• ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগ
  • " />

     

    দুই গোলে এগিয়ে থাকা ম্যাচও জেতা হলো না আর্সেনালের

    দুই গোলে এগিয়ে থাকা ম্যাচও জেতা হলো না আর্সেনালের    

    শেফিল্ড ইউনাইটেডের কাছে হারের পর ঘরের মাঠে ক্রিস্টাল প্যালেসের বিপক্ষেও জেতা হয়নি আর্সেনালের। এমিরেটসে ম্যাচের ১০ মিনিটের মধ্যে দুই গোলে এগিয়ে যাওয়ার পরও প্যালেসের সঙ্গে শেষ পর্যন্ত ২-২ গোলে ড্র করেছে উনাই এমেরির দল। ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড অবশ্য জয়ের ধারায় ফিরেছে। নরউইচকে ৩-১ গোলে হারিয়েছে তারা।

    এমিরেটসে দুইটি কর্নার থেকে দুই মিনিটের ব্যবধানে আর্সেনালে এগিয়ে নিয়েছিলেন দলের দুই সেন্টারব্যাক। প্রথমে সক্রেটিস পাপাস্তাথপোলাস, এরপর ডেভিড লুইজ করেন গোল। আর্সেনালের দারুণ শুরু মিলিয়ে গেছে প্রথমার্ধ শেষের আগেই। ৩২ মিনিটে কলাম চেম্বার্স উইলফ্রেড জাহাকে বক্সের ভেতর ফাউল করলে পেনাল্টি পেয়ে যায় প্যালেস। শুরুতে যদিও রেফারি পেনাল্টির বদলে উলটো জাহাকে হলুদ কার্ডে দেখিয়েছিলেন। পরে ভিএআরের সহায়তায় সিদ্ধান্ত বদলান রেফারি। লুকা মিলিভইয়েভিচ সফল স্পট কিক নিয়ে দলকে ম্যাচে ফেরান।

    দ্বিতীয়ার্ধের সাত মিনিট সময়ই সমতায় ফেরে প্যালেস। ডানদিক থেকে আসা ক্রসে দূরের পোস্ট থেকে হেড করে গোল করেন জর্ডান আইয়ু। ম্যাচের সময় ঘন্টা খানেক পেরুনোর পর এমিরেটসের হতাশা আরেক প্রস্থ্ বাড়ে। অধিনায়ক গ্রানিত শাকা দর্শকদের দুয়ো শুনে মাঠ ছেড়েছেন বদলি হওয়ার সময়। দর্শকদের দুয়োও ঠিক মেনে নিতে পারেননি শাকা, নিজেও তেঁতে গিয়েছিলেন। মাঠ ছাড়ার পর দর্শকদের সঙ্গে কিছুটা বাদানুবাদও হয়েছে তার। শেষে গিয়ে সক্রেটিসের একটি গোল গ্যারি কেহিলকে করা চেম্বার্সের একটু ফাউলের জন্য বাতিল হলে হতাশা আরও বাড়ে আর্সেনালের। 

    একই সময়ে শুরু হওয়া অন্য ম্যাচে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড লিগে অ্যাওয়ে ম্যাচ জিতেছে ৮ মাস পর। নরউইচ সিটির বিপক্ষে তাদেরজ জয়ের ব্যবধান বেশ বড় হতে পারত। কিন্তু প্রথমার্ধে দুইবার টিম ক্রুল পেনাল্টি থেকে আটকে দিয়ে সেটা হতে দেননি। ২০ মিনিটে স্কট ম্যাকটিমিনের নিচু শটে গোল পেয়ে যায় ইউনাইটেড। এর কিছুক্ষণ পর একটি বিতর্কিত পেনাল্টি পেলেও, র‍্যাশফোর্ড ব্যর্থ হন গোল করতে। যদিও নরউইচের স্বস্তি বেশিক্ষণ স্থায়ী হয়নি। র‍্যাশফোর্ডই আবার গোল করে ব্যবধান বাড়িয়ে নেন।

    ঘটনাবহুল প্রথমার্ধে আরও একবার পেনাল্টি পেয়ে যায় ইউনাইটেড। এবার ক্রুলের কাছে আটকে যান অ্যান্থনি মার্শিয়াল। তবে সেই মার্শিয়ালও এরপর গোল পেয়েছেন। তাকে অবশ্য আরও বেশ কিছুক্ষণ অপেক্ষা করতে হয়েছে। ৭৩ মিনিটে তৃতীয় গোল করে একাদশে ফিরেই দলের জয়ের নিশ্চিত করেন ফ্রেঞ্চ ফরোয়ার্ড। ম্যাচ শেষের দুই মিনিট আগে নরউইচের হয়ে এক গোল শোধ করেন ওনিল হার্নান্দেজ।

    ১০ ম্যাচ শেষে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের পয়েন্ট ১৩, অবস্থান সাতে। আর আর্সেনাল ১৬ পয়েন্ট নিয়ে নেমে গেছে ছয়ে।

    প্রিয় প্যাভিলিয়ন পাঠক, 

    কোভিড-১৯ মহামারি বিশ্বের আরও অনেক কিছুর মতো অর্থনৈতিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত করেছে ক্রীড়াঙ্গনকে। পরিবর্তিত এই পরিস্থিতিতে নতুন এক সংকটের মুখোমুখি হয়েছি আমরাও। প্যাভিলিয়নের নিয়মিত পাঠক এবং শুভানুধ্যায়ী হিসেবে আপনাদের কাছে অনুরোধ থাকবে আমাদের পাশে এসে দাঁড়ানোর। আপনার ছোট বা বড় যেকোনো রকম আর্থিক অনুদান আমাদের এই কঠিন সময়ে মূল্যবান অবদান রাখবে।

    ধন্যবাদান্তে,
    প্যাভিলিয়ন