• ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগ
  • " />

     

    নিউক্যাসল ইউনাইটেড কিনছে না সৌদি কনসোর্টিয়াম

    নিউক্যাসল ক্লাব কেনার প্রক্রিয়া থেকে নিজেদের প্রত্যাহার করে নিয়েছে সৌদি আরবের নেতৃত্বাধীন কনসোর্টিয়াম। এই কনসোর্টিয়ামের সৌদি পাবলিক ইনভেস্টমেন্ট ফান্ড, পিসিপি ক্যাপিটাল পার্টনারস এবং রিউবেন ব্রাদার্স যৌথ বিবৃতিতে নিউক্যাসল সমর্থকদের কাছে এই সিদ্ধান্তের জন্য দুঃখপ্রকাশ করেছে। মূলত করোনাভাইরাসের কারণে বৈশ্বিক অর্থনীতিতে সৃষ্ট অনিশ্চয়তা এবং ক্লাব কেনার দীর্ঘ প্রক্রিয়াকে এই সিদ্ধান্তের পিছনে কারণ হিসেবে দেখিয়েছে।

    ৩০০ মিলিয়ন পাউন্ড ব্যয়ে নিউক্যাসল ইউনাইটেডের ৮০ ভাগ মালিকানা কিনে নিতে চেয়েছিল এই কনসোর্টিয়াম। সেই লক্ষ্যে গত এপ্রিলে প্রিমিয়ার লিগের কাছে কাগজপত্রও জমা দিয়েছিল তারা। গত কয়েক মাস ধরে সেগুলো পরীক্ষা-নিরীক্ষা করে দেখছিল প্রিমিয়ার লিগ।


    আগ্রহ প্রত্যাহারের বিষয়টি জানিয়ে কনসোর্টিয়ামটি একটি বিবৃতি দিয়েছে, সেটিতে তারা বলেছে, “নিউক্যাসল কমিউনিটি এবং ক্লাবের প্রতি শ্রদ্ধা রেখে আমরা ক্লাব কিনে নেওয়ার ব্যাপারে নিজেদের আগ্রহ প্রত্যাহার করছি।”

    কনসোর্টিয়ামের এই বিবৃতির পর নিউক্যাসলের পক্ষ থেকেও একটি বিবৃতি দেওয়া হয়েছে। সেই বিবৃতিতে আপাতত কোচ স্টিভ ব্রুসকে দলবদলের বাজারে সাহায্য করাটাই তাদের প্রধান লক্ষ্য বলে জানিয়েছে, “আমার বৃহস্পতিবারের বিবৃতি দেখেছি। কখনোই না বলা উচিৎ নয়, মাইক অ্যাশলি এখনও এই চুক্তির প্রতি শতভাগ প্রতিশ্রুতিবদ্ধ। তবে এখন আমাদের মূল কাজ হচ্ছে দলবদলের বাজারে স্টিভ ব্রুসকে সাহায্য করা এবং পরের মৌসুমের প্রস্তুতি শুরু করা।”

    সৌদি কনসোর্টিয়ামের নিউক্যাসলে বড় শেয়ার কিনে নেওয়ার বিষয়টি নিয়ে জনমত ছিল বিভক্ত। ক্লাব প্রধান মাইক অ্যাশলিকে নিয়ে অতিষ্ঠ হয়ে ওঠা ক্লাবের সমর্থকগোষ্ঠী এই কনসোর্টিয়ামকে স্বাগত জানিয়েছিল। তবে বিভিন্ন মানবাধিকার সংস্থা এবং প্রিমিয়ার লিগের অন্যতম ব্রডকাস্টার কাতারের মালিকানাধীন বিইন স্পোর্টস এই উদ্যোগটির বিরুদ্ধে নিজেদের অবস্থান ব্যক্ত করেছিল।

    প্রিয় প্যাভিলিয়ন পাঠক, 

    কোভিড-১৯ মহামারি বিশ্বের আরও অনেক কিছুর মতো অর্থনৈতিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত করেছে ক্রীড়াঙ্গনকে। পরিবর্তিত এই পরিস্থিতিতে নতুন এক সংকটের মুখোমুখি হয়েছি আমরাও। প্যাভিলিয়নের নিয়মিত পাঠক এবং শুভানুধ্যায়ী হিসেবে আপনাদের কাছে অনুরোধ থাকবে আমাদের পাশে এসে দাঁড়ানোর। আপনার ছোট বা বড় যেকোনো রকম আর্থিক অনুদান আমাদের এই কঠিন সময়ে মূল্যবান অবদান রাখবে।

    ধন্যবাদান্তে,
    প্যাভিলিয়ন