• ক্রিকেট

টিটুয়েন্টি সিরিজে কি হতে পারে?

পোস্টটি ৮০৯৯ বার পঠিত হয়েছে

_20180211_123854বাংলাদেশ বনাম শ্রিলঙ্কার টিটুয়েন্টি সিরিজটি সামনে রেখে যখন লিখতে বসলাম তখনও ঢাকা টেস্টে টাইগারদের অসহায় অাত্নসমর্পণের হতাশা কাটেনি। প্রত্যাশার ধারে কাছে ছিলনা টাইগারদের পারফরমেন্স। কিন্তু অতীতকে বর্তমানে লালন করলে ভবিষ্যৎ পালটানো যাবে না। টিটুয়েন্টি সিরিজকে সামনে রেখে বাংলাদেশ দলকে অবশ্যই ইতিবাচক মানসিকতা নিয়ে কঠোর পরিশ্রম করে যতে হবে।

টিটুয়েন্টি সিরিজে ঘোষিত দলে এসেছে ব্যাপক পরিবর্তন। বিপিএল এর পারফরমারদেরকে সুযোগ দেওয়া হয়েছে দলে। বিষয়টা খুবই ইতিবাচক। কারণ বিশ্ব ক্রিকেটের বর্তমান প্রেক্ষাপটে টিটুয়েন্টি ফরমেটের জন্য অালাদা দল তৈরি করাটা জরুরি। সেই দলের ব্যাটসম্যানদের টেকনিক থাকুক বা না থাকুক হাই স্ট্রাইক রেটে ইনিংস প্রতি ৩০ রানের উপরে করার সামর্থ্য থাকবে। সেই দলের বোলারদের যোগ্যতা বিচার করা হবে ডট বলের ভিত্তিতে। 

এভাবে একটা অালাদা টিটুয়েন্টি দল তৈরি করা হলে বাংলাদেশের টেস্ট ক্রিকেটও ১৫০ বছরের ঐতিহ্যকে এগিয়ে নেওয়ার ব্যাপারে ইতিবাচক ভূমিকা রাখতে পারবে। অন্যদিকে টিটুয়েন্টি দলে ব্যাপক পরিবর্তন অাসন্ন সিরিজের জন্য ইতিবাচক হওয়ার অারেকটি কারণ অাছে।

 বাংলাদেশ দলের সদ্য সাবেক ও শ্রিলঙ্কা দলের বর্তমান কোচ "চন্ডিকা হাথুরা সিংহে" বাংলাদেশ দল সম্পর্কে অনেক কিছু জানেন। এতে বর্তমানে শ্রিলঙ্কাদল লাভবান হচ্ছে। কিন্তু দলে যদি এমন পারফরমাররা অাসে যাদেরকে নিয়ে হাথুরা সিংহে কাজ করেননি তাহলে তা বাংলাদেশ দলের জন্যে কিছুটা হলেও সস্ত্বির। এক্ষেত্রে নতুনদেরকে যতদূর সম্ভব অধিক সংখ্যায় একাদশেও সুযোগ দিতে হবে। 

এবার অাসি পরিসংখ্যানে। পরিসংখ্যান বাংলাদেশের পক্ষে নয়। একের অধিক ম্যাচের টিটুয়েন্টি সিরিজে অাজ পর্যন্ত জয় পায়নি বাংলাদেশ। সর্বমোট ৬৭ টি অান্তর্জাতিক টিটুয়েন্টি ম্যাচ খেলে বাংলাদেশ জয়ের দেখা পেয়েছে মাত্র ২১ টিতে। অার পরাজয় ৪৪ টিতে। ২ টি ম্যাচের ফলাফল অাসেনি। শ্রিলঙ্কার বিপক্ষে বাংলাদেশ এখন পর্যন্ত ৭টি টিটুয়েন্টি খেলেছে যার মধ্য জয় ২টি পরাজয় ৫টি। এখানে সামান্য সস্তির বিষয় হচ্ছে শ্রিলঙ্কার বিপক্ষে শেষ ৩ টিটুয়েন্টির ২টা জিতেছে বাংলাদেশ। দুই দলের সর্বশেষ দেখায় জয় বাংলাদেশের, ঘরের মাটিতে সর্বশেষ ম্যাচটাও জিতেছে টাইগার রা।

পরিসংখ্যানটা গৌণ বিষয় মুখ্য বিষয়টা হচ্ছে মাঠের খেলা। সর্বশেষ ৫টি অান্তর্জাতিক ম্যাচে অপরাজিত শ্রিলঙ্কা মানসিক দিক থেকে যথেষ্ট এগিয়ে। অার সর্বশেষ চারটি অান্তর্জাতিক ম্যাচে এই শ্রিলঙ্কার বিপক্ষেই জয়হীন বাংলাদেশ মানসিক ভাবে পিছিয়ে থাকবে অাসন্ন সিরিজে।

এমনিতেই টিটুয়েন্টি ফরমেটের ক্রিকেটে বাংলাদেশ ধারাবাহিক নয়। তাই শ্রিলঙ্কার বিপক্ষে অান্ডার ডগ হিসাবে খেলবে টাইগাররা। অন্যদিকে শ্রিলঙ্কা খেলবে ফেভারিট হিসাবে।

জয় পরাজয়ের বিষয়ে অাগাম মন্তব্য করা কঠিন। বাংলাদেশের সমর্থক হিসেবে অপেক্ষায় থাকব সাব্বিরের  চার ছক্কা কিংবা মুস্তাফিজের একের পর এক কাটার, স্লোয়ার দেখার জন্য। খুব ভাল লাগবে যদি এই সিরিজে বাংলাদেশ নতুন কোন তারকা পায়। যে বাংলাদেশের সমর্থকদের হৃদয় জয় করে অান্তর্জাতিক ক্রিকেটকে মাতিয়ে তুলবে।

এমন অনেক প্রত্যাশা নিয়ে অামি এবং অামরা প্রত্যেক বাংলাদেশি সমর্থকরা অারেকবার রঙিন জার্সিতে ফিরতে যাওয়া টাইগারদের দিকে তাকিয়ে থাকব।

শুভকামনা বাংলাদেশ দলকে। 

 

'প্যাভিলিয়ন ব্লগ’ একটি কমিউনিটি ব্লগ। প্যাভিলিয়ন ব্লগে প্রকাশিত লেখা, মন্তব্য, ছবি এবং ভিডিওর সম্পূর্ণ স্বত্ব এবং দায়দায়িত্ব লেখক এবং মন্তব্য প্রকাশকারীর নিজের। কোনো ব্যবহারকারীর মতামত বা ছবি-ভিডিওর কপিরাইট লঙ্ঘনের জন্য প্যাভিলিয়ন কর্তৃপক্ষ দায়ী থাকবে না। ব্লগের নীতিমালা ভঙ্গ হলেই কেবল সেই অনুযায়ী কর্তৃপক্ষ ব্যবস্থা নিবেন।