• আইপিএল ২০২১
  • " />

     

    পরিচ্ছন্ন-কর্মীর ছদ্মবেশে আইপিএলে জুয়াড়ি

    পরিচ্ছন্ন-কর্মীর ছদ্মবেশে আইপিএলে জুয়াড়ি    

    আইপিএল চলার সময় পরিচ্ছন্ন-কর্মী ছদ্মবেশে থাকা এক জুয়াড়িকে চিহ্নিত করেছে বিসিসিআইয়ের দুর্নীতিবিরোধী ইউনিট। এছাড়া রাজস্থান রয়্যালস ও সানরাইজার্স হায়দরাবাদ ম্যাচ চলার সময় ভুয়া অ্যাক্রিডিটেশন কার্ড (স্বীকৃতিপত্র) নিয়ে মাঠে ঢোকার কারণে অন্য দুজনকে আটক করেছে দিল্লি পুলিশ। 

    দুটি ঘটনাই ঘটেছে দিল্লির অরুন জেইটলি স্টেডিয়ামে। প্রথম ব্যক্তি মাঠের পাশ থেকে ভেতরের তথ্য কোনো বড় জুয়াড়ির কাছে পাচার করছিলেন বলে সন্দেহ করছে বিসিসিআইয়ের দুর্নীতিবিরোধি ইউনিট, পিটিআইয়ের বরাত দিয়ে জানিয়েছে ক্রিকবাজ। স্টেডিয়ামের একটা নিরিবিলি জায়গায় আলাদা থেকে কারও সঙ্গে ফোনে কথা বলছিলেন তিনি। তবে সেটি কোন ম্যাচের ঘটনা সেটি খুলে বলেননি এ ইউনিটের প্রধান শাব্বির হুসাইন। 

    সেই সন্দেহভাজন ব্যক্তিকে আটক করতে পারেননি শাব্বিরের দল। তবে তার দুটি মোবাইল ফোন পেয়েছেন তারা। পুলিশের কাছে অভিযোগপত্র দেওয়া হয়েছে, শাব্বিরের আশা, শীঘ্রই আটক করা সম্ভব হবে। টুর্নামেন্ট কমিটির কাছেও তথ্য আছে তার ব্যাপারে। 

    অন্য ম্যাচটি ছিল ২ মে-তে। তথ্য পেয়ে পুলিশ গ্রেফতার করেছে ভুয়া অ্যাক্রিডিটেশন কার্ড নিয়ে ঢোকা সেই দুই ব্যক্তিকে। 

    এছাড়া এবারের আইপিএলে কোনো ক্রিকেটার জুয়াড়ির প্রস্তাব পাওয়া বা এমন ধরনের কিছু তাদের কাছে রিপোর্ট করেননি, জানিয়েছেন শাব্বির। বায়ো-সিকিউর বলয়ে দর্শকশূন্য মাঠে খেলা হওয়াতে সন্দেহভাজনদের চিহ্নিত করা অপেক্ষাকৃত সহজ হয়েছে বলেও জানিয়েছেন তিনি। 

    কোভিড-১৯ মহামারিতে ফ্র্যাঞ্চাইজিগুলির মাঝে পজিটিভ কেস ছড়িয়ে পড়ার পর মঙ্গলবার অনির্দিষ্টকালের জন্য স্থগিত করা হয়েছে ২০২১ সালের আইপিএল। 


     

    প্রিয় প্যাভিলিয়ন পাঠক, 

    কোভিড-১৯ মহামারি বিশ্বের আরও অনেক কিছুর মতো অর্থনৈতিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত করেছে ক্রীড়াঙ্গনকে। পরিবর্তিত এই পরিস্থিতিতে নতুন এক সংকটের মুখোমুখি হয়েছি আমরাও। প্যাভিলিয়নের নিয়মিত পাঠক এবং শুভানুধ্যায়ী হিসেবে আপনাদের কাছে অনুরোধ থাকবে আমাদের পাশে এসে দাঁড়ানোর। আপনার ছোট বা বড় যেকোনো রকম আর্থিক অনুদান আমাদের এই কঠিন সময়ে মূল্যবান অবদান রাখবে।

    ধন্যবাদান্তে,
    প্যাভিলিয়ন