• অন্যান্য খবর
  • " />

     

    জোকোভিচের দোষ দেখেন না মাটিচ

    সার্বিয়ায় টেনিস টুর্নামেন্টে আয়োজন করে সমালোচিত হয়েছেন নোভাক জোকোভিচ। তবে তার স্বদেশী ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড মিডফিল্ডার নেমানিয়া মাটিচ বলছেন জোকোভিচ ভুল করেননি। সার্বিয়ায় টেনিস টুর্নামেন্ট আয়োজনের সিদ্ধান্ত সঠিক ছিল মন্তব্য করে জোকোভিচের পাশে দাঁড়িয়েছেন তিনি।

    আদ্রিয়া ট্যুর আয়োজনের পর জোকোভিচসহ আরও অন্তত ৪ জন খেলোয়াড় আক্রান্ত হয়েছে করোনাভাইরাসে। প্রদর্শনী এই টেনিস টুর্নামেন্ট সার্বিয়া ছাড়াও আয়োজিত হয়েছে ক্রোশিয়ায়তেও। সেখানে টেনিস টুর্নামেন্ট আয়োজনের পর করোনভাইরাসের বিস্তার নতুন করে বেড়েছে। তাই সতর্কাবস্থায় ফিরে গেছে শহরটি। টুর্নামেন্ট চলার সময় খেলোয়াড় বা দর্শকদের ভেতরও কোনো ধরনের সামাজিক দূরত্ব মানার বালাই দেখা যায়নি।

    জোকোভিচের আয়োজনে তাই নিজ দেশ সার্বিয়াতেও সমালোচিত হয়েছে। তবে মাটিচ মনে করিয়ে দিচ্ছেন সার্বিয়ার পরিস্থিতির কথা। তার মতে তাদের দেশে অবস্থা স্বাভাবিক হয়ে যাওয়াতেই টুর্নামেন্ট আয়োজন করেছিলেন জোকোভিচ।

    "মানুষের বুঝা উচিত, সার্বিয়ার অবস্থা এখানকার (ইংল্যান্ড) অবস্থার চেয়ে পুরোপুরি আলাদা। আমাদের দেশে কোনো বাধ্যবাধকতা ছিল না। সরকারও কাউকে কোনো কাজে বাধা দেয়নি। শপিং সেন্টার, রেস্টুরেন্ট সবই খোলা ছিল।" - স্কাই স্পোর্টসকে জানিয়েছেন মাটিচ।

    "আমাদের দেশ তিন মাস পুরোপুরি আটকানো ছিল। আপনি রাস্তায় হাঁটতে পারবেন না, বাইরে বের হতে পারবেন না, ঘরও ছাড়তে পারবেন না। ওখানের (সার্বিয়া) অবস্থাই ছিল আলাদা।"

    আদ্রিয়া ট্যুরে বেলগ্রেডের টেনিস কোর্ট দেখেছে উপচে পড়া দর্শক। মাটিচ বলছেন সরকারি আদেশ মেনেই জোকোভিচ প্রদর্শনী টুর্নামেন্টের আয়োজন করেছিলেন।

    "সবকিছু খুলে দেওয়ার সময়া আমাদের বলা হয়েছিল, "এখন তোমরা আগের চেয়েও মুক্ত।" এই টুর্নামেন্টের আগেই এক ম্যাচে ২০ হাজার দর্শক হয়েছিল। সেটা নিয়ে কেউ কিছু বললো না।"

    "আমি শুধু বলতে চাই ও (জোকোভিচ) টুর্নামেন্ট আয়োজন করে দোষ করেনি। সে শুধু খেলোয়াড়দের প্রতিযোগিতামূলক টুর্নামেন্টের স্বাদ দিতে চেয়েছিল। আমার চোখে সে কোনো ভুল করেনি।"
     

    প্রিয় প্যাভিলিয়ন পাঠক, 

    কোভিড-১৯ মহামারি বিশ্বের আরও অনেক কিছুর মতো অর্থনৈতিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত করেছে ক্রীড়াঙ্গনকে। পরিবর্তিত এই পরিস্থিতিতে নতুন এক সংকটের মুখোমুখি হয়েছি আমরাও। প্যাভিলিয়নের নিয়মিত পাঠক এবং শুভানুধ্যায়ী হিসেবে আপনাদের কাছে অনুরোধ থাকবে আমাদের পাশে এসে দাঁড়ানোর। আপনার ছোট বা বড় যেকোনো রকম আর্থিক অনুদান আমাদের এই কঠিন সময়ে মূল্যবান অবদান রাখবে।

    ধন্যবাদান্তে,
    প্যাভিলিয়ন