• ক্রিকেট

এশিয়া কাপে থাকছেন না সাকিব?

প্রশ্নটা ছিল সহজ, কখন অস্ত্রোপচারটা করাতে চান সাকিব আল হাসান? হাতের আঙুলের হাড়ের সঙ্গে হাড়ের ঘর্ষণের যে চোট, সেটা কাটিয়ে উঠতে হলে অস্ত্রোপচার ছাড়া উপায় নেই। তবে সেটা না করেই খেলছিলেন সাকিব, ফ্লোরিডায় শেষ টি-টোয়েন্টিতেও ইনজেকশন নিয়েই নেমেছিলেন।  অস্ত্রোপচার কখন করাতে হবে, সেই সিদ্ধান্ত অবশ্য পুরোপুরি তাঁর ওপর। আজ বিমানবন্দরে নামার পর সাকিব যে আভাস দিলেন, তাতে এশিয়া কাপের আগেই অস্ত্রোপচার হতে পারে। আর সেটা হলে এশিয়া কাপে খেলা হচ্ছে না সাকিবের। 


এই বছর ত্রিদেশীয় সিরিজের সময়ই চোট পেয়েছিলেন আঙুলে, সেটা লম্বা সময় ছিটকে দিয়েছিল মাঠ থেকে। এরপর চোট কাটিয়ে ফিরলেও সমস্যাটা থেকেই গেছে সাকিবের। সেটা কাটিয়ে উঠতে দির্ঘমেয়াদে অস্ত্রোপচার করতে হবে, যদিও কখন সেটা হবে সেই সিদ্ধান্ত সাকিবের ওপর। সামনে বাংলাদেশের ব্যস্ত সময়, অস্ত্রোপচার করলে অন্তত দুই মাস থাকতে হবে মাঠের বাইরে। এসব দিক ও আছে ভাবার। তবে সাকিব আজ ওয়েস্ট ইন্ডিজ সফর শেষে ঢাকায় ফিরে বিমানবন্দরে বলেছেন, অস্ত্রোপচার করতে হলে দেরি করতে চান না, 'ফিজিও ভালো বলতে পারবে (অস্ত্রোপচারের সময়)। এটা তো সবাই আমরা জানি এখন যে সার্জারি করতে হবে। ওটা নিয়ে আলোচনা হচ্ছে কোথায় করলে ভাল হয়, কবে করলে ভাল হয়। তবে আমি মনে করি যত তাড়াতাড়ি সম্ভব করে ফেলা ভাল।' 


তার মানে এরপর মাঠে নামলে ফুল ফিট হয়েই নামতে চান? সাকিব সরাসরিই উত্তর দিলেন, 'আমি তো তাই মনে করি হওয়া উচিত কারণ চাই না যে ফুল ফিট না থেকে খেলতে। কাজেই সেভাবে যদি চিন্তা করি এশিয়া কাপের আগে হবে এটাই নরমাল।'


এশিয়া কাপের আগে প্রায় নিশ্চিতভাবে সেখানে খেলা হচ্ছে না সাকিবের। এরপর আবার জিম্বাবুয়ে আর ওয়েস্ট ইন্ডিজ সিরিজ। তবে ফিট সাকিবকে যত দ্রুত বাংলাদেশ ভালোভাবে পায়, ততই মঙ্গল।