না তেমন, ডেথ ওভারে গিয়ে উলটো দুজনই আউট হয়ে ব্যাটিংয়ের পরের গিয়ারটাও মিস করে ফেললেন। ভারতের তিন স্পিনার মিলে ৩০ ওভারে দিয়েছেন ১৩৪ রান, নিয়েছেন ৪ উইকেট। তিন পেসার মিলে করেছেন ২০ ওভার, ১০৫ রান দিয়ে নিয়েছেন ৪ উইকেট। 

    নাগপুরে এর আগের শেষ ওয়ানডেতে অস্ট্রেলিয়ার সঙ্গেই ভারত তাড়া করেছিল ৩৫১ রান, ২৪২ রানের পুঁজি অস্ট্রেলিয়াকে তাই আশা জোগাতে পারেনি। উলটো দুর্দান্ত ফর্মে থাকা ভারতের ওপেনিং জুটি আরেকবার ছুঁয়েছেন তিন অঙ্ক, এ নিয়ে টানা তিন ম্যাচে শতরানের জুটি গড়লেন রোহিত ও রাহানে। 

    টানা চতুর্থ ফিফটি করে এলবিডাব্লিউ রাহানে, ন্যাথান কোল্টার-নাইলের উল্লাসে বোধহয় উচ্ছ্বাসের চেয়েও বেশি কিছু স্বস্তি! সে স্বস্তি এরপর পাননি তিনি আর। অ্যাডাম জ্যাম্পার এক ওভারই যা একটু আনন্দের উপলক্ষ্য এনেছে অস্ট্রেলিয়ার জন্য, যে ওভারে ফিরেছেন ৩৯ রান করা বিরাট কোহলি, আর ক্যারিয়ারের ১৪তম শতক পাওয়া রোহিত শর্মা। 

    শর্মার সেঞ্চুরিটা সিরিজে কোনো ভারতীয় ব্যাটসম্যানের প্রথম শতক, কিন্তু সিরিজে ব্যাটিং-বোলিংয়ের সম্মিলিত পারফরম্যান্সে তো ভারত অস্ট্রেলিয়ার চেয়ে এগিয়ে ছিল বিস্তর ব্যবধানে! 


     

    প্রিয় প্যাভিলিয়ন পাঠক, 

    কোভিড-১৯ মহামারি বিশ্বের আরও অনেক কিছুর মতো অর্থনৈতিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত করেছে ক্রীড়াঙ্গনকে। পরিবর্তিত এই পরিস্থিতিতে নতুন এক সংকটের মুখোমুখি হয়েছি আমরাও। প্যাভিলিয়নের নিয়মিত পাঠক এবং শুভানুধ্যায়ী হিসেবে আপনাদের কাছে অনুরোধ থাকবে আমাদের পাশে এসে দাঁড়ানোর। আপনার ছোট বা বড় যেকোনো রকম আর্থিক অনুদান আমাদের এই কঠিন সময়ে মূল্যবান অবদান রাখবে।

    ধন্যবাদান্তে,
    প্যাভিলিয়ন