• ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগ
  • " />
    X
    GO11IPL2020

     

    ফিরমিনোর শেষ মুহূর্তের গোলে অ্যানফিল্ডে হেরে গেল টটেনহাম

    শেষের বাঁশি বাজার সময় ঘনিয়ে আসছে অ্যানফিল্ডে। ম্যাচ ১-১ গোলে সমতায়, তখনই একটা কর্নার পেল লিভারপুল। অ্যান্ডি রবার্টসনের নিখুঁত সেট পিস উড়ে এলো স্পারসের বক্সে। সবাইকে ছাড়িয়ে দারুণ এক লক্ষ্যভেদী হেড রবার্তো ফিরমিনোর, বল জালে জড়িয়েই ফেটে পড়লেন উচ্ছ্বাসে। লিভারপুল পেল শিরোপালড়াইয়ে দারুণ গুরুত্বপূর্ণ এক জয়, অ্যানফিল্ডে এসে জয়টা আর পাওয়া হলো না মরিনহোর।

    ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগে বেশ ঘটনাবহুল একটা দিনই গেল কাল। আগের দিন চেলসি-সিটি পয়েন্ট হারিয়েছিল, কাল হারাল লেস্টারও। তবে এগিয়ে যাওয়ার সুযোগ ছিল লিভারপুল বা টটেনহামের, সেটা দুই হাত ভরেই নিয়েছে বর্তমান চ্যাম্পিয়নরা। ২৮ পয়েন্ট নিয়ে দুইয়ে থাকা টটেনহামের চেয়ে তিন পয়েন্ট এগিয়ে গেল লিভারপুল।

    কালকের জয়টা স্পেশাল ছিল লিভারপুলের জন্য আরও একটা কারণে। দুই দিন আগেই প্রয়াত হয়েছেন লিভারপুলের সাবেক ম্যানেজার জেরার্ড হুলিয়ের, কিংবদন্তি এই ম্যানেজারের সম্মানে ম্যাচটা খেলতে নেমেছিল লিভারপুল। জয়ের ইচ্ছাটা জানান দিয়েছে প্রথম মিনিট থেকেই, শুরু থেকেই খেলতে থাকে তেড়েফুঁড়ে।

    প্রথম গোলটা পাওয়ার জন্য ২৬ মিনিট পর্যন্ত অপেক্ষা করতে হয় লিভারপুলকে। তাতে অবশ্য খানিকটা ভাগ্যের ছোঁয়া আছে, মোহামেদ সালাহর শট এরিক ডায়ারের গায়ে লেগে দিকবদল করে ঢুকে যায় জালে। এর মধ্যে উগো লরিস দারুণ কিছু সেভ করেছেন, তাই এগিয়ে আরও এগিয়ে যাওয়া হয়নি লিভারপুলের। তবে সমতা ফেরাতে খুব বেশিক্ষণ সময় নেয়নি স্পার্স। কাউন্টার অ্যাটাক থেকে বল পেয়ে ঠাণ্ডা মাথায় জালে জড়িয়ে দিয়েছেন সন, এই মৌসুমে যা তার ১১তম গোল। প্রথমার্ধে শেষ পর্যন্ত আর গোল হয়নি।

    দ্বিতীয়ার্ধে গোল করার পরিষ্কার সুযোগ স্পার্সই পেয়েছিল। স্টিভেন বার্গউইন ফাঁকা পোস্টে গোল দিতে পারেননি, পরে নষ্ট করেছেন আরও একটা সুযোগ। ফ্রি হেডার পেয়েও পোস্টে রাখতে পারেননি হ্যারি কেন। শেষ পর্যন্ত স্পারসকে গোল মিসের শাস্তি দিয়ে শেষ মুহূর্তে গোল পেয়েছেন ফিরমিনো। শেষ বাঁশির পরেই উল্লাসে ফেটে পরেছেন ক্লপ, বুঝিয়ে দিয়েছেন এই জয়টা কতটা দরকার ছিল।

    কাল অন্য ম্যাচে সাউদাম্পটনের সঙ্গে ১-১ গোলে ড্র করেছে দশ জনের আর্সেনাল। গ্যাব্রিয়েলের লাল কার্ডের পর কাল ম্যাচের ৩০ মিনিটেরও বেশি সময় তাদের খেলতে হয়েছিল দশজন নিয়ে। তবে এই ফলটাই আর্সেনালের জন্য একদিক দিয়ে ভালো, ঘরের মাঠে যে আগের চার ম্যাচেই হেরেছিল তারা।

      ২৮ পয়েন্ট নিয়ে লিভারপুল এখন শীর্ষে, টটেনহামের পয়েন্ট ২৫। ২৪ পয়েন্ট নিয়ে তিনে সাউদাম্পটন, এভারটনের কাছে হেরে সমান পয়েন্ট নিয়ে চারে লেস্টার। ২৩ পয়েন্ট নিয়ে পাঁচে আছে এভারটন।

    প্রিয় প্যাভিলিয়ন পাঠক, 

    কোভিড-১৯ মহামারি বিশ্বের আরও অনেক কিছুর মতো অর্থনৈতিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত করেছে ক্রীড়াঙ্গনকে। পরিবর্তিত এই পরিস্থিতিতে নতুন এক সংকটের মুখোমুখি হয়েছি আমরাও। প্যাভিলিয়নের নিয়মিত পাঠক এবং শুভানুধ্যায়ী হিসেবে আপনাদের কাছে অনুরোধ থাকবে আমাদের পাশে এসে দাঁড়ানোর। আপনার ছোট বা বড় যেকোনো রকম আর্থিক অনুদান আমাদের এই কঠিন সময়ে মূল্যবান অবদান রাখবে।

    ধন্যবাদান্তে,
    প্যাভিলিয়ন