• ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগ
  • " />

     

    সিটিকে বিদায় দিয়ে বেলজিয়ামে ফিরছেন কোম্পানি

    গতকালই প্রথম ইংলিশ দল হিসেবে ম্যানচেস্টার সিটিকে জিতিয়েছেন ঘরোয়া ট্রেবল। একদিন পরেই সিটিকে বিদায় বলার ঘোষণা দিলেন সিটি অধিনায়ক ভিনসেন্ট কম্পানি। দীর্ঘ ১১ বছর পর এই মৌসুম শেষেই সিটি ছেড়ে যাচ্ছেন তিনি। এই মৌসুমেই চুক্তি শেষ হওয়ার কথা ছিল কম্পানির। অবশ্য শেষদিকে এসেও নতুন আরও এক বছরের চুক্তির কথা বার্তা চলছিল দুই পক্ষের। কিন্তু শেষ পর্যন্ত আর থাকতে চাননি ৩৩ বছর বয়সী ডিফেন্ডার। সিটিকে বিদায় দিয়ে তিনি ফিরে যাচ্ছেন বেলজিয়ামে। অ্যান্ডারলেখটের খেলোয়াড়-ম্যানেজারের হিসেবে নতুন দায়িত্ব পালন করবেন তিনি।    

    কম্পানি বলছেন, বিদায় বলার এটাই সঠিক সময়, ‘দলকে বিদায় বলার সময়টা এসে গেছে। দুর্দান্ত একটা মৌসুম কাটিয়েছি আমরা। সবার কাছে আমি কৃতজ্ঞও। যারা এই দীর্ঘ যাত্রায় খারাপ ও ভালো সময়ে আমার পাশে ছিলেন তাদের ধন্যবাদ। এই যাত্রার শুরু থেকে শেষ পর্যন্ত পুরোটাই আজীবন আমার মনে থাকবে। যে ভালোবাসা সবার কাছ থেকে পেয়েছি সেটা ভুলব না। সমর্থকদের কারণেই এতদূর আসতে পেরেছি আমি। খালদুন আল মুবারাককে বিশেষ ধন্যবাদ দিতে চাই, তার নেতৃত্বে সিটি আজ এই অবস্থানে এসেছে।’

    সিটি চেয়ারম্যান খালদুন বলছেন, ক্লাবের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ সদস্য হিসেবে কম্পানির বিদায়ে ব্যথিত তিনি, ‘সিটির উত্থানে অনেকের অবদান ছিল, কিন্তু কম্পানির চেয়ে বেশি অবদান কারো নেই। গত এক দশক ধরে সে ক্লাবের রক্ষণভাগের প্রাণ। ড্রেসিংরুমেও সে সবাইকে উজ্জীবিত করত। আমরা তাঁকে নিয়ে গর্বিত। আমার মনে হয়না সে অধিনায়ক হিসেবে চারবার লিগ শিরোপা জেতার কথা ভেবয়েছে। সিটির ভবিষ্যৎ প্রজন্ম তার সাফল্য নিয়ে কথা বলবে। চারজন ভিন্ন ভিন্ন ম্যানেজারের অধীনে খেলেছে সে। সেপ্টেম্বরে তার বিদায় ম্যাচের জন্য অপেক্ষা করছি আমরা। সে সবসময়ই আমাদের পরিবারের অংশ থাকবে।’

    সিটির হয়ে ৩৬০ ম্যাচে কম্পানি গোল করেছেন ২০টি। ক্লাবের অধিনায়কত্ব পেয়েছিলেন ৮ বছর আগে। জিতেছেন চারটি প্রিমিয়ার লিগ, দুইটি এফএ কাপ, চারটি লিগ কাপ ও দুটি কমিউনিটি শিল্ড।