• অ্যাশেজ ২০১৭-১৮
  • " />

     

    'পেইনকে নিয়ে 'বিব্রত' অস্ট্রেলিয়া'

     

    অস্ট্রেলিয়ার অ্যাশেজ দল ঘোষণার পর থেকেই আছেন আলোচনার কেন্দ্রবিন্দুতে। সাত বছর পর অস্ট্রেলিয়ান উইকেটকিপার টিম পেইনের দলে সুযোগ পাওয়া নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন অনেকেই। শ্যেন ওয়ার্ন বলছেন, পেইনকে দলে নিয়ে কিছুটা হলেও ‘বিব্রত’ অস্ট্রেলিয়া।

     

    শেষবার সাদা জার্সি গায়ে মাঠে নেমেছেন ২০১০ সালের অক্টোবরে। এই মৌসুমে রাজ্যদল তাসমানিয়ার হয়ে কিপিংও করেননি পেইন। ইংল্যান্ডের সাথে প্রস্তুতি ম্যাচে ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়া একাদশের হয়ে দুই ইনিংস মিলিয়ে করেছেন ৫৭ রান, নিয়েছেন ৫ টি ক্যাচ।

     

     

     

    পেইনের অ্যাশেজ দলে সুযোগ পাওয়াটা একেবারেই ভালো চোখে দেখছেন না ওয়ার্ন, “অ্যাশেজের জন্য ইংল্যান্ড ভালোভাবেই এগোচ্ছে। অন্যদিকে অস্ট্রেলিয়াকে একটু হলেও এলোমেলো লাগছে সবকিছু মিলিয়ে। তাঁরা দলে এমন কিপার নিয়েছে যে কিনা নিজের রাজ্যের জন্যই কিপিং করে না! শেষ টেস্টও খেলছে প্রায় ৭ বছর আগে।”

     

    ওয়ার্ন মানছেন, সিরিজে লড়াইটা সমানে সমান হবে, “অনেকেই ভাবছেন ঘরের মাটিতে খেলা হওয়ায় অস্ট্রেলিয়া এগিয়ে থাকবে। কিন্তু লড়াইটা সমানে সমান হবে। দুই দলের বোলিংয়ের ওপরই নির্ভর করবে কে সিরিজ জিতবে। আমার মনে হয় অস্ট্রেলিয়ার দারুণ কিছু বোলার আছে, তাঁরা ভালো পারফর্মই করবে।”


    দল নির্বাচন নিয়ে ওয়ার্নের সাথে একমত নন আরেক সাবেক অধিনায়ক মার্ক টেলর, “আমার মনে হয় না পেইনকে দলে নিয়ে তাঁরা এলোমেলো অবস্থায় আছে। নির্বাচকরা কিছু একটা ভেবেই হয়ত এরকমটা করেছেন। ফর্মে থাকা ক্রিকেটারদের সুযোগ দেয়া হয়েছে।”

    প্রিয় প্যাভিলিয়ন পাঠক, 

    কোভিড-১৯ মহামারি বিশ্বের আরও অনেক কিছুর মতো অর্থনৈতিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত করেছে ক্রীড়াঙ্গনকে। পরিবর্তিত এই পরিস্থিতিতে নতুন এক সংকটের মুখোমুখি হয়েছি আমরাও। প্যাভিলিয়নের নিয়মিত পাঠক এবং শুভানুধ্যায়ী হিসেবে আপনাদের কাছে অনুরোধ থাকবে আমাদের পাশে এসে দাঁড়ানোর। আপনার ছোট বা বড় যেকোনো রকম আর্থিক অনুদান আমাদের এই কঠিন সময়ে মূল্যবান অবদান রাখবে।

    ধন্যবাদান্তে,
    প্যাভিলিয়ন