• ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগ
  • " />

     

    চেলসির দলবদল প্রসঙ্গে ক্লপের মন্তব্য হাস্যকর : ল্যাম্পার্ড

    লিভারপুলকে চেলসির সঙ্গে মেলাতে নিষেধ করেছিলেন ইউর্গেন ক্লপ। দলবদলের বাজারে চেলসির টাকা ছড়ানোর পন্থা অবলম্বন করে সাফল্য পেতে চায় না লিভারপুল, প্রিমিয়ার লিগে প্রথম ম্যাচের আগে সংবাদ সম্মেলনে এমনটাই বলেছিলেন তাদের কোচ। চেলসি কোচ ফ্রাঙ্ক ল্যাম্পার্ডের কাছ থেকে এর বিপরীতে একটা জবাব আসবে, সেটা অনুমিতই ছিল। তবে ক্লপের মন্তব্যে একেবারেই বিরক্ত হননি ল্যাম্পার্ড, বরং তার কাছে এটিকে বেশ হাস্যকর মনে হয়েছে।

    ব্রাইটনের বিপক্ষে ম্যাচের আগে সংবাদ সম্মেলনে এই বিষয়ে প্রশ্ন করা হলে ল্যাম্পার্ডের উত্তর, “আমি তার মন্তব্য শুনে খুব একটা বিরক্ত হইনি। আমার কাছে এটা বেশ হাস্যকর মনে হয়েছে।”


    চেলসি এবং ম্যানচেস্টার সিটির মালিকপক্ষের দিকে ইঙ্গিত করে ক্লপ বলেছিলেন, করোনার কারণে সব ক্লাব যেখানে আর্থিক সমস্যায় পর্যবসিত হচ্ছে, সেখানে ‘দেশ অথবা অভিজাতদের মালিকানায় থাকা ক্লাবগুলোকে সেটি নিয়ে খুব একটা ভাবতে হয় না।’ পরিষ্কারভাবেই সিটির মালিকপক্ষে আবুধাবির রাজপরিবারের সংযোগ এবং চেলসির মালিক রাশিয়ান ওলিগার্ক (অভিজাত) রোমান আব্রামোভিচের দিকে ইঙ্গিত করেই কথাগুলো বলেছিলেন লিভারপুল কোচ।

    ক্লপের এই মন্তব্যের বিপরীতে ল্যাম্পার্ডের পাল্টা যুক্তি, “প্রিমিয়ার লিগের ক্লাব মালিকরা কোন ব্যবসা থেকে এসেছে, সেটা নিয়ে খুব বেশি মাথা ঘামানোর কোনো কারণ নেই। প্রিমিয়ার লিগের সব ক্লাব মালিকরাই অনেক ধনী।”

    আর চেলসি এক মৌসুমে প্রচুর অর্থ ব্যয় করে অনেক খেলোয়াড় দলে টেনেছে বলেই আলোচনা হচ্ছে বেশি। ল্যাম্পার্ড মনে করেন, লিভারপুলই এই কাজ করেছে, তবে ভিন্ন পন্থায়, “লিভারপুলের গল্পটা দারুণ। ইউর্গেনের পাঁচ বছরে তারা খুবই উঁচু পর্যায়ের কিছু খেলোয়াড় স্বাক্ষর করিয়েছে। তবে সত্যি বলতে এক লেস্টার সিটি ছাড়া আধুনিক যুগে বাকি সব ক্লাবই বড় অংকের অর্থ খরচ করে খেলোয়াড় দলে টেনেই প্রিমিয়ার লিগ জিতেছে। আপনি লিভারপুলের খেলোয়াড়দের দেখুন, ভ্যান ডাইক, ফাবিনহো, নাবি কেইতা, মানে, সালাহ, দারুণ সব খেলোয়াড়, তাদের দলে টানতে কিন্তু লিভারপুলকে ভালোই খরচ করতে হয়েছে। তবে লিভারপুল সেটা একটা বড় সময় নিয়ে করেছে।”

    “আমরা একটা নিষেধাজ্ঞা থেকে ফিরেছি। আমাদের উন্নতির জন্য কিছু সমস্যা সমাধানের প্রয়োজন ছিল, সেটাই করেছি।”

    রাতে ব্রাইটনের বিপক্ষে ম্যাচ দিয়ে প্রিমিয়ার লিগ মিশন শুরু করবে চেলসি।

    প্রিয় প্যাভিলিয়ন পাঠক, 

    কোভিড-১৯ মহামারি বিশ্বের আরও অনেক কিছুর মতো অর্থনৈতিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত করেছে ক্রীড়াঙ্গনকে। পরিবর্তিত এই পরিস্থিতিতে নতুন এক সংকটের মুখোমুখি হয়েছি আমরাও। প্যাভিলিয়নের নিয়মিত পাঠক এবং শুভানুধ্যায়ী হিসেবে আপনাদের কাছে অনুরোধ থাকবে আমাদের পাশে এসে দাঁড়ানোর। আপনার ছোট বা বড় যেকোনো রকম আর্থিক অনুদান আমাদের এই কঠিন সময়ে মূল্যবান অবদান রাখবে।

    ধন্যবাদান্তে,
    প্যাভিলিয়ন