• ফুটবল

তুষারপাতের রাতে মাদ্রিদের হোঁচট

পোস্টটি ১৯৭ বার পঠিত হয়েছে
'আউটফিল্ড’ একটি কমিউনিটি ব্লগ। এখানে প্রকাশিত সব লেখা-মন্তব্য-ছবি-ভিডিও প্যাভিলিয়ন পাঠকরা স্বতঃস্ফূর্তভাবে নিজ উদ্যোগে করে থাকেন; তাই এসবের সম্পূর্ণ স্বত্ব এবং দায়দায়িত্ব লেখক ও মন্তব্য প্রকাশকারীর নিজের। কোনো ব্যবহারকারীর মতামত বা ছবি-ভিডিওর কপিরাইট লঙ্ঘনের জন্য প্যাভিলিয়ন কর্তৃপক্ষ দায়ী থাকবে না। ব্লগের নীতিমালা ভঙ্গ হলেই কেবল সেই অনুযায়ী কর্তৃপক্ষ ব্যবস্থা নিবেন।

FB_IMG_1610229065181

পঁচা শমুকে পা কাটা যদি কোনো শিল্প হতো তাহলে সেই শিল্পের সবচেয়ে উপরে স্থানে অবস্থান করা লোকটা বোধহয় জিজুই হতেন।যেখানে বড় বড় দলগুলোর সাথে অনায়াসে পজেটিভ রেজাল্ট নিয়ে আসে সেখানে তার ঠিক উল্টো চিত্র দেখা যায় অপেক্ষাকৃত ছোট টিমের সাথে।

লীগে পয়েন্ট টেবিলের ২য় স্থানে থাকা রিয়াল মাদ্রিদের আজকের প্রতিপক্ষ ছিলো ১৯ নম্বরে থাকা অপেক্ষাকৃত  দুর্বল প্রতিপক্ষ ওসাসুনা।রেলিগেশন জোনে থাকা ওসাসুনা কোচ যেখানে ৪-১-৪-১ ফর্মেশনে টিম সাজিয়েছে সেখানে জিজু যথারীতি ৪-৩-৩ ফর্মেশনে দল গুছিয়েছে।এদিকে অসুস্থতা থেকে কাপ্তান রামোস দলে ফিরলেও কার্ডের কারণে ম্যাচ মিস করতে হয় কার্ভাহালকে।

স্পেনে অতিরিক্ত তুষারপাতের কারণে ম্যাচটি ছিলো দুইপক্ষের জন্যই প্রতিকূল আবহাওয়ায় ভরপুর।দুই দলই ম্যাচটি পেছাতে চাইলেও খেলানোর সিন্ধান্তে অনড় ছিলের লা-লীগা কতৃপক্ষ। আর সে অনুযায়ী ম্যাচটি পরিচালিত হয়। বহুদিন পর ইন্জুরি থেকে ফিরে মূল একাদশে জায়গা করে নিয়ে গোল করতে না পারলেও মোটামুটি ভালোই ছন্দ ছিলেন প্লে-মেকার হ্যাজার্ড। শুরু থেকে বার বার এট্যাকে গেলেও প্রথম হাফে অফটার্গেট থাকতে হয় রিয়ালের। এদিকে প্রথম হাফে ওসাসুনার অনটার্গেট একটি। সেকেন্ড হাফে ফিরে রিয়াল একের একের এট্যাক করলেও সেখানে বাঁধা হয়ে আসে ওসাসুনার গোলকিপার জন ও গার্সিয়ারা। বেন্জেমা দুটি গোল করলেও তা অফসাইডের কারণে বাতিল হয়। আর এরই সাথে ৭৫ শতাংশ পচেশন নিয়েও ফিনিশিং এর অভাবে ড্র নিয়ে মাঠ ছাড়তে হয় রামোস বেন্জেমাদের, যা মাদ্রিদকে শিরোপা জয়ের দৌড়ে আরেক ধাপ পিছিয়ে নিয়ে যায়।