• ফ্রেঞ্চ লিগ ওয়ান
  • " />
    X
    GO11IPL2020

     

    কাভানি-এমবাপ্পের জোড়া গোলে পিএসজির বড় জয়

     

    আগের ম্যাচেও নেইমারের অভাবটা বুঝতে দেননি। নিষেধাজ্ঞা উঠে গেলেও ইনজুরির কারণে এই ম্যাচেও ছিলেন না নেইমার। গত ম্যাচের মতো এবারো পিএসজির জয়ের নায়ক সেই এডিসন কাভানিই। কিলিয়ন এমবাপ্পে ও কাভানির জোড়া গোলেই ফ্রেঞ্চ লিগে অ্যাঁজাকে ৫-০ ব্যবধানে বিধ্বস্ত করেছে পিএসজি।

     

    থাইয়ের ইনজুরির কারণে কাল মাঠে নামেননি নেইমার, ছিলেন না ডি মারিয়াও। ম্যাচের ৫ মিনিটেই দলকে এগিয়ে দেন এমবাপ্পে। দানি আলভেসের ক্রসে বল জালে জড়ান তিনি। ১৪ মিনিটে ব্যবধান দ্বিগুণ করেন জুলিয়ান ড্রাক্সলার। এই গোলেও অবদান রেখেছেন আলভেস, তাঁর থ্রু বল দারুণভাবে সামলে গোল করতে ভুল করেননি ড্রাক্সলার।

     

     

     

    ১৮ মিনিটে সমতা ফেরানোর সুযোগ পেয়েছিল অ্যাঁজা। গিলেস সুনুর শট পোস্টের একটু বাইরে দিয়ে চলে যায়। ৩০ মিনিটে আবারো গোলের দেখা পায় উনাই এমেরির দল। পাল্টা আক্রমণে এমবাপ্পের দারুণ এক ব্যাকহিলে বল পান কাভানি। গোলকিপারকে বোকা বানাতে বেগ পেতে হয়নি। এই গোলের মাধ্যমে পিএসজির হয়ে ফ্রেঞ্চ লিগে ১০০ তম গোলের দেখা পেলেন এই উরুগুয়ে ফরোয়ার্ড। ইব্রাহিমভিচের পর দ্বিতীয় পিএসজি ফুটবলার হিসেবে এই মাইলফলক ছুঁলেন। এই মৌসুমে লিগে ১১ ম্যাচে কাভানির গোলসংখ্যা দাঁড়াল ১৩। 

     

    দ্বিতীয়ার্ধের শুরুতেই নিজের দ্বিতীয় গোল পেতে পারতেন কাভানি। ৪৯ মিনিটে তাঁর হেড গোলকিপার ঠেকিয়ে দেন। ৬০ মিনিটে আর কাভানিকে আটকে রাখতে পারেনেই অ্যাঁজা কিপার। ড্রাক্সলারের থ্রু বলে জোরালো শটে দ্বিতীয়বারের মতো বল জালে জড়ান। ৭৫ মিনিটে মার্কো ভেরাত্তির হেড অল্পের জন্য লক্ষ্যভ্রষ্ট হয়। ৭৯ মিনিটে এমবাপ্পের শট ঠেকিয়ে দেন মিচেল।

     

    ৮৪ মিনিটে এমবাপ্পের পায়ে আসে ম্যাচের পঞ্চম গোল। পাল্টা আক্রমণে বল পেয়ে এমবাপ্পেকে পাস দেন লুকাস মাউরো। সেই বল নিয়ন্ত্রণে নিয়ে ডি বক্সের ভেতর থেকে গোল করেন এমবাপ্পে। ম্যাচে আর গোল না হওয়ায় বড় জয় নিয়েই মাঠ ছাড়ে পিএসজি।

     

    এই জয়ে ১২ ম্যাচে ৩২ পয়েন্ট নিয়ে তালিকার শীর্ষস্থান ধরে রাখল পিএসজি।

     

    প্রিয় প্যাভিলিয়ন পাঠক, 

    কোভিড-১৯ মহামারি বিশ্বের আরও অনেক কিছুর মতো অর্থনৈতিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত করেছে ক্রীড়াঙ্গনকে। পরিবর্তিত এই পরিস্থিতিতে নতুন এক সংকটের মুখোমুখি হয়েছি আমরাও। প্যাভিলিয়নের নিয়মিত পাঠক এবং শুভানুধ্যায়ী হিসেবে আপনাদের কাছে অনুরোধ থাকবে আমাদের পাশে এসে দাঁড়ানোর। আপনার ছোট বা বড় যেকোনো রকম আর্থিক অনুদান আমাদের এই কঠিন সময়ে মূল্যবান অবদান রাখবে।

    ধন্যবাদান্তে,
    প্যাভিলিয়ন