• ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগ
  • " />

     

    ক্যারিয়ারে প্রথম পাঁচ গোল হজমের পর লেস্টারের কৌশলকে দুষলেন গার্দিওলা

    কোচিং ক্যারিয়ারে প্রথমবারের মতো পাঁচ গোল হজম করে প্রতিপক্ষ লেস্টার সিটির রণকৌশলকে দুষলেন পেপ গার্দিওলা। সিটি ম্যানেজারের মতে, লেস্টারের অতি রক্ষণাত্মক কৌশলের কারণেই এত বড় হারের মুখ দেখতে হয়েছে তার দলকে।

    লেস্টার সিটির বিপক্ষে প্রথমে এগিয়ে গিয়েও শেষে ৫-২ গোলে হেরেছে ম্যানচেস্টার সিটি। হ্যাটট্রিক করেছেন গত মৌসুমে প্রিমিয়ার লিগের গোল্ডেন বুটজয়ী লেস্টার স্ট্রাইকার জেমি ভার্ডি। আর লেস্টারের হয়ে চতুর্থ এবং পঞ্চম গোলটি করেছেন যথাক্রমে জেমস ম্যাডিসন এবং ইউরি টিলেমানস।


    অথচ ম্যাচে প্রথম সিটিকে এগিয়ে দিয়েছিলেন লেস্টারের সাবেক উইঙ্গার রিয়াদ মাহরেজ। তবে এরপরই শুরু হয়ে লেস্টার ঝড়। ৩৭ মিনিটে পেনাল্টি থেকে লেস্টারকে সমতায় আনেন ভার্ডি। সেই গোল হজমের পরই অনেকটা হুড়মুড়িয়ে ভেঙে পড়ে গার্দিওলার গেমপ্ল্যান। দলের মূল দুই স্ট্রাইকার সার্জিও আগুয়েরো এবং গ্যাব্রিয়েল জেসুসকে ছাড়া খেলতে নেমে আর কুলিয়ে উঠতে পারেনি গার্দিওলার সিটি।

    ম্যাচের পর হারের জন্য লেস্টারের কৌশলকে দুষেছেন গার্দিওলা, “তারা খেলতে চায়নি। তারা অনেক গভীরে থেকে রক্ষণকাজ করেছে, আর শুধু প্রতি আক্রমণ করতে চেয়েছে। তারা প্রথম যখন সেখান থেকে বেরিয়েছে তখনই গোল করেছে। মোট তিনটি পেনাল্টি পেয়েছে তারা। তাই এটি আমাদের জন্য খুবই কঠিন ছিল। আর আমরা গোলের সুযোগ তৈরি করতে না পারায় সেটা আমাদের আতঙ্কিত করেছে এবং স্নায়ুচাপে ভুগিয়েছে।”

    তবে এই হারে ভেঙে পড়ছেন না গার্দিওলা, বরং দ্রুতই স্বরূপে ফেরার ইঙ্গিত দিলেন তিনি, “এটি কঠিন ফল। তবে আমি হাল ছাড়ছি না। আমি দলকে স্থিতিশীল করার জন্য সমাধান খুঁজে বের করব। প্রথম গোল হজম করার পর খেলোয়াড়রা হয়ত ভেবেছে, আমরা ভালো খেলছি না। তবে খেলার কর্তৃত্ব তখন আমাদের হাতেই ছিল। আমাদের আরও ধৈর্যশীল হওয়া উচিৎ ছিল। মৌসুমের মাত্র দ্বিতীয় ম্যাচে এভাবে হারার বিষয়টি মেনে নেওয়া কঠিন। তবে আমরা চেষ্টা করব যাতে এমন কিছুর পুনরাবৃত্তি না হয়। আমার খেলোয়াড় এবং ক্লাবের জন্য কষ্ট হচ্ছে।”

    প্রিয় প্যাভিলিয়ন পাঠক, 

    কোভিড-১৯ মহামারি বিশ্বের আরও অনেক কিছুর মতো অর্থনৈতিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত করেছে ক্রীড়াঙ্গনকে। পরিবর্তিত এই পরিস্থিতিতে নতুন এক সংকটের মুখোমুখি হয়েছি আমরাও। প্যাভিলিয়নের নিয়মিত পাঠক এবং শুভানুধ্যায়ী হিসেবে আপনাদের কাছে অনুরোধ থাকবে আমাদের পাশে এসে দাঁড়ানোর। আপনার ছোট বা বড় যেকোনো রকম আর্থিক অনুদান আমাদের এই কঠিন সময়ে মূল্যবান অবদান রাখবে।

    ধন্যবাদান্তে,
    প্যাভিলিয়ন