• বাংলাদেশের ভারত সফর
  • " />

     

    প্রথম ম্যাচের হার ভুলে ঘুরে দাঁড়ানোর ব্যাপারে প্রত্যয়ী চাহাল

    এই সিরিজের আগে বাংলাদেশের বিপক্ষে আটটি টি-টোয়েন্টি খেলে আগে কখনোই হারেনি ভারত। দিল্লীতে সিরিজে প্রথম ম্যাচে ভারতকে প্রথমবারের মতো এই ফরম্যাটে হারিয়েছে বাংলাদেশ। সিরিজ বাঁচাতে হলে আগামীকাল রাজকোটে জিততেই হবে রোহিত শর্মাদের। ম্যাচের আগে সংবাদ সম্মেলনে ভারতের স্পিনার যুজভেন্দ্র চাহাল বলছেন, দ্বিতীয় ম্যাচের আগে চাপে নেই ভারত। প্রথম ম্যাচের হার ভুলে ঘুরে দাঁড়ানোর ব্যাপারেও আশাবাদী তিনি। 

    সিরিজে পিছিয়ে পড়েও ইতিবাচক মনোভাব নিয়েই আগামীকাল মাঠে নামবে ভারত, বলছেন চাহাল, ‘আমরা ইতিবাচকই আছি। সিরিজে প্রথম ম্যাচ হেরেও পরে সিরিজ জেতার ঘটনা তো আমাদের জন্য নতুন না। প্রথম ম্যাচটা হয়ে গেছে, সেটা নিয়ে ভাবলে মনের মাঝে নেতিবাচক চিন্তা আসবে। রাজকোটে আসার আগে আমরা আগের ম্যাচের হার ভুলে গেছি। দ্বিতীয় ম্যাচের জন্য আমরা নতুনভাবে শুরু করতে চাই। ১৫ জনের স্কোয়াডের সবাই ইতিবাচক আছে। আশা করি আমরা কাল জিতেই সিরিজে সমতা আনবো।’ 

    দ্বিতীয় ম্যাচের আগে অনুশীলনে রোহিত শর্মারা 

     

    রাজকোটের ম্যাচের আগে কি ভারত একটু বেশি চাপে আছে? চাহাল জানালেন, কোনো চাপই অনুভব করছেন না তারা, ‘এখানে আসলে চাপের কিছু নেই। এটা তিন ম্যাচের সিরিজ, কোনো নকআউট ম্যাচ না। আগের ম্যাচে বাংলাদেশ আমাদের চেয়ে ভালো খেলেছে। এখনো দুটি ম্যাচ বাকি। আমার পূর্ণ বিশ্বাস আছে যে ভারত সিরিজে ফিরবে।’ 

    প্রথম ম্যাচে বাংলাদেশের খেলার প্রশংসাও করলেন চাহাল, ‘আমাদের উচিত বাংলাদেশের খেলার প্রশংসা করা। তারা খুব ভালো খেলেছে। গত কয়েক ম্যাচেই তারা আমাদের ভালো টক্কর দিয়েছে। বিশেষ করে মুশফিকুর খুব ভালো খেলেছেন। পিচ ব্যাটিংয়ের জন্য সহজ ছিল না। তাও আমরা ভালো একটা স্কোর দাড় করিয়েছিলাম। বাংলাদেশ তাদের উইকেট বাঁচিয়ে রেখেছিল। আমরাও ক্যাচ মিস করেছিলাম, এটা অবশ্য খেলারই অংশ। বাংলাদেশ বোলিংয়েও দারুণ করেছে। বিশেষ করে যখন ধাওয়ান ও পান্ট ব্যাটিং করছিল। মাহমুদউল্লাহ দুইজন অফ স্পিনারকে আক্রমণে এনেছিলেন, এটা ভালো সিদ্ধান্ত ছিল।’  

    বাংলাদেশের কাছে হারের পর কি দলের অনেকে বাদ পড়ার শঙ্কায় আছেন? চাহাল জানালেন, এমন কোন কিছুই ভাবছেন না স্কোয়াডের কেউই, ‘একাদশে এগারোজন আছে, স্কোয়াডে ১৫ জন। সবাই তাদের নিজের ভূমিকা জানে। এক দুই ম্যাচ খেলেই কেউ বাদ পড়বে না। দুই এক ম্যাচ খারাপ যেতেই পারে। টিম ম্যানেজমেন্ট থেকে কোনো চাপ দেওয়া হচ্ছে না। তবে একটা ব্যাপার হচ্ছে আমরা নিজেদের ভুলগুলো যেন পরের ম্যাচে না করি।’