• ক্রিকেট

তুষার-মোসাদ্দেকের সেঞ্চুরি

পোস্টটি ২৫৬৩২ বার পঠিত হয়েছে

বিসিএল, ইস্ট জোন- সাউথ জোন, বিকেএসপি  
টস-ইস্ট জোন (ব্যাটিং) 
৩য় দিনশেষে 
ইস্ট জোন ১ম ইনিংস ৫৪৬ (মুমিনুল ২৫৮, জাকির ১১৯,সোহাগ ৩৫, রাজ্জাক ৬/১৭৮, সাকলাইন ৩/৯৩)
সাউথ জোন ১ম ইনিংস ৩১৮/৫* (মোসাদ্দেক ১১০, শাহরিয়ার ২৯, তুষার ১০৫, সোহাগ ৩/৬৫, নাজমুল ১/৩৩, অলক ১/১৮) 


বিকেএসপির এই উইকেট ব্যাটিং সহায়ক, সেটা জানা গিয়েছিল আগেই। এর সঙ্গে আবার যুক্ত হয়েছে কুয়াশাজনিত আলোকস্বল্পতা। তৃতীয় দিনে খেলা হয়েছে ৪৮ ওভারে। সাউথ জোনের তুষার ইমরান ও মোসাদ্দেক হোসেন পেয়েছেন সেঞ্চুরি, দিনশেষে ইস্ট জোনের চেয়ে তারা পিছিয়ে ২২৮ রানে, ৫ উইকেটে। 

আগেরদিন মোসাদ্দেক অপরাজিত ছিলেন ৪২ রানে, তুষার ২২ রানে। আজ খেলা শুরু হতে হতে বেজেছে দুপুর ১.১৫। প্রথমে ফিফটি ছুঁয়েছেন মোসাদ্দেক, এরপর তুষার। চা-বিরতিতে যাওয়ার আগে অবশ্য মোসাদ্দেককে ছাড়িয়ে গেছেন তুষার, তিনি অপরাজিত ছিলেন ৯৩ রানে। মোসাদ্দেক তখন ৮৫ রানে দাঁড়িয়ে। বিরতি থেকে ফিরে সেঞ্চুরি করেছেন তুষার, ৫০ থেকে ১০০-তে যেতে তার লেগেছে ৪৪ বল। এই ৫০ রানের মধ্যে আবার চারই মেরেছেন ১০টি। ব্যাটিং কন্ডিশন দারুণ উপভোগই করেছেন অভিজ্ঞ এই ব্যাটসম্যান। ক্যারিয়ারের এটি ২৫তম প্রথম শ্রেণির সেঞ্চুরি তার। 

মোসাদ্দেকের ৮ম সেঞ্চুরি ছুঁতে লেগেছে ২০০ বল, ১০টি চারের সঙ্গে অবশ্য ছয় মেরেছেন ৪টি। তুষারের সঙ্গে তার ২১৮ রানের জুটি ভেঙ্গেছে অলক কাপালির বলে তুষার বোল্ড হওয়াতে। ১১ রান পর সোহাগ গাজির বলে নাজমুল অপুকে ক্যাচ দিয়েছেন মোসাদ্দেকও। 

আল-আমিন (১৭) এর সঙ্গে দিনশেষে অপরাজিত অধিনায়ক নুরুল হাসান, ১৩ রানে। গতকালই আব্দুর রাজ্জাক বলেছিলেন, এ ম্যাচে ড্র ছাড়া অন্য কিছু নেই। ম্যাচ এগুচ্ছে সে পথেই। 

ছবি-ফেসবুক