• ফুটবল, অন্যান্য
  • " />

     

    কোচ হিসেবে ছোটদের চ্যাম্পিয়নস লিগ জিতলেন রাউল

    রাউল গঞ্জালেজের অধীনে ইউয়েফা ইয়ুথ লিগ জিতেছে রিয়াল মাদ্রিদ অনূর্ধ্ব-১৯ দল। ফাইনালে পর্তুগিজ ক্লাব বেনফিকার যুব দলকে টানটান উত্তেজনাকর ম্যাচে ৩-২ গোলে হারিয়ে প্রথমবারের মতো এই টুর্নামেন্টের শিরোপা জিতেছে মাদ্রিদ।


    মাদ্রিদের বয়সভিত্তিক পর্যায়ে কোচিংয়ের ধাপগুলো বেশ সফলতার সঙ্গেই পার করছেন ক্লাব কিংবদন্তি রাউল। ক্লাবে দীর্ঘমেয়াদে জিনেদিন জিদানের উত্তরসূরি হিসেবেই তাকে কোচ হিসেবে তৈরি করা হচ্ছে। ২০১৯ সালে রিয়াল মাদ্রিদ কাস্তিয়ার দায়িত্ব পাওয়ার পর এবারের ইয়ুথ লিগে অ-১৯ দলকে কোচিং করানোর দায়িত্ব পড়ে তার ওপর। দায়িত্ব নিয়েই সাত বছর শুরু হওয়া এই প্রতিযোগিতায় প্রথমবার মাদ্রিদকে ফাইনালে নিয়ে এসেছিলেন তিনি। আর শেষ পর্যন্ত দারুণ পারফর্ম করে শিরোপাও জিতে নিয়েছে তার দল।

    মাদ্রিদের একাডেমী থেকে উঠে আসা রাউল ১৯৯৪ সালে মাত্র ১৭ বছর বয়সে ক্লাবের হয়ে প্রথম মাঠে নামেন। এরপর ১৬ বছর মাদ্রিদে কাটিয়েছেন তিনি, ৭৪১ ম্যাচ খেলে ৩২৩ গোল করেছেন। ২০১০ সালে ক্লাব থেকে বিদায় নিয়ে শালকে, আল-সাদ এবং নিউইয়র্ক কসমসের হয়ে খেলে ২০১৫ সালে পেশাদার ফুটবল ক্যারিয়ারের ইতি টানেন তিনি।

    সুইজারল্যান্ডের নিয়নে অনুষ্ঠিত হওয়া ফাইনালে বেনফিকার বিপক্ষে ম্যাচের প্রথমার্ধেই ২-০ গোলে এগিয়ে যায় মাদ্রিদ। স্ট্রাইকার পাবলো রদ্রিগেজ এবং বেনফিকার একটি আত্মঘাতী গোলে এগিয়ে থেকে বিরতিতে যায় তারা। দ্বিতীয়ার্ধে বেনফিকা গনসালো রামোস একটি গোল শোধ করেন। তবে মাদ্রিদের মিগেল গুতিয়েরেজ আবারও গোল করে দুই গোলের লিড পুনরুদ্ধার করেন। তবে বেনফিকার রামোস আবারও গোল করে ব্যবধান কমান। ম্যাচে এরপর সমতায় আসার দারুণ সুযোগ নষ্ট করে বেনফিকা। মাদ্রিদ গোলরক্ষক লুইস লোপেজ পেনাল্টি ঠেকিয়ে দিয়ে বেনফিকাকে আর ম্যাচে ফেরার সুযোগ দেননি।

    প্রিয় প্যাভিলিয়ন পাঠক, 

    কোভিড-১৯ মহামারি বিশ্বের আরও অনেক কিছুর মতো অর্থনৈতিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত করেছে ক্রীড়াঙ্গনকে। পরিবর্তিত এই পরিস্থিতিতে নতুন এক সংকটের মুখোমুখি হয়েছি আমরাও। প্যাভিলিয়নের নিয়মিত পাঠক এবং শুভানুধ্যায়ী হিসেবে আপনাদের কাছে অনুরোধ থাকবে আমাদের পাশে এসে দাঁড়ানোর। আপনার ছোট বা বড় যেকোনো রকম আর্থিক অনুদান আমাদের এই কঠিন সময়ে মূল্যবান অবদান রাখবে।

    ধন্যবাদান্তে,
    প্যাভিলিয়ন