• ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগ
  • " />

     

    করোনা-আতঙ্কে 'হ্যান্ডশেক'-এ না নিউক্যাসলের

    করোনা ভাইরাসের প্রভাব ক্রমেই জেঁকে বসছে ইউরোপিয়ান ফুটবলে। বিশেষভাবে ইতালিতে লিগের ম্যাচ পিছিয়ে যাওয়া থেকে শুরু করে ‘দর্শকবিহীন’ মাঠে ম্যাচ আয়োজন করা হচ্ছে। এমনকি এ বছরের ইউরো সময়মতো হওয়া নিয়েও শঙ্কা তৈরি হয়েছে। এবার করোনা আতঙ্কে ট্রেনিং সেন্টারে হ্যান্ডশেক বা করমর্দন নিষিদ্ধ করেছে ইংলিশ ক্লাব নিউক্যাসল ইউনাইটেড।

    গত কয়েক সপ্তাহে ইউরোপে করোনা ভাইরাসের প্রকোপ বাড়ছে। ইতালি এবং ফ্রান্সে এই ভাইরাসের ফলে বেশ কয়েকজন মারা গেছেন। বিবিসির মতে, বিশ্বের ৫০ টি দেশে প্রায় আশি হাজারের মতো মানুষ এই ভাইরাসের দ্বারা সংক্রমিত হয়েছেন। আর তাই এই ভাইরাসের ফলে ক্লাবের কোনও খেলোয়াড়ের যাতে ক্ষতি না হয়, সেজন্যই নিউক্যাসল কর্তৃপক্ষ সতর্কতা হিসেবে এই পদক্ষেপ নিয়েছে। 

    নিউক্যাসল ম্যানেজার স্টিভ ব্রুস ট্রেনিং গ্রাউন্ডে খেলোয়াড়দের হাত মেলানো নিষিদ্ধের বিষয়টি নিয়ে সংবাদমাধ্যমকে বিস্তারিত জানিয়েছেন, “এখানে হাত মেলানোর একটি প্রথা রয়েছে। সকালে যখন সবার সাথে দেখা হয়, তখন আমরা হ্যান্ডশেক করতাম। তবে ভাইরাসের ফলে আমরা সেটি বন্ধ করেছি। আমরা আশা করি, অবস্থা আর খারাপ হবে না। আমরাও সবার মতো টিভি স্ক্রিনের সামনে বসে এই বিষয়ে খোঁজখবর রাখার চেষ্টা করছি।”

    এদিকে গতকাল বৃহস্পতিবার ইতালিতে একজন ফুটবলার করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। দেশটির তৃতীয় বিভাগের ক্লাব ইউএস পিয়ানেসের সেই খেলোয়াড় বর্তমানে সিয়েনার একটি হাসাপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। ইউরোপে এটিই প্রথম কোনও ফুটবলারের করোনা ভাইরাসে আক্রান্তের ঘটনা।