• ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগ
  • " />
    X
    GO11IPL2020

     

    কিক অফের আগে : মরিনহো-ল্যাম্পার্ড আবার একবিন্দুতে, এবার অন্যরূপে

    কবে, কখন 
    চেলসি-টটেনহাম 

    ২৯ নভেম্বর, রাত ১০.৩০ 
    স্ট্যামফোর্ড ব্রিজ 


    রোমান আব্রামোভিচের মালিকানায় চেলসির এক হাজারতম ম্যাচ। এই ম্যাচের জন্য প্রতিপক্ষের নাম এর চেয়ে অর্থবহ হতে পারত না। টটেনহাম এমনিতেই চেলসির ডার্বি প্রতিপক্ষ। তারওপর সে দলের কোচ হোসে মরিনহো। আব্রামোভিচ চেলসির মালিকানা কেনার পর যাকে কোচ করে এনেছিলেন। মরিনহোর অধীনেই পরে লেখা হয়েছে চেলসির নতুন দিনের গল্প। 

    আব্রামোভিচের আমলে চেলসির বড় শিরোপা জিতেছে মোট ১৬টি। এর অর্ধেকই এসেছে মরিনহোর হাত ধরে। এর বড় অংশীদার ফ্রাঙ্ক ল্যাম্পার্ডও। যিনি এখন চেলসি কোচ। এই ১৬ শিরোপার ১৩টিই তিনি নিজে জিতেছেন। আব্রামোভিচ, ল্যাম্পার্ড, মরিনহো- তাদের সবাই আবার মিলছেন একবিন্দুতে। এবার মরিনহোর টটেনহাম প্রিমিয়ার লিগে চেলসির ওপরে। চেলসির চেয়ে দুই পয়েন্টে এগিয়ে দুই নম্বরে আছে টটেনহাম। ৯ ম্যাচ শেষে দুর্দান্ত টটেনহাম স্বপ্ন দেখছে দারুণ কিছুর। 

    শিরোপা এখনও বহুদূরের পথ। তবে শেষ ম্যাচে ম্যানসিটিকে হারিয়ে আসা টটেনহাম প্রমাণ করেছে শিরোপার দাবিদার এখন তারাও। তবে দাবিটা কতোখানি জোরালো তা নিশ্চিত হওয়া যাবে এ বছরই। চেলসিসহ প্রিমিয়ার লিগের পরের ম্যাচগুলোতে তাদের প্রতিপক্ষ আর্সেনাল, ক্রিস্টাল প্যালেস লিভারপুল, লেস্টার সিটি, উলভস। এই ম্যাচে টটেনহামের ফলের ওপর তাদের ভাগ্য অনেকটাই নির্ভর করছে। 

    চেলসিতে ৫০ বছরের লিগ শিরোপাখরা ঘুচিয়েছিলেন মরিনহো। টটেনহামের খরা ৬০ বছরের। সিটির বিপক্ষে টটেনহামের জয় মরিনহোর মাস্টারক্লাসে ভর করে। মরিনহো তার পুরোনো দর্শনেই সফল হয়েছেন আরেকবার। সেটা বাকিদের জন্য সতর্কবার্তাই। পুরোনো ছাত্র ল্যাম্পার্ডের বিপক্ষে মাঠে নামার আগে মরিনহো বল ঠেলে দিয়েছেন অন্য কোর্টে। শিরোপা জয়ের চাপ চেলসির ওপর, সেটা তিনি মনে করিয়ে দিয়েছেন নিজের চিরচেনা রীতিতে, খোঁচা মেরে। ইনিয়ে-বিনিয়ে মরিনহো বলতে চেয়েছেন যারা এবার দলবদলে খরচ করেছে বেশি তাদের ওপরে শিরোপা জয়ের চাপ। তার ওপরে তেমন চাপ এবার আর নেই, "আমি এমন সব ক্লাবে ছিলাম যারা ছিল দবদলের চ্যাম্পিয়ন। তাই শিরোপা জয়ের চাপ নিয়ে আমাকে কাজ করতে হয়েছে। এবার আমার ওপর তেমন চাপ নেই। তাদের আছে। আমার দায়িত্ব তাদের চাপ আরেকটু বাড়িয়ে দেওয়া।" 

    চেলসি এবার গ্রীষ্মের  দলবদলে খরচ করেছে ২৩০ মিলিয়ন পাউন্ডের বেশি। গেল দুই দলবদলে নিষেধাজ্ঞায় খরচটা এবার বেশি হয়েছে বলে মরিনহোর কথার জবাব দিয়েছেন ল্যাম্পার্ড। ম্যাচের আগে তিনি বলেছেন, গত কয়েক বছরে দুই দলের খরচের পরিমাণ গড় করলে সংখ্যাটা কাছাকাছিই হবে। 

    সাবেক ছাত্র-শিক্ষকের কথার ঝাঁঝ তাই ম্যাচের আকর্ষণ বাড়িয়ে দিয়েছে আরেকটু। স্ট্যামফোর্ড ব্রিজে চেলসিকে হারাতে পারলে ২০১৮ সালের পর প্রথমবারের মতো টানা ৫ ম্যাচ জিতবে টটেনহাম। তবে, সেপ্টেম্বরের পর থেকে অপরাজিত থাকা চেলসিকে তাদের মাঠে হারাতে মরিনহোকে দেখাতে হবে আরেক মাস্টাক্লাস। 

    দলের খবর 
    দুই দলের আক্রমণভাগের সবাই আছেন ফর্মে। টিমো ভার্নার, হাকিম জিয়েচ, হজসন ওদয় ও অলিভিয়ের জিরুর ভেতর প্রতিযোগিতা বেড়েছে আরও। কাই হাভার্টজও ফিরেছেন দলে। সেরা একাদশ বাছাই করতে ল্যাম্পার্ডকে মাথা ঘামাতেই হবে। 

    হ্যারি কেইন এই মৌসুমে এখন পর্যন্ত প্রতি ৫০ মিনিটে গড়ে একবার অন্তত হয় গোল নয় অ্যাসিস্ট করে দলকে সাহায্য করেছেন। তার সঙ্গী হিউং মিন সন এরই মধ্যে ৯ গোল করে ফেলেছেন। চেলসির বিপক্ষে গোল করতে পারলে গ্যারি লিনেকারের ১৯৯১-৯২ মৌসুমে প্রথম দশ ম্যাচে দশ গোল করার রেকর্ড ছোবেন তিনি। তবে ডিফেন্ডার টবি অ্যাল্ডারভেইরেল্ডকে এই ম্যাচে পাচ্ছেন না মরিনহো। 

    সম্ভাব্য একাদশ 
    চেলসি 

    মেন্ডি, জেমস, জুমা, সিলভা, চিলওয়েল, হাভার্টজ, কান্তে, মাউন্ট, জিয়েখ, আব্রাহাম, ভার্নার 
    টটেনহাম 

    লরিস, ডোহার্টি, রডন, ডায়ার, সিসোকো, হজবার্গ, সন, এনদমবেলে, কেইন, বার্গওয়াইন 

    হেড টু হেড 
    স্ট্যামফোর্ড ব্রিজে টটেনহামের অতীত রেকর্ড মরিনহোকে আশার আলো দেখাতে পারার কথা নয়। শেষ ৩৪ ম্যাচে মাত্র একবার জিতেছে টটেনহাম, আর শেষ ১৭ ম্যাচে টটেনহাম ক্লিনশিট রাখতে পেরেছে মাত্র একবার। 

    সেপ্টেম্বরে লিগ কাপের ম্যাচে টটেনহামের কাছে হেরেছিল চেলসি। এরপর থেকেই অপরাজিত তারা। 

    প্রেডিকশন 
    চেলসি ১-১ টটেনহাম 

     

    প্রিয় প্যাভিলিয়ন পাঠক, 

    কোভিড-১৯ মহামারি বিশ্বের আরও অনেক কিছুর মতো অর্থনৈতিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত করেছে ক্রীড়াঙ্গনকে। পরিবর্তিত এই পরিস্থিতিতে নতুন এক সংকটের মুখোমুখি হয়েছি আমরাও। প্যাভিলিয়নের নিয়মিত পাঠক এবং শুভানুধ্যায়ী হিসেবে আপনাদের কাছে অনুরোধ থাকবে আমাদের পাশে এসে দাঁড়ানোর। আপনার ছোট বা বড় যেকোনো রকম আর্থিক অনুদান আমাদের এই কঠিন সময়ে মূল্যবান অবদান রাখবে।

    ধন্যবাদান্তে,
    প্যাভিলিয়ন