• " />

     

    চলে গেলেন ভারতের ফুটবল কিংবদন্তী ও রঞ্জি ক্রিকেটার চুনি গোস্বামী

    যদি ফুটবলের জন্য বিশেষায়িত কোনও সংবাদমাধ্যম বা প্লাটফর্ম হয়, তাহলে হেডিংয়ে দেখবেন ‘ভারতের সাবেক ও সর্বকালের অন্যতম সেরা ফুটবলার’। অলিম্পিক আবার ‘অলিম্পিয়ান’ হিসেবেই অভিহিত করতে চায়। ক্রিকেটের হলে দেখবেন, ‘রঞ্জিতে বেঙ্গলের সাবেক অধিনায়ক’। সুবিমল গোস্বামী বা চুনী গোস্বামী ছিলেন এমনই- ফুটবলও খেলেছেন, ক্রিকেটও খেলেছেন। শুধু খেলেছেন নয়, শীর্ষ পর্যায়ে শাসন করেছেন। 

    সেই চুনী গোস্বামী চলে গেলেন ৮২ বছর বয়সে। হৃদযন্ত্রের ক্রিয়া বন্ধ হয়ে কলকাতায় বৃহস্পতিবার মারা গেছেন ভারতের কিংবদন্তী খেলোয়াড়। শারীরিক নানা সমস্যায় দীর্ঘদিন ধরেই ভুগছিলেন তিনি। 

    ১৯৫৬-৬৪ সালের মাঝে ভারতের হয়ে ভারতের হয়ে ৫০টি আন্তর্জাতিক ফুটবল ম্যাচ খেলেছেন তিনি। ১৯৬০ অলিম্পিকে ফ্রান্সকে রুখে দেওয়া দলের সদস্য ছিলেন তিনি, ১৯৬২ সালে দ্বিতীয়বারের মতো যে দল জিতেছিল এশিয়ান গেমসের সোনা। 

    ফুটবল ছাড়ার পর শীর্ষ পর্যায়ে ক্রিকেট শুরু করেন গোস্বামী। ১৯৭১-৭২ মৌসুমে রঞ্জির ফাইনালে ওঠা বেঙ্গলের অধিনায়ক ছিলেন তিনি। এছাড়াও খেলেছেন ১৯৬৮-৬৯ মৌসুমের ফাইনালেও, যেখানে দুই ইনিংসে যথাক্রমে ৯৬ ও ৮৪ রান করেছিলেন তিনি। ছিলেন অলরাউন্ডার, সব মিলিয়ে ৪৬ ম্যাচে ১৯৫২ রানের সঙ্গে ৪৭টি উইকেট ছিল তার। 

    ১৯৩৮ সালে বর্তমান বাংলাদেশের কিশোরগঞ্জে জন্মেছিলেন গোস্বামী। 

    প্রিয় প্যাভিলিয়ন পাঠক, 

    কোভিড-১৯ মহামারি বিশ্বের আরও অনেক কিছুর মতো অর্থনৈতিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত করেছে ক্রীড়াঙ্গনকে। পরিবর্তিত এই পরিস্থিতিতে নতুন এক সংকটের মুখোমুখি হয়েছি আমরাও। প্যাভিলিয়নের নিয়মিত পাঠক এবং শুভানুধ্যায়ী হিসেবে আপনাদের কাছে অনুরোধ থাকবে আমাদের পাশে এসে দাঁড়ানোর। আপনার ছোট বা বড় যেকোনো রকম আর্থিক অনুদান আমাদের এই কঠিন সময়ে মূল্যবান অবদান রাখবে।

    ধন্যবাদান্তে,
    প্যাভিলিয়ন