• ফুটবল, অন্যান্য
  • " />

     

    পাঁচমাস বন্দিজীবনের পর ব্রাজিলে ফিরছেন রোনালদিনহো

    অবশেষে জেলমুক্ত হতে যাচ্ছে ব্রাজিলের কিংবদন্তি ফুটবলার রোনালদিনহো এবং তার ভাই রবার্তো। নকল পাসপোর্ট নিয়ে প্যারাগুয়েতে প্রবেশ করে গত মার্চে আটক হয়েছিলেন দুজন। এরপর প্রায় পাঁচ মাস ধরে প্যারাগুয়ের কারগার এবং করোনা মহামারী শুরুর পর একটি হোটেলে বন্দী ছিলেন তারা। শেষ পর্যন্ত অপরাধ স্বীকার করে প্যারাগুয়ের কর্তৃপক্ষের সঙ্গে একটি চুক্তি করে ছাড়া পাচ্ছেন রোনালদিনহো এবং তার ভাই।

    চুক্তি অনুযায়ী ভুয়া পাসপোর্ট ব্যবহার করে প্যারাগুয়েতে প্রবেশের জন্য ক্ষমা চাইতে হবে তাদের। একইসঙ্গে রোনালদিনহোকে ৯০ হাজার ডলার এবং তার ভাই রবার্তোকে ১ লাখ ১০ হাজার ডলার জরিমানা শোধ করতে হবে। এছাড়া প্যারাগুয়েতে ক্রিমিনাল রেকর্ড থাকবে রবার্তোর, তবে রোনালদিনহোর কোনও ক্রিমিনাল রেকর্ড থাকবে না। এছাড়া আগামী দুই বছরে ব্রাজিল ছেড়ে কোথাও যেতে পারবেন না রবার্তো। তবে রোনালদিনহো বিদেশ ভ্রমণ করতে পারবেন, কিন্তু প্রতিটি ভ্রমণের আগে কতদিনের জন্য যাচ্ছেন সেটি প্যারাগুয়ে কর্তৃপক্ষকে জানাতে হবে।


    এছাড়া আগামী দুই বছরে প্রত্যেক তিন মাস পরপর ব্রাজিলের ফেডারেল বিচারকের সামনে হাজিরা দিতে হবে তাদের। রোনালদিনহো এবং তার ভাইয়ের বিরুদ্ধে অভিযোগ উঠিয়ে নেওয়ার বিষয়টি নিয়ে সংবাদমাধ্যমের সঙ্গে কথা বলেন তাদের আইনজীবী সার্জিও কুইরোজ, “সরকারী কৌঁসুলির দপ্তর থেকে নিশ্চিত করা হয়েছে যে, তাদের দুজনের বিরুদ্ধে অর্থনৈতিক বা অন্য কোনও ধরনের আর কোনও অভিযোগ নেই। দীর্ঘ ৫ মাস পরে তারা সেই বিষয়টিই মেনে নিল যেটা আমরা শুরু থেকে বলে আসছি, তারা দুজন নিজেদের অজান্তে ভুয়া কাগজপত্র ব্যবহার করেছেন।”

    মার্চে আটক হওয়ার মাসখানেক পর রোনালদিনহো এবং তার ভাই দুজনই ৮ লাখ ডলার করে দিয়ে জামিনের ব্যবস্থা করেছিলেন। তবে এরপরও বিলাসবহুল একটি হোটেলে আটক থাকতে হয় তাদের।

    গত বছর ব্রাজিলে পরিবেশ সম্পর্কিত অপরাধের কারণে পাসপোর্ট জব্দ করা হয়েছিল রোনালদিনহো। তবে সেটি তাকে গত বছরের সেপ্টেম্বরেই ফিরিয়ে দেওয়া হয়। কিন্তু সেই পাসপোর্ট নিয়ে কেন প্যারাগুয়ে ভ্রমণ করেননি রোনালদিনহো, সেটি এখনও রহস্য।

    প্রিয় প্যাভিলিয়ন পাঠক, 

    কোভিড-১৯ মহামারি বিশ্বের আরও অনেক কিছুর মতো অর্থনৈতিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত করেছে ক্রীড়াঙ্গনকে। পরিবর্তিত এই পরিস্থিতিতে নতুন এক সংকটের মুখোমুখি হয়েছি আমরাও। প্যাভিলিয়নের নিয়মিত পাঠক এবং শুভানুধ্যায়ী হিসেবে আপনাদের কাছে অনুরোধ থাকবে আমাদের পাশে এসে দাঁড়ানোর। আপনার ছোট বা বড় যেকোনো রকম আর্থিক অনুদান আমাদের এই কঠিন সময়ে মূল্যবান অবদান রাখবে।

    ধন্যবাদান্তে,
    প্যাভিলিয়ন