• বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগ
  • " />
    X
    GO11IPL2020

     

    'হাল ছেড়ে দেওয়ার মতো অধিনায়ক' নন স্যামি

    গতকাল জয়। আজ পরাজয়। রাজশাহীকে দেখে যখনই প্রত্যাবর্তনের গল্প ভাবছেন কেউ, তখনোই যেন গুলিয়ে যাচ্ছে সব। সব মিলিয়ে ছয় ম্যাচে দুই জয়। পয়েন্ট টেবিলে অবস্থান নিচের দিক থেকে তিন নম্বরে। রাজশাহী কিংস যেন আঁধারে হাতড়িয়ে বেড়াচ্ছে আলো। সে আঁধারটা আরেকটু গভীর হয়েছে ঢাকা ডায়নামাইটসের সঙ্গে ৬৮ রানের পরাজয়ে। মাঝের ওভারে ঢাকাকে চেপে ধরেও আলগা ফিল্ডিংয়ে আলগা হয়ে গেছে সব, আর ব্যাটিংয়ের অবস্থাও এক জাকির হাসান ছাড়া তথৈবচ। তবে ড্যারেন স্যামি এখনও দেখছেন আশার আলো। এখনও শেষ চারে পৌঁছানো সম্ভব বলেই মত কিংস অধিনায়কের। 

    ‘অধিনায়ক হিসেবে যারা কখনোই হাল ছেড়ে দেয় না, আমি তেমন। আমি আপনাদেরকে স্মরণ করিয়ে দিতে চাই, গত বছর মাঝামাঝি পর্যায়ে আমরা টেবিলের তলানিতে থাকলেও রানার্স-আপ হয়েছিলাম। এবারও তেমনই হতে পারে।’ 

    তবে এজন্য রাজশাহীকে করতে হবে দারুণ কিছুই। বদলাতে হবে মানসিকতা, কাজে লাগাতে হবে সুযোগ, ‘এজন্য দলীয় প্রচেষ্টা লাগবে, ইতিবাচক মানসিকতা লাগবে। সঠিক মনোভাব লাগবে। সবকিছুর পর, ক্রিকেট মাঠে পারফরম্যান্স দেখাতে হবে। এখন আমরা সব বিভাগেই ত্রুটিপূর্ণ ক্রিকেট খেলছি। খুব দ্রুত এটা বদলাতে না পারলে শেষ চারে যেতে পারবো না আমরা।’ 

     

     

    এমনিতেই চোটের আঘাত বেশ ভালভাবে লেগেছে রাজশাহীর গায়ে। অধিনায়ক নিজেও চোটের কারণে মাঝে খেলতে পারেননি, লুক রাইট ও লেন্ডল সিমন্সকে হারানোর পর আজ মাঠে নামতে হয়েছে আগের দিন ভাল বোলিং করা মোহাম্মদ সামি ও কেসরিক উইলিয়ামসকে ছাড়াই। তবে সবকিছুর পর স্যামি আঙ্গুল তুলছেন মাঠে করা ভুলগুলোকেই। 

     

    স্যামি অবশ্য মুগ্ধ জাকিরকে নিয়ে, ‘সে আমাদের জন্য অসাধারণ এক প্রাপ্তি। আমি তাকে অনুশীলনে দেখেছি। মাঠে সে যা করেছে, এতে তাই বিস্মিত হইনি আসলে। আসলে কারও হতাশাজনক পারফরম্যান্সই আপনাকে নতুন ক্রিকেটার এনে দেবে। আজ তো হোসেনও (আলি) মোটামুটি বোলিং করেছে।’ 

    সেই মোটামুটি ধরনটাকেই তো আরেকটু ওপরে তুলতে হবে রাজশাহীকে! 

    প্রিয় প্যাভিলিয়ন পাঠক, 

    কোভিড-১৯ মহামারি বিশ্বের আরও অনেক কিছুর মতো অর্থনৈতিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত করেছে ক্রীড়াঙ্গনকে। পরিবর্তিত এই পরিস্থিতিতে নতুন এক সংকটের মুখোমুখি হয়েছি আমরাও। প্যাভিলিয়নের নিয়মিত পাঠক এবং শুভানুধ্যায়ী হিসেবে আপনাদের কাছে অনুরোধ থাকবে আমাদের পাশে এসে দাঁড়ানোর। আপনার ছোট বা বড় যেকোনো রকম আর্থিক অনুদান আমাদের এই কঠিন সময়ে মূল্যবান অবদান রাখবে।

    ধন্যবাদান্তে,
    প্যাভিলিয়ন