• বাংলাদেশের বিশ্বকাপ বাছাইপর্ব
  • " />

     

    কোমেনের ভাই যখন ওমানে বাংলাদেশের প্রতিপক্ষ

    বাংলাদেশের কোচ হিসেবে জেমি ডে আলো ছড়িয়ে যাচ্ছেন এখন পর্যন্ত। বিশ্বকাপ বাছাইয়ের দ্বিতীয় পর্বটা ভালো একটা অভিজ্ঞতাই হচ্ছে বাংলাদেশের ব্রিটিশ কোচের জন্য। এবার সেই নতুন আরেকটা চ্যালেঞ্জের সামনে ডে। বিশ্বকাপ বাছাইয়ের পরের ম্যাচে ডাগ আউটে ডের প্রতিপক্ষ বার্সেলোনা কিংবদন্তী ও বর্তমান নেদারল্যান্ডস কোচ রোনাল্ড কোমেনের ভাই ও তার একসময়ের সহকারি এরউইন কোমেন।

    ওমানের বিপক্ষে বাছাই পর্বের ম্যাচ খেলতে এরই মধ্যে দেশ ছেড়েছে বাংলাদেশ। ১৪ নভেম্বর আল শিব স্টেডিয়ামে ওমানের বিপক্ষে ম্যাচ বাংলাদেশের। গ্রুপ 'ই'-তে আপাতত ৭ পয়েন্ট নিয়ে দ্বিতীয় স্থানে আছে ওমান।

    এ বছরের শুরুর দিকে এশিয়া কাপের পর ওমানের দায়িত্ব নিয়েছিলেন ডাচ কোচ এরউইন কোমেন। শুধুমাত্র রোনাল্ড কোমেনের ভাই বলে নয়, নিজের কোচিং দর্শনের জন্য আলাদা করে নিজেকে চিনিয়েছেন তিনি। সিভিটাও বেশ ভারী তার। ডাচ ক্লাব ফেইনুর্দের দায়িত্বে ছিলেন দুই মৌসুম। পরে প্রিমিয়ার লিগের দুই ক্লাব সাউদাম্পটন আর এভারটনের সহকারি কোচ হিসেবে কাজ করেছেন এরউইন কোমেন। এই দুই ক্লাবেই তিনি ছিলেন মূল কোচ রোনাল্ড কোমেনের ডান হাত।

    জাতীয় দলের দায়িত্বও নতুন কিছু নয় এরইউন কোমেনের জন্য। ২০০৮ থেকে ২০১০ পর্যন্ত হাঙ্গেরির কোচ ছিলেন তিনি। ওমানের জাতীয় দলের কোচ হওয়ার আগে তুরস্কের ক্লাব ফেনারবাচের সহকারি ও অন্তবর্তীকালীন কোচের দায়িত্বও পালন করেছেন এরউইন কোমেন। 

    রোনাল্ড কোমেনের মতো খেলোয়াড়ি জীবন অতোটা বর্ণাঢ়্য না হলেও নেদারল্যান্ডসের ইতিহাসের অংশ হয়ে আছেন এরইউন কোমেনও। ১৯৮৮ সালে নেদারল্যান্ডসের ইতিহাস গড়া ইউরোজয়ী দলের গুরুত্বপূর্ণ সদস্য ছিলেন তিনি। এখন পর্যন্ত ওই একবারই বড় কোনো শিরোপা জিতেছে নেদারল্যান্ডস। দুই বছর পর ইতালি বিশ্বকাপেও খেলেছেন এরউইন।  

    বেশিরভাগ ডাচ কোচের মতো এরউইন ও পজেশন নির্ভর টোটাল ফুটবলে বিশ্বাসী। ওমানের দায়িত্ব নেওয়ার পর অবশ্য পরীক্ষা-নিরীক্ষা করে দেখেছেন দলকে নিয়ে। ৪-৩-৩ ও ৪-২-৩-১ , দুই ফর্মেশনেই মূলত খেলাচ্ছেন দলকে। এখন পর্যন্ত তার অধীনে বাছাই র্বেও প্রত্যাশামতো ফল পেয়েছে ওমান। আফগানিস্তান ও ভারতকে হারিয়ে দুই ম্যাচ জিতেছে তারা, কাতারের সঙ্গে অবশ্য শুরুতে এগিয়ে গিয়েও খালি হারতে ফিরতে হয়েছে এরউইন কোমেনের দলকে। 

     ওমান দলে আছেন একজন নামী-দামী ফুটবলও। প্রিমিয়ার লিগ যারা নিয়মিত দেখেন, আলি আল হাবসিকে তাদের ভুলে যাওয়ার কথা নয়। বোল্টন ওয়ান্ডারার্স ও উইগ্যান অ্যাথলেটিকের হয়ে এক সময় প্রিমিয়ার লিগে খেলেছেন তিনি। এর পর রিডিং হয়ে বর্তমানে আছেন চ্যাম্পিয়নশিপের ক্লাব ওয়েস্টব্রমে। বয়স হয়ে গেছে ৩৭, ওমানের নিয়মিত গোলরক্ষক না হলেও হাবসিকেও বাংলাদেশ ম্যাচের জন্য দলে রেখেছেন কোমেন। 

    ভারতের আশি হাজার দর্শকের সামনে খেলতে নামার আগে বেশ উচ্ছ্বসিত ছিলেন জেমি ডে। বলেছিলেন, এই অভিজ্ঞতা তার দলের জন্য দারুণ, খেলোয়াড়রা যত ভালো খেলবেন সেটা কোচ হিসেবে তাকেই আরও সমৃদ্ধ্ব করবে। নিজের কোচিং ক্যারিয়ারে সম্ভবত সবচেয়ে হাই প্রোফাইল কোচের বিপক্ষে এবার খেলতে যাচ্ছেন ডে। বাংলাদেশের মতো তার নিজের জন্যও তাই অপেক্ষা করছে বড় অভিজ্ঞতা।