• বাংলাদেশের ভারত সফর
  • " />
    X

     

    'মোস্তাফিজকে নিয়ে সিদ্ধান্ত নেওয়ার সময় আসেনি এখনও'

    প্রথম ম্যাচে তার দুই ওভার বাকি রয়ে গিয়েছিল। শেষ ম্যাচে ৪ ওভারই করলেন মোস্তাফিজুর রহমান, কিন্তু গুণলেন ৪২ রান। তিন ম্যাচ মিলিয়ে মোস্তাফিজের উইকেটের ভাঁড়ার থাকলো শূন্যই। নাগপুরে তার বোলিংয়ের জন্য মোটামুটি আদর্শ উইকেট ছিল, তবুও নিজেকে হারিয়ে খুঁজলেন তিনি। 

    শফিউল ইসলাম ও আল-আমিন হোসেন নিজের অভিজ্ঞতা কাজে লাগিয়ে পেসে বৈচিত্র আনছিলেন, মোস্তাফিজকে সেখানে মনে হচ্ছিল যেন পরিকল্পনাহীন কোনও যাত্রী। স্লো বাউন্সারের দিকেই বাড়তি মনযোগ ছিল তার, লেংথ আর শর্ট অফ আ লেংথ থেকে খুব সামনে যাননি তিনি। ভেতরের দিকে বল ঢোকানো নিয়ে মোস্তাফিজের দুর্বলতা এখন প্রকাশ্যই। সহজাত বল বের করে নিয়ে যাওয়ার সঙ্গে তার কাটার- মোস্তাফিজ সেসবেরও সদ্ব্যবহার যেন করতে পারছেন না। 

    ২০১৫ সালে অভিষেকের পর থেকে ডেথ ওভারে অধিনায়কের অন্যতম ভরসার নাম ছিলেন মোস্তাফিজ। ভারতের বিপক্ষে সিরিজে মাহমুদউল্লাহ সেই ভরসা যেন ঠিক করতে পারলেন না তার ওপর। ম্যাচশেষে অবশ্য তিনি মোস্তাফিজের এই সময়কে ‘খারাপ সময়’ উল্লেখ করে বলেছেন, তাদের উচিৎ তাকে এ সময়ে সমর্থন দেওয়া। আর নির্বাচক হাবিবুল বাশার বলছেন, মোস্তাফিজকে নিয়ে ‘সিদ্ধান্ত’ নেওয়ার সময় আসেনি এখনও।  

    বাশার বলছেন, মোস্তাফিজের ফর্মটা আসলেই চিন্তার বিষয় হয়ে দাঁড়াচ্ছে তাদের জন্য, “মোস্তাফিজ কিন্তু পারফরমার। হয়তো সাম্প্রতিক সময়ে এই বছরটা ওর ভালো যায়নি কিন্তু এর আগে যদি দেখেন ও কিন্তু সবসময় পারফর্ম করেছে। এ বছরটা ওর ইকোনোমি রেটটা একটু বেশি, কিন্তু সে উইকেট নিচ্ছে।

    “আমাদের এখন পর্যন্ত স্লগ ওভারে সে-ই সবচেয়ে সেরা বোলার এবং স্লগ ওভারেই সবসময় বল করে থাকে। আমার মনে হয় এখনই সিদ্ধান্ত নেওয়ার মতো সময় আসেনি। কিন্তু ওর ফর্মটা আসলেই চিন্তার বিষয় কারণ মোস্তাফিজ ফর্মে থাকলে আমাদের কাজটা অনেক সহজ হয়ে যায়।”

    বিশ্বকাপের পর শ্রীলঙ্কায় ওয়ানডে সিরিজের পর দেশের মাটিতে ত্রিদেশীয় সিরিজ খেলা মোস্তাফিজ খেলেননি আফগানিস্তানের বিপক্ষে একমাত্র টেস্ট। চোটে পড়ার পর থেকে তার ‘ওয়ার্কলোড ম্যানেজমেন্ট’ নিয়েও বেশ ভাবনা আছে টিম ম্যানেজমেন্টের। টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ সামনে রেখে দলে ফেরানো শফিউল-আল-আমিনরা যেখানে আশা জোগাচ্ছেন, মোস্তাফিজ সেখানে হাঁটছেন যেন উলটো পথে। ভারতের বিপক্ষে টেস্ট সিরিজের দলে অবশ্য ফিরেছেন তিনি। 

    তবে এখনও মোস্তাফিজকেই শীর্ষ বোলার ভাবতে চান বাশার, “সে তো আমাদের ‘লিডিং’ বোলার। আমি অন্য কোনও বোলারের সঙ্গে তুলেনা দেবোনা কিন্তু আমার মনে হয় তাকে নিয়ে এখনই সিদ্ধান্তে যাওয়ার মতো কিছু হয়নি এখনো। সে কাটারটা একটু কমিয়ে জোরে বোলিং করার চেষ্টা করছে। এই ‘মিক্সআপ’টা যখন (ঠিক) হয়ে যাবে আমার মনে ও ওর সেরা ফর্মে ফিরে আসবে।”