• ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগ
  • " />

     

    মেন্ডিকে দলে ভিড়িয়েছে চেলসি, কেপার দিন শেষ?

    কেপার ওপর স্ট্যামফোর্ড ব্রিজ সংশ্লিষ্টদের মোটেই আস্থা নেই। একের পর এক ভুলে একাদশে জায়গা একেবারেই নড়বড়ে হয়ে গেছে তার। তাই জরুরী ভিত্তিতে একজন গোলরক্ষক দলে টানাটা অনেকটা সময়ের দাবী হয়ে উঠেছিল চেলসির জন্য। অবশেষে ফ্রেঞ্চ ক্লাব রেন থেকে গোলরক্ষক এদুয়ার্দো মেন্ডিকে দলভুক্ত করে দাবী মিটিয়েছে চেলসি।

    পাঁচ বছরের চুক্তিতে রেন থেকে ২২ মিলিয়ন পাউন্ডের বিনিময়ে চেলসিতে যোগ দিয়েছেন মেন্ডি। উত্তর ফ্রান্সের মন্তিভিলিয়ার্সে জন্ম নেওয়া মেন্ডির এএস চেরবুর্গসের হয়ে খেলা শুরু করেন। সেখান থেকে মার্শেই বি দল হয়ে ২০১৬ সালে রেইমসে থিতু হন তিনি। রেইমসের হয়ে ২০১৮ সালে লিগ টু-র শিরোপাও জিতেন তিনি। সেই মৌসুমে মাত্র ২৪ গোল হজম করেছিলেন মেন্ডি, যা ছিল ওই মৌসুমে লিগে সবচেয়ে কম গোল হজমের রেকর্ড।


    রেইমসে তিন বছর কাটিয়ে গত মৌসুমে রেনে যোগ দেন তিনি। ৩৩ ম্যাচ খেলে ১৩ টি ক্লিনশিট রাখতে সক্ষম হয়েছিলেন তিনি, গোল হজম করেছিলেন ৩১ টি। রেনকে প্রথমবারের মতো চ্যাম্পিয়নস লিগের মূল পর্বে পৌঁছে দিতেও অবদান রেখেছিলেন।

    ২০১৮ সালে গোলরক্ষকের জন্য বিশ্বরেকর্ড ফি ৮০ মিলিয়ন ইউরো খরচ করে স্প্যানিশ ক্লাব অ্যাথলেটিক বিলবাও থেকে কেপাকে দলে ভিড়িয়েছিল চেলসি। ক্লাবে আসার পর থেকেই বিতর্ক নিত্যসঙ্গী হয়ে ঠেকেছে তার। বিশেষভাবে ২০১৮-১৯ মৌসুমে লিগ কাপের সেমিফাইনালে তখনকার চেলসি কোচ মাউরিসিও সারির নির্দেশ অমান্য করে বেশ সমালোচিত হয়েছিলেন কেপা। তাকে উঠিয়ে উইলি কাবায়েরোকে মাঠে নামাতে চেয়েছিলেন সারি, কিন্তু কেপা তখন মাঠ ছাড়তে অস্বীকৃতি জানান। এরপর থেকে পারফরম্যান্স গ্রাফও শুধু নিচের দিকেই গেছে। গত মৌসুমে শেষের দিকে দল নির্বাচনের সময় কেপার ওপর কাবায়েরোকে প্রাধান্য দিয়েছিলেন ফ্র্যাঙ্ক ল্যাম্পার্ড।

    সরাসরি না হলেও ধীরে ধীরে কেপাকে সরিয়ে মেন্ডিকে মূল গোলরক্ষক বানাতে চায় চেলসি। চেলসির সাবেক কিংবদন্তি গোলরক্ষক এবং টেকনিক্যাল পরামর্শক পিওতর চেক-ই মেন্ডিকে চলে টানতে চেলসিকে পরামর্শ দিয়েছেন বলে জানিয়েছেন ক্লাবটির পরিচালক মারিনা গ্রানভস্কাইয়া।

    প্রিয় প্যাভিলিয়ন পাঠক, 

    কোভিড-১৯ মহামারি বিশ্বের আরও অনেক কিছুর মতো অর্থনৈতিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত করেছে ক্রীড়াঙ্গনকে। পরিবর্তিত এই পরিস্থিতিতে নতুন এক সংকটের মুখোমুখি হয়েছি আমরাও। প্যাভিলিয়নের নিয়মিত পাঠক এবং শুভানুধ্যায়ী হিসেবে আপনাদের কাছে অনুরোধ থাকবে আমাদের পাশে এসে দাঁড়ানোর। আপনার ছোট বা বড় যেকোনো রকম আর্থিক অনুদান আমাদের এই কঠিন সময়ে মূল্যবান অবদান রাখবে।

    ধন্যবাদান্তে,
    প্যাভিলিয়ন