• লা লিগা
  • " />

     

    কিক অফের আগে: মাদ্রিদ ডার্বির ডামাডোলে

    কবে, কখন 
    অ্যাটলেটিকো মাদ্রিদ-রিয়াল মাদ্রিদ 
    রাত ১টা 
    ওয়ান্ডা মেট্রোপলিটানো 


    লা লিগার প্রথম মাদ্রিদ ডার্বির জন্য মঞ্চ প্রস্তুত। পয়েন্ট টেবিলের শীর্ষে থেকে মাদ্রিদের অন্যপাশে ভ্রমণ করছে রিয়াল মাদ্রিদ। আর অ্যাটলেটিকো মাদ্রিদ তাদের চেয়ে পিছিয়ে এক পয়েন্টে। মাত্র সপ্তম ম্যাচেও তাই 'শিরোপার লড়াই' ক্লিশে শব্দটা জুড়ে দেওয়া যাচ্ছে।  

    পিএসজির কাছে চ্যাম্পিয়নস লিগে হেরে চাপে পড়ে গিয়েছিলেন জিনেদিন জিদান। কিন্তু সেভিয়ার সঙ্গে গুরুত্বপূর্ণ এক জয়ের পর ওসাসুনাকে হারিয়ে সেই জিদান আর রিয়াল মাদ্রিদ এখন অনেকটাই ভারমুক্ত। কিন্তু ম্যাচটা যখন মাদ্রিদ ডার্বি তখন চাপমুক্ত থাকার উপায় কই!

    মাদ্রিদের বিত্তশালী ক্লাব বনাম খেটে খাওয়াদের ক্লাব- মাদ্রিদ ডার্বির দুইদলকে অনেকেই আলাদা করেন এভাবে। ম্যাচের আগেরদিন জিদান বললেন অন্য কথা। তিনি বাস্তবতা জানেন। পরিবর্তনও করতে চান না। কিন্তু রিয়ালের সবাই যে কঠোর পরিশ্রমী সেটা মনে করিয়ে দিলেন আরেকবার।    

    "এসবের ভেতর আমি ঢুকতে চাই না। আমি শুধু বলতে চাই এ ক্লাবের সবাইও অনেক পরিশ্রম করে। তারাই আবার বলে এটা (রিয়াল) ধনী ক্লাব আর অ্যাটলেটিকো হচ্ছে পরিশ্রমীদের। এটা আমি বদলাতে চাইনা। আমি চাই ক্লাবের সবাইকে গর্বিত করতে, আমরা সেটাই করব।"

    ডার্বি ম্যাচ যে সবকিছু ছাপিয়ে সম্মানের লড়াই সেদিকেই ইঙ্গিত করেছেন জিদান।

    চার জয়, এক ড্র , এক হার- অ্যাটলেটিকোর এখন পর্যন্ত লিগের অবস্থা। মাদ্রিদ ডার্বির সবশেষ স্মৃতিটা অবশ্য তাদের জন্য দুর্দান্ত। যদিও ওই ম্যাচটার দাম নেই বললেই চলে। মৌসুম শুরুর আগে প্রীতি ম্যাচে ৭-৩ গোলে রিয়ালকে বিধ্বস্ত করেছিল অ্যাটলেটিকো। ডিয়েগো সিমিওনে ভালো করেই জানেন ওই ফল দিয়ে কিছু যায় আসে না।

    মাদ্রিদ ডার্বির আগে বড় একটা স্বস্তি পেয়েছেন তিনি। ডিয়েগো কস্তার গোলখরা কেটেছে। শেষ ম্যাচে মায়োর্কার বিপক্ষে কস্তা ও নতুন আসা হোওয়াও ফিলিক্স দুইজনই গোল করেছেন। এদের ভেতর কস্তার রেকর্ড মাদ্রিদ ডার্বিতে দুর্দান্ত। শেষ ৬ ম্যাচে চার গোল তার। রিয়ালের দুঃস্বপ্ন তিনি।

    তবে ফিলিক্সের ওপরও অনেকটাই নির্ভর করছে অ্যাটলেটিকোর ভাগ্য। টিনএজার অ্যাটলেটিকোতে আসার পর স্পেনে সবচেয়ে বড় ম্যাচ তার। ডিয়েগো গডিন, ফিলিপে লুইজ, হুয়ানফ্রান পরবর্তী যুগে ধীরে ধীরে মানিয়ে নিচ্ছে অ্যাটলেটিকো। লিগে ৬ ম্যাচে মাত্র ৪ গোল হজম করেছে তারা। স্থিতিশীলতাও ফিরছে, মাদ্রিদ ডার্বি জয় তাই শিরোপা জিততে চাওয়ার বিবৃতি হয়ে দাঁড়াতে পারে অ্যাটলেটিকোর জন্য।

    তবে ম্যাচের নায়ক হয়ে যেতে পারেন এডেন হ্যাজার্ড। রেকর্ড দলবদলের পর এখনও মাদ্রিদে শিরোনাম কেড়ে নেওয়া হয়নি বেলজিয়ানের। মাদ্রিদ ডার্বির জন্য আগের ম্যাচে তাকে বিশ্রামে রেখেছিলেন জিদান। পুরো ফিটনেস নিয়ে ওয়ান্ডাতে ওয়ান্ডারফুল কিছুই করতে চাইবেন তিনি।  
     
    দলের খবর 
    লুকা মদ্রিচ ফিরতে পারেন রিয়ালের মিডফিল্ডে। আগের ম্যাচে বিশ্রামে থাকা দানি কারভাহাল, এডেন হ্যাজার্ড, গ্যারেথ বেল, করিম বেনজেমা সবারই ফেরার কথা। ওসাসুনার বিপক্ষে গোল করা রদ্রিগো গোস অবশ্য থাকছেন না এই ম্যাচে। 

    অ্যাটলেটিকোর হয়ে শেষ ম্যাচে লাল কার্ড দেখায় আলভারো মোরাতা নেই মাদ্রিদ ডার্বিতে। কস্তা ও ফেলিক্স তাই সব ঠিকঠাক থাকলে শুরু করছেন ফরোয়ার্ড হিসেবে।  

    সম্ভাব্য একাদশ 
    অ্যাটলেটিকো মাদ্রিদ 

    অবলাক, ট্রিপিয়ের, সাভিন হিমেনেজ, লোডই, নিগেজ, পার্তে, কোকে, ভিতোলো, কস্তা,ফেলিক্স 
    রিয়াল মাদ্রিদ 
    কোর্তোয়া, কারভাহাল, ভারান, রামোস, নাচো, কাসেমিরো, ক্রুস, মদ্রিচ, হ্যাজার্ড, বেনজেমা, বেল

    হেড টু হেড
    শেষ ৫ ম্যাচের চারটিি ড্র করে পয়েন্ট ভাগাভাগি করেছে দুইদল। তবে ওয়ান্ডা মেট্রপলিটানোর সবশেষ মাদ্রিদ ডার্বিতে ৩-১ গোলে জিতেছিল রিয়াল। ঘরের মাঠে অ্যাটলেটিকো সবশেষ মাদ্রিদ ডার্বি জিতেছিল চার বছর আগে, সেবার ৪-০ ব্যবধানে তারা উড়িয়ে দিয়েছিল রিয়ালকে। 

    যদিও লা লিগায় সব মিলিয়ে রিয়ালের ৮৯ জয়ের বিপরীতে অ্যাটলেটিকোর জয় মাত্র ৩৯ টি। শহরের সেরা কে সেটাই যেন বলছে এই রেকর্ড। 

    প্যাভিলিয়ন প্রেডিকশন
    অ্যাটলেটিকো মাদ্রিদ ১-১ রিয়াল মাদ্রিদ