• সাকিবের নিষেধাজ্ঞা
  • " />

     

    'দুঃখিত' সাকিব ফিরে আসতে চান আরও দৃঢ়ভাবে

    জুয়াড়ির কাছ থেকে তিনবার প্রস্তাব পেয়েও সেটি আইসিসির দুর্নীতি বিরোধী কমিশন আকসুকে না জানানোর দায়ে দুই বছরের জন্য নিষিদ্ধ বাংলাদেশের টেস্ট ও টি-টোয়েন্টি অধিনায়ক সাকিব আল হাসান নিজের ‘পুরো ভুল স্বীকার’ করে বলেছেন, ‘সমর্থন পেলে আগের চেয়ে আরও দৃঢ় ও ভালভাবে দেশের দায়িত্ব পালনের কাজে’ ফিরে আসতে পারবেন তিনি।

    আইসিসির প্রেস বিজ্ঞপ্তি দেওয়ার পরই নিশ্চিত হয়, গুঞ্জন সত্যি করে নিষেধাজ্ঞা পাচ্ছেন তিনি। সেই বিজ্ঞপ্তির প্রকাশের পর রাত আটটার দিকে বিসিবি কার্যালয়ে আসেন সাকিব। এরপর আনুষ্ঠানিক সংবাদ সম্মেলনে তিনি আসেন বিসিবি প্রেসিডেন্ট নাজমুল হাসান পাপন ও মিডিয়া কমিটির চেয়ারম্যান জালাল ইউনুসের সঙ্গে।

    সেখানে আইসিসিকে দেওয়া নিজের বিবৃতি পড়ে শোনান তিনি। সেখানে তিনি বলেছেন, “যে খেলাকে সবচেয়ে ভালোবাসি সেখান থেকে নিষেধাজ্ঞা পেয়ে আমি খুবই দুঃখিত। তবে অনৈতিক প্রস্তাবের ব্যাপারটি আইসিসি ও আকসুকে না জানানোয় যে শাস্তি দেওয়া হয়েছে, তা আমি মাথা পেতে নিচ্ছি।  ক্রিকেটকে দুর্নীতিমুক্ত করতে আকসু সবচেয়ে বেশি নির্ভর করে ক্রিকেটারদের ওপর। কিন্তু এক্ষেত্রে দায়িত্ব আমি পুরোপুরি পালন করতে পারিনি।”

    ভবিষ্যতে তার মতো ভুল যাতে অন্য কেউ না করেন, সে ব্যাপারেও আকসুকে সহায়তা করে যাবেন তিনি, “বিশ্বের আর সব সমর্থক ও খেলোয়াড়ের মতো আমিও একটি দুর্নীতিমুক্ত খেলার জগত চাই। আমি আশা করছি, সামনে আকসুর শিক্ষামূলক অনুষ্ঠানে আমি সাহায্য করব এবং নিশ্চিত করার চেষ্টা করব তরুণদের কেউ যাতে আমার মতো ভুল না করে।” 

    এরপর সাকিব যোগ করেছেন, আগের মতো সমর্থন পেলে আগের চেয়ে দৃঢ়ভাবে ফিরে আসবেন তিনি, “যেভাবে আমাকে সমর্থন করে এসেছেন- ক্রিকেট ভক্তরা, বিসিবি, সরকার, মিডিয়া- ভাল এবং খারাপ সময়ে, সেই সমর্থন বজায় থাকলে আশা করি আমি শীঘ্রই ক্রিকেটে ফিরতে পারব এবং আগের চেয়ে আরও দৃঢ়ভাবে ও আরও ভালভাবে দায়িত্ব পালন করতে পারব দেশের জন্য।”

    সংবাদ সম্মেলনে কোনও প্রশ্নের জবাব দেননি সাকিব। এদিকে সাকিবের নিষেধাজ্ঞাকে নিজের ও বাংলাদেশের ক্রিকেটের সবচেয়ে দুঃখের দিন বলেছেন সাবেক অধিনায়ক ও বর্তমান নির্বাচক হাবিবুল বাশার সুমন।