• নিউজিল্যান্ড-ভারত ওয়ানডে সিরিজ
  • " />

     

    দ্রুত রান নেওয়ার জন্য 'বাটার চিকেন' খাওয়া ছেড়েছেন কোহলি!

     

    তাঁর ফিটনেস লেভেল যথেষ্টই ‘ঈর্ষনীয়’। বর্তমান ক্রিকেট বিশ্বের সবচেয়ে ‘ফিট’ ক্রিকেটারদের একজন মানা হয় বিরাট কোহলিকে। কিন্তু এই ফিটনেস তো এত সহজে ধরা দেয়নি। কোহলির শৈশবের কোচ রাজকুমার শর্মা জানিয়েছেন, দ্রুত রান নেওয়ার জন্য নাকি 'বাটার চিকেনের' মতো পছন্দের খাবার ত্যাগ করেছেন কোহলি।

     

     

     

    রাজকুমার বলছেন, ক্যারিয়ারের শুরু থেকেই নিজের ফিটনেসের দিকে অত্যন্ত মনযোগী ছিলেন কোহলি, “কোহলি একবার আমাকে এসে বলল, অধিনায়ক হিসেবে সে নিজে যদি অন্যদের অনুকরণীয় না হতে পারে, তাহলে আর কে হবে? সে অনেক বাটার চিকেন, রোল আর ফাস্ট ফুড খেত। কিন্তু ধীরে ধীরে সে নিজের খাদ্যাভ্যাসকে নিয়ন্ত্রণে এনেছে। তাঁর মেধার কোনো অভাব ছিল না। কিন্তু ফিটনেসের কিছু সমস্যা ছিল। খাদ্যাভ্যাসের পরিবর্তন তাকে আর দ্রুতগতির করেছে, সে অন্য ব্যাটসম্যানদের চেয়ে দ্রুত রান নিতে পারে।”

     

    খাদ্যাভ্যাসের ব্যাপারটা অন্য ক্রিকেটারদের চেয়ে বেশি মেনে চলেন কোহলি, জানালেন রাজকুমার, “নিজের ডায়েট নিয়ে কোহলি খুব বেশি ভাবে। আমার বাসায় এলে যদি তাকে জুস দেই, তাও সে জিজ্ঞাসা করবে সেটা তাজা ফলের জুস কিনা, কারণ সে তাজা ফল ছাড়া খায় না! আমরা সবাই জানি এরকম অভ্যাস গড়ে তোলা কতটা কষ্টের। এরকম ত্যাগ তো তাঁর চেয়ে অনেক বয়স্করাও করতে পারে না। কিন্তু এটার সুফল সে পাচ্ছে। সে চাইলেই সিঙ্গেল নিতে পারে, সিঙ্গেলকে ডাবলে পরিণত করতে পারে। শুধু চার-ছয়ের ওপর নির্ভর করে থাকতে হয় না। এটা তাঁর পারফরম্যান্সেও অনেক প্রভাব ফেলে।”

     

    প্রিয় প্যাভিলিয়ন পাঠক, 

    কোভিড-১৯ মহামারি বিশ্বের আরও অনেক কিছুর মতো অর্থনৈতিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত করেছে ক্রীড়াঙ্গনকে। পরিবর্তিত এই পরিস্থিতিতে নতুন এক সংকটের মুখোমুখি হয়েছি আমরাও। প্যাভিলিয়নের নিয়মিত পাঠক এবং শুভানুধ্যায়ী হিসেবে আপনাদের কাছে অনুরোধ থাকবে আমাদের পাশে এসে দাঁড়ানোর। আপনার ছোট বা বড় যেকোনো রকম আর্থিক অনুদান আমাদের এই কঠিন সময়ে মূল্যবান অবদান রাখবে।

    ধন্যবাদান্তে,
    প্যাভিলিয়ন