• " />

     

    বিপিএল, ঢাকা প্রিমিয়ার লিগসহ স্থগিত দেশের সব খেলা

    করোনা ভাইরাসের থাবায় থমকে দাঁড়িয়েছে পৃথিবী। ধীরে ধীরে এর আঁচ পড়ছে বাংলাদেশেও। সতর্কাবস্থা অনুসরণ করে বিশ্বের করোনা আক্রান্ত বেশিরভাগ দেশের মতো বাংলাদেশও ঘরোয়া সব খেলার আয়োজন স্থগিত করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। আজ সোমবার, যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী জাহিদ আহসান রাসেল সব ফেডারেশনের সঙ্গে বৈঠক শেষে নিশ্চিত করেছেন এ খবর।

    প্রতিমন্ত্রী বলেন, "করোনাভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা বাড়ছে। এই পরিস্থিতে স্কুল কলেজ বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে। আজ মন্ত্রীসভার বৈঠকে একজন মন্ত্রী বিষয়টি উত্থাপন করেছিলেন ক্রিকেট, ফুটবল টুর্নামেন্ট হচ্ছে, তখন প্রধানমন্ত্রী বলেছেন বন্ধ রাখার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। তাই আপনাদের উদ্দেশ্যে বলছি আগামী ৩১ মার্চ পর্যন্ত সকল ঘরোয়া খেলা আপাতত বন্ধ রাখবেন। এছাড়া আন্তর্জাতিক কোনো ইভেন্ট যদি থাকে সেটিও এপ্রিলের পরে করার অনুরোধ করবো।"

    বাফুফে দুইদিন আগেই জরুরী বৈঠক করে লিগের নতুন সময়সূচী প্রেরণ করে এ সময়ে খেলা চালিয়ে যাওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছিল। ক্রীড়া মন্ত্রণালয়ের নির্দেশনা অনুযায়ী বাফুফে বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগ ও মেয়েদের ফুটবল লিগসহ স্কুল ফুটবল টুর্নামেন্টও অনির্দিষ্ট কালের জন্য স্থগিত করেছে।

    স্থগিত করা হয়েছে ঢাকা প্রিমিয়ার লিগের তৃতীয় রাউন্ডের খেলাও। বিসিবি এক বিবৃতিতে বলেছে, "অনিবার্য কারণবশত বিসিবি বঙ্গবন্ধু ঢাকা প্রিমিয়ার ডিভিশন ক্রিকেট লিগের ২০১৯-২০ মৌসুমের তৃতীয় রাউন্ডের খেলা স্থগিত রাখার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। বাংলাদেশ সরকারের স্বাস্থ্য ও নিরাপত্তা নির্দেশনা মেনে এর সূচি পুনরায় নির্ধারণ ও লিগ শুরুর ব্যাপারে বিসিবি সিদ্ধান্ত নেবে।"  

    এর আগে বাংলাদেশের বিশ্বকাপ ও এশিয়া কাপ বাছাইয়ে মার্চের দুইটি ম্যাচ স্থগিত করেছিল বাফুফে। বিসিবিও এপ্রিলের পাকিস্তান সফর স্থগিত করেছে।  

    প্রিয় প্যাভিলিয়ন পাঠক, 

    কোভিড-১৯ মহামারি বিশ্বের আরও অনেক কিছুর মতো অর্থনৈতিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত করেছে ক্রীড়াঙ্গনকে। পরিবর্তিত এই পরিস্থিতিতে নতুন এক সংকটের মুখোমুখি হয়েছি আমরাও। প্যাভিলিয়নের নিয়মিত পাঠক এবং শুভানুধ্যায়ী হিসেবে আপনাদের কাছে অনুরোধ থাকবে আমাদের পাশে এসে দাঁড়ানোর। আপনার ছোট বা বড় যেকোনো রকম আর্থিক অনুদান আমাদের এই কঠিন সময়ে মূল্যবান অবদান রাখবে।

    ধন্যবাদান্তে,
    প্যাভিলিয়ন