• অন্যান্য খবর
  • " />
    X
    GO11IPL2020

     

    মেসির অধরা গোল্ডেন ফুট জিতলেন রোনালদো

    ব্যক্তিওগত পুরস্কার হিসেবে ক্যারিয়ারে প্রায় সম্ভাব্য সবকিছুই জিতেছেন লিওনেল মেসি। প্রায়-শব্দটা বলতে হচ্ছে কারণ হাতেগোণা যে কয়টি পুরস্কার এখনো অধরা, তার একটি হচ্ছে গোল্ডেন ফুট। সেই পুরস্কারটিই আজ জিতেছেন ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো, তুরিনে ছোট্ট এক অনুষ্ঠানের পর এই পুরস্কার তুলে দেওয়া হয়েছে রোনালদোর হাতে। 

    এই গোল্ডেন ফুট পুরস্কারটা কী? ২৮ বছরের বেশি ফুটবলাররাই এটির জন্য বিবেচিত হন। ক্লাব ফুটবল নয়, বছরে আন্তর্জাতিক পারফরম্যান্সকেই গুরুত্ব দেওয়া হয় এই পুরস্কার দেওয়ার সময়। দেশের হয়ে ভালো কিছু করার স্বীকৃতিই পেয়েছেন রোনালদো। কোভিডের জন্য এই বছরে ইউরো হয়নি, আন্তর্জাতিক ফুটবল অনেকটুকুই বিঘ্ন হয়েছে। এর মধ্যেও দেশের হয়ে শততম গোলের মাইলফলক পেরিয়েছেন রোনালদো, ইউয়েফা নেশনস লিগে সুইডেনের বিপক্ষে জোড়া গোল করে। সবচেয়ে বেশি আন্তর্জাতিক গোলের রেকর্ড থেকে মাত্র ৭ গোল দূরে রোনালদো। ক্লাবের হয়েও এই বছর পেয়েছেন সাফল্য, জুভেন্টাসের হয়ে সিরি আ জিতেছেন, সব মিলে করেছেন ৪১ গোল। 

    এই পুরস্কারের জন্য ১০ জনের একটা শর্টলিস্ট করে দিয়েছিলেন বিশেষজ্ঞরা। সেখান থেকে অনলাইন ভোটের পর সেরা হয়েছেন রোনালদো। কদিন আগে ফিফা বর্ষসেরায় অবশ্য শীর্ষ তিনে ছিলেন রোনালদো, তবে পুরস্কার পেয়েছেন লেভানডফস্কি। এই পুরস্কারেও মেসি আর লেভানডফস্কিকে পেরিয়েছেন রোনালদো। তবে এই পুরস্কারটি আর জেতা হচ্ছে না তার। নিয়ম অনুযায়ী একজন কেবল একবারই এটি জিততে পারেন। ২০০৩ সালে সর্বপ্রথম এটি জিতেছিলেন ইতালির রবার্তো বাজ্জিও। সর্বশেষ গত বছর জিতেছেন লুকা মদ্রিচ। তার আগের চার বছর এই পুরস্কার হাতে উঠেছে যথাক্রমে লুকা মদ্রিচ, এডিনসন কাভানি, ইকার ক্যাসিয়াস ও জিয়ানলুইজি বুফনের হাতে। 

    প্রিয় প্যাভিলিয়ন পাঠক, 

    কোভিড-১৯ মহামারি বিশ্বের আরও অনেক কিছুর মতো অর্থনৈতিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত করেছে ক্রীড়াঙ্গনকে। পরিবর্তিত এই পরিস্থিতিতে নতুন এক সংকটের মুখোমুখি হয়েছি আমরাও। প্যাভিলিয়নের নিয়মিত পাঠক এবং শুভানুধ্যায়ী হিসেবে আপনাদের কাছে অনুরোধ থাকবে আমাদের পাশে এসে দাঁড়ানোর। আপনার ছোট বা বড় যেকোনো রকম আর্থিক অনুদান আমাদের এই কঠিন সময়ে মূল্যবান অবদান রাখবে।

    ধন্যবাদান্তে,
    প্যাভিলিয়ন