• জিম্বাবুয়ের বাংলাদেশ সফর
  • " />

     

    ইংল্যান্ডের ৪টি ভেন্যুতে আয়ারল্যান্ডের সঙ্গে বাংলাদেশের টি-টোয়েন্টি

    ইতিহাসে আয়ারল্যান্ড তাদের ঘরে কাটাবে অন্যতম ব্যস্ত এক মৌসুম। তার ওপর একটি ভেন্যুতে চলছে সংস্কার, ক্লন্টার্ফকে ক্রিকেট আয়ারল্যান্ড পাবে না দুই মৌসুমের জন্য। ফল- বাংলাদেশকে আতিথেয়তা তারা দেবে ইংল্যান্ডে। বাংলাদেশের সঙ্গে চারটি টি-টোয়েন্টি ম্যাচ ইংল্যান্ডে আয়োজন করবে ক্রিকেট আয়ারল্যান্ড। ওভাল, চেমসফোর্ড, ব্রিস্টল ও এজবাস্টনে হবে এই চারটি ম্যাচ। 

    “আইরিশ সমর্থকরা ১১টি শীর্ষ পর্যায়ের আন্তর্জাতিক ম্যাচ উপভোগের সুযোগ পাবে, যার মধ্যে বিশ্বের এক নম্বর টি-টোয়েন্টি দল এবং বিশ্বকাপের রানার্স-আপ দল আছে। ইংল্যান্ডে আমরা ২০১৭ সালে যে দুটি ওয়ানডে খেলেছিলাম, সঙ্গে লর্ডসে গত বছর টেস্ট খেলেছিলাম, যুক্তরাজ্যে আমরা অভাবনীয় সাড়া পেয়েছি। যুক্তরাজ্যে আইরিশ ক্রিকেটের ব্যাপক আগ্রহ আছে, আমরা দর্শকসারিতে সবুজের সমারোহ দেখতে চাই”, বলেছেন ক্রিকেট আয়ারল্যান্ডের প্রধান নির্বাহী ওয়ারেন ডিউট্রোম। 

    অবশ্য গ্যালারিতে ‘সবুজ’-এর সমারোহ বাংলাদেশের ক্ষেত্রেও প্রযোজ্য হবে। শেষ বিশ্বকাপেও বাংলাদেশের খেলা হওয়া প্রতিটি ভেন্যুতে সমর্থকদের উপস্থিতি ছিল ব্যাপক। যুক্তরাজ্যে উল্লেখযোগ্য পরিমাণে বাংলাদেশীও থাকেন।

    ২০১০ সালের পর এই প্রথমবার আইসিসির দুটি পূর্ণ সদস্য নিরপেক্ষ ভেন্যু হিসবে ইংল্যান্ডে সিরিজ খেলবে, শেষ অস্ট্রেলিয়ার সঙ্গে খেলেছিল পাকিস্তান। 

    যে চারটি ভেন্যুতে খেলা হবে, এর সবকটিতেই এর আগে খেলেছে বাংলাদেশ। আছে সুখস্মৃতিও। ২০১০ সালে ব্রিস্টলে ইংল্যান্ডকে প্রথমবারের মতো হারিয়েছিল বাংলাদেশ, আর শেষ বিশ্বকাপে ওভালে হারিয়েছিল দক্ষিণ আফ্রিকাকে। এজবাস্টনে বাংলাদেশ খেলেছিল ২০১৭ সালে চ্যাম্পিয়নস ট্রফির সেমিফাইনাল। আর চেমসফোর্ডে ১৯৯৯ সালে নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে খেলেছিল তারা। 

    এ চারটি ম্যাচ সমর্থকরা উপভোগ করবেন বলে আশা ইসিবির প্রধান নির্বাহী টম হ্যারিসনের, “গত বছরই আমরা সরাসরি দেখেছি, আইরিশ ও বাংলাদেশী সমর্থকরা আমাদের ভেন্যুগুলোর আবহ কীরকম বদলে দেয়। আমি নিশ্চিত, দুই দলের সমর্থকরাই উচ্চমানের ক্রিকেট উপভোগ করবে।” 

    প্রাথমিকভাবে আয়ারল্যান্ড সফরে তিনটি ফরম্যাটেই খেলার কথা ছিল বাংলাদেশের এফটিপি অনুযায়ী। তবে ‘আর্থিক কারণে’ টেস্ট আয়োজনের সিদ্ধান্ত থেকে সরে এসেছে ক্রিকেট আয়ারল্যান্ড, সূচিতে যোগ হয়েছে একটি বাড়তি টি-টোয়েন্টি। 

    বাংলাদেশের আয়ারল্যান্ড সফর ২০২০ 

    ১ম ওয়ানডে, ১৪ মে, স্টরমোন্ট
    ২য় ওয়ানডে, ১৬ মে, স্টরমোন্ট
    ৩য় ওয়ানডে, ১৯ মে, স্টরমোন্ট

    ১ম টি-টোয়েন্টি, ২২ মে, ওভাল
    ২য় টি-টোয়েন্টি, ২৪ মে, চেমসফোর্ড
    ৩য় টি-টোয়েন্টি, ২৭ মে, ব্রিস্টল
    ৪র্থ টি-টোয়েন্টি, ২৯ মে, এজবাস্টন