• " />

     

    ভুটানের কাছে হেরে স্বর্গ থেকে পতন বাংলাদেশ যুবাদের

    স্বর্গ থেকে পতন বোধ হয় একেই বলে। আগের ম্যাচে জর্ডানকে আটকে দিয়ে দারুণ ফল পেয়েছিল যে দল, তারাই দুই দিনের মাথায় হেরে বসল ভুটানের কাছে। এএফসি অনুর্ধ্ব-১৯ চ্যাম্পিয়নশিপের বাছাইপর্বের শেষটা তাই বাংলাদেশের জন্য হলো চরম হতাশার। ভুটানের কাছে ২-১ গোলে হেরে বাংলাদেশ শেষ করেছে গ্রুপের তলানিতে। আর বাংলাদেশকে হারিয়ে টুর্নামেন্টের একমাত্র জয় তুলে নিয়েছে ভুটান। 

    অথচ এই ম্যাচের আগেও নিভু নিভু করে জ্বলছিল বাংলাদেশের মূল পর্বে খেলার সম্ভাবনা। বাহরাইনে শুরুটাও প্রত্যাশামতো ছিল বাংলাদেশের। জর্ডানের বিপক্ষে সেই গোলটাই মঞ্চস্থ করেছিলেন কাজী রাহাত ও ইয়াসিন আরাফাত। অধিনায়কের গোলে ১৯ মিনিটে এগিয়ে গিয়েছিল বাংলাদেশ। প্রথমার্ধেও ইয়াসিনের ওই গোলে এগিয়ে ছিল বাংলাদেশ। 

    পতনটা হয়েছে দ্বিতীয়ার্ধে। ভুটানকে জর্ডান হারিয়েছিল ৩-০ ব্যবধানে, বাহরাইনের কাছে তারা হেরেছে ৪-০ তে। মূল পর্বে খেলার কোনো স্বপ্ন টিকিয়ে রাখতে হলে অন্তত চার গোলের ব্যবধানে জিতে প্রাথমিকভাবে নিজেদের কাজটা সেরে রাখতে হত বাংলাদেশকে। দলটা ভুটান বলেই সম্ভাবনা উড়িয়ে দেওয়া যাচ্ছিল না বাংলাদেশের। কিন্তু দ্বিতীয়ার্ধে আরও তিন গোল করার পরিবর্তে ভুটানের কাছে দুই গোল খেয়ে ম্যাচটা হেরেই এসেছে বাংলাদেশ। 

    ৬৫ মিনিটে ভুটানকে সমতায় ফিরিয়েছিলেন যেশি দর্জি। ড্রটাই ভুটানের জন্য জয়ের সমান ফল হতে পারত। যোগ করা সময়ে বাংলাদেশের কফিনে শেষ পেরেক ঠুকে দিয়ে জয় ছিনিয়ে আনেন দর্জি খান্দ। 

    টুর্নামেন্ট শুরুর আগে বাংলাদেশ অধিনায়ক ও কোচ অ্যান্ড্রু পিটার টার্নার মূল পর্বে খেলার স্বপ্নের কথা জানিয়ে গিয়েছিলেন। বাহরাইনের কাছে ৩-০ তে হেরে টুর্নামেন্ট শুরুর করার পর স্বপ্নটা সেখানেই প্রায় শেষ হয়ে গিয়েছিল। কিন্তু দ্বিতীয় ম্যাচে শক্তিশালী জর্ডানকে আটকে দিয়ে দারুণ ফল পেয়ে গিয়েছিল বাংলাদেশ। শেষ ভুটানের কাছে হেরে টুর্নামেন্টটা এর চেয়ে আর বাজে হতে পারত না বাংলাদেশের জন্য।