• ফুটবল, অন্যান্য
  • " />

     

    নেদারল্যান্ডসের নতুন কোচ ফ্র্যাঙ্ক ডি বোর

    ডাচ জাতীয় দলের ম্যানেজার পদে রোনাল্ড কোমানের উত্তরসূরি হিসেবে নিয়োগ পেয়েছেন সাবেক ইন্টার মিলান কোচ ফ্র্যাঙ্ক ডি বোর।

    বার্সেলোনার নতুন কোচ কোমানের অধীনে বেশ ভালো করছিল নেদারল্যান্ডস। ২০১৮ বিশ্বকাপে খেলার জন্য বাছাইপর্ব পার হতে না পারা নেদারল্যান্ডসের দায়িত্ব নিয়ে দলকে নেশনস লিগের ফাইনালে তুলেছিলেন তিনি। ইউরো ২০২০-এর মূলপর্বেও নিয়ে গেছেন দলকে। তার সময়েই ডাচ ফুটবলে একটি নতুন যুগের শুরু হয়েছে। যার প্রতিনিধিত্ব করছেন ভার্জিল ভ্যান ডাইক, ফ্রেঙ্কি ডি ইয়ং, মাথিয়াস ডি লিট, স্টিভেন বার্গওয়াইন, ডনি ভ্যান ডি বিকের মতো তরুণ ফুটবলাররা।

    তবে নিজের পুরনো ক্লাব বার্সেলোনার চাকরির প্রস্তাব পেয়ে সেটা আর ফেরাতে পারেননি। আর তার জায়গায় আরেক বার্সা সাবেক ডি বোরকে নিয়োগ দিয়েছে নেদারল্যান্ডস এফএ। আয়াক্সের একাডেমী থেকে উঠে আসা ডি বোর আয়াক্সকে দিয়েই কোচিং ক্যারিয়ার শুরু করেন। ২০১০ থেকে ২০১৬ সাল পর্যন্ত আয়াক্সের দায়িত্বে ছিলেন। এরপর ইন্টার মিলানের কোচ হন তিনি, তিন বছরের চুক্তিতে তাকে নিয়োগ দিলেও সেই পদে তিন মাসও টেকেননি তিনি।

    এরপর ২০১৭ সালে প্রিমিয়ার লিগ ক্লাব ক্রিস্টাল প্যালেসের দায়িত্ব নেন ডি বোর। সেখানেও ব্যর্থ হয়েছিলেন সাবেক বার্সা ডিফেন্ডার। জোসে মরিনহো তখন ডি বোরকে ‘প্রিমিয়ার লিগ ইতিহাসের সবচেয়ে বাজে ম্যানেজার’ হিসেবে বর্ণনা করেছিলেন। কিংবদন্তি মরিনহোর এমন মন্তব্যের পর আর ইউরোপে চাকরি জোটেনি তার।

    ২০১৮ সালে এমএলএস ক্লাব আটলান্টা ইউনাইটেডের হাল ধরেন তিনি। এই বছরের জুলাইতে টানা ব্যর্থতার মাশুল গুনে সেখান থেকেও সরে যেতে হয় তাকে। দেখা যাক, ডাচ জাতীয় দলের কোচ হিসেবে এবার ডি বোরের কোচিং ক্যারিয়ারের একটা গতি হয় কিনা!

    প্রিয় প্যাভিলিয়ন পাঠক, 

    কোভিড-১৯ মহামারি বিশ্বের আরও অনেক কিছুর মতো অর্থনৈতিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত করেছে ক্রীড়াঙ্গনকে। পরিবর্তিত এই পরিস্থিতিতে নতুন এক সংকটের মুখোমুখি হয়েছি আমরাও। প্যাভিলিয়নের নিয়মিত পাঠক এবং শুভানুধ্যায়ী হিসেবে আপনাদের কাছে অনুরোধ থাকবে আমাদের পাশে এসে দাঁড়ানোর। আপনার ছোট বা বড় যেকোনো রকম আর্থিক অনুদান আমাদের এই কঠিন সময়ে মূল্যবান অবদান রাখবে।

    ধন্যবাদান্তে,
    প্যাভিলিয়ন