• " />

     

    করোনাভাইরাসে আক্রান্ত নোভাক জোকোভিচ

    বৈশ্বিক মহামারি চলার সময় প্রদর্শনী টুর্নামেন্ট আয়োজন করে সমালোচিত হয়েছিলেন নোভাক জোকোভিচ। ওই টুর্নামেন্টই বোধ হয় কাল হলো তার জন্যও। সার্বিয়া ও ক্রোয়েশিয়ার দুই শহরে খেলার পর অন্তত ৩ জন খেলোয়াড় করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছিলেন। মঙ্গলবার জোকোভিচ নিজেই জানিয়েছেন, করোনা টেস্টে পজিটিভ এসেছে তার ফলও।  

    টেনিসের নাম্বার ওয়ান র‍্যাঙ্কড খেলোয়াড় সস্ত্রীক আক্রান্ত হয়েছে করোনাভাইরাসে, "বেলগ্রেড পৌঁছে আমরা পরীক্ষা করিয়েছিলাম। আমার ও আমার স্ত্রি ইয়েলেনার টেস্টের ফল পজিটিভ এসেছে, তবে আমাদের সন্তানদের ফল এসেছে নেগেটিভ।"- বিবৃতিতে জানিয়েছেন জোকোভিচ।


    বেলগ্রেড ও জাদার- এই দুই শহরে আদ্রিয়া ট্যুর আয়োজনের পর নতুন করে বেড়েছে সংক্রমণের হার। গেল সপ্তাহে জাদারের টুর্নামেন্ট বাতিল করা হয়েছিল। ক্রোয়েশিয়ার শহরটিতে নতুন করে বিধি-নিষেধও চালু করা হয়েছে। জোকোভিচের আগে বেল ভিক্টর ত্রোচিকি জানিয়েছিলেন তিনি ও তার সন্তানসম্ভাবা স্ত্রী করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। তিনবারের গ্রান্ডস্ল্যাম সেমিফাইনালিস্ট ড্রিগর দিমিত্রোভের অবস্থাও একই। গত শনিবার বর্না করিচ দিমিত্রোভের বিপক্ষে বাতিল হওয়ার আগে শেষ ম্যাচটি খেলেছিলেন। সোমবার করিচও জানিয়েছেন, তিনি আক্রান্ত হয়েছেন করোনাভাইরাসে।

    আদ্রিয়া ট্যুরে দর্শক উপস্থিতিতে তেমন বাধ্যবাধকতা ছিল না। টেনিস কোর্টেও মানা হয়নি কোনো সামাজিক দূরত্ব। খেলোয়াড়রা একে অপরকে ম্যাচ শেষে জড়িয়ে ধরেছেন, হাত মিলিয়েছেন। ম্যাচের পর খেলোয়াড়দের নাইটক্লাবে উদযাপনেও মাততে দেখা গেছে।

    জোকোভিচ এর আগে বলেছিলেন, ভ্যাকসিন আবিষ্কার হলেও তা ব্যবহার করার পক্ষে নন তিনি। টুর্নামেন্ট বাতিল হওয়ার পরই ক্রোয়েশিয়া ছেড়েছিলেন জোকোভিচ। তবে সার্বিয়ান খেলোয়াড় জানাচ্ছেন তার কোনো উপসর্গ নেই। আক্রান্ত হলেও টুর্নামেন্ট আয়োজনের সিদ্ধান্তের পক্ষেই সাফাই গাইছেন তিনি, "মহৎ একটি ভাবনা থেকে এই পরিকল্পনা বাস্তবায়ন করেছিলাম আমরা।  তহবিল সংগ্রহ করে অসহায়দের সাহায্য করাই ছিল আমাদের লক্ষ্য। যেভাবে সবাই আমাদের পাশে দাঁড়িয়েছেন তাতে মুগ্ধ হয়েছি আমরা।"

    "আমরা এমন একটা সময়ে টুর্নামেন্ট আয়োজন করেছিলাম যখন ভাইরাসটি দুর্বল হয়ে পড়েছিল। আমাদের বিশ্বাস ছিল টুর্নামেন্ট আয়োজনের জন্য শর্তগুলো আমরা পূরণ করেছি। তবে দুঃখের বিষয় ভাইরাস এখনও আছে, এবং এটাই বাস্তবতা। এর সঙ্গে মানিয়ে চলা শিখছি আমরা।"

    বিবৃতিতে জোকোভিচ জানিয়েছেন ১৪ দিন আইসোলেশনে থাকবেন তিনি। টুর্নামেন্টের কারণে যারা আক্রান্ত হয়েছেন তাদের সবার কাছে দুঃখ প্রকাশ করেছেন জোকোভিচ।

    আদ্রিয়া ট্যুরের বাকি ম্যাচগুলো আগামী সপ্তাহে বসনিয়া হার্জেগোভিনায় হওয়ার কথা ছিল। সেটিও এখন বাতিল করা হয়েছে। 


     

    প্রিয় প্যাভিলিয়ন পাঠক, 

    কোভিড-১৯ মহামারি বিশ্বের আরও অনেক কিছুর মতো অর্থনৈতিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত করেছে ক্রীড়াঙ্গনকে। পরিবর্তিত এই পরিস্থিতিতে নতুন এক সংকটের মুখোমুখি হয়েছি আমরাও। প্যাভিলিয়নের নিয়মিত পাঠক এবং শুভানুধ্যায়ী হিসেবে আপনাদের কাছে অনুরোধ থাকবে আমাদের পাশে এসে দাঁড়ানোর। আপনার ছোট বা বড় যেকোনো রকম আর্থিক অনুদান আমাদের এই কঠিন সময়ে মূল্যবান অবদান রাখবে।

    ধন্যবাদান্তে,
    প্যাভিলিয়ন